বুধবার   ২৯ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১৬ ১৪২৬   ০৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
২০২৪ সালে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পাবে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী জীবাশ্ম জ্বালানি নিজেদের উন্নয়নে ব্যবহৃত হবে: প্রধানমন্ত্রী বিডিএফে আজ উপস্থাপন অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা সিজিসির সংযোজন ও সংশোধন অনুমোদন ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে চলবে ইলেক্ট্রিক ট্রেন: সংসদে রেলমন্ত্রী প্রাথমিকে নতুন শিক্ষকদের যোগদান যথাসময়ে সোলেইমানি হত্যার নীল নকশাকারী বিমান দুর্ঘটনায় নিহত এক বিদ্যালয়ে একবারই ভর্তি ফি, হচ্ছে নীতিমালা শুরু হলো ৪৪তম কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলা মৌলভীবাজারে অগ্নিকাণ্ডে একই পরিবারের ৫ জন নিহত একনেকে ৯ প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাস: সর্বত্র সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর আমেরিকা ও ইসরায়েলের কমান্ডাররাও পালানোর পথ খুঁজে পাবে না সাকিবকে ওজন কমাতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী মুজিববর্ষে সব সরকারি কলেজে বসবে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য শিল্প-বৈদেশিক বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের নামজারি ৭ দিনে মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে যেসব খাবার নেহা-আদিত্যর বিয়ে ১৪ ফেব্রুয়ারি সোয়া ৯ কোটি টাকা আত্মসাতে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা আড়ংয়ের ট্রায়াল রুমে গোপনে ভিডিও,গ্রেপ্তার -১
১৫৪

অসুস্থ স্ত্রী থেকে মুক্তি পেতে জীবন্ত কবর দিলেন স্বামী

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৭ ডিসেম্বর ২০১৯  

স্ত্রী দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ। তার চিকিৎসা করাতে গিয়ে বহু অর্থ ব্যয় করেছেন স্বামী, কিন্তু তাতেও তার স্ত্রীকে সুস্থ করাতে পারেননি চিকিৎসকেরা। স্ত্রীর চিকিৎসায় টাকা খরচ করতে করতে শেষ পর্যন্ত নিঃস্ব স্বামী। 

স্ত্রীকে দিয়ে এমন দশা থেকে মুক্তি পেতে স্বামীই তাকে জীবন্ত কবর দিলেন। শুনতে আশ্চর্য লাগলেও এমনই এক বর্বর ঘটনা ঘটেছে ভারতে।

স্থানীয়রা জানান, কয়েক বছর আগে তুকারাম শেটগাঁওকর (৪৬) নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল তনভী (৪৪) নামে ওই নারীর। প্রথম দিকে সব ঠিকঠাক থাকলেও পরে শারীরিক অসুস্থতার জন্য বিছানায় শয্যাশায়ী হয়ে পড়েন তনভী। দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা করেও তাকে সুস্থ করা যায়নি।

এদিকে তার চিকিৎসায় প্রায় সব টাকা খরচ হয়ে যায় তুকারামের। কোনো উপায় না দেখে বুধবার (৪ ডিসেম্বর) গ্রামের একটি সেচ প্রকল্পের জায়গায় স্ত্রীকে জীবন্ত পুঁতে ফেলেন এই পাষণ্ড স্বামী। এ ঘটনায় তুকারামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তিনি হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে সেচ প্রকল্পের জন্য খোঁড়া ক্যানালে মাটি সমান করছিলেন কিছু শ্রমিক। আচমকা সেখানে উপস্থিত হয়ে কাজ বন্ধ করার কথা বলে তুকারাম। তাকে অগ্রাহ্য করে মেশিনের সাহায্যে মাটি তুলেছিলেন ওই শ্রমিকরা। খানিকটা মাটি তোলার পরেই ওই নারীর মৃতদেহ দেখতে পান তারা। বিষয়টি দেখে এলাকা ছেড়ে পালান তুকারাম।

পুলিশকে তিনি জানান, স্ত্রীর অসুস্থতার জন্য তার জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছিল। চিকিৎসক দেখাতে গিয়ে সব টাকাও খরচ হয়ে যায়। এমন অবস্থায় পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যায় তাদের ছেলের। এরপরই স্ত্রীকে জীবিত কবর দেওয়ার পরিকল্পনা করেন তিনি।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর