সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯   ভাদ্র ৩১ ১৪২৬   ১৬ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপের জন্মদিন আজ আজ থেকে ট্রাকে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি বিশ্ব ওজন দিবস আজ শিগগিরই বন্দর-ট্রেনে যুক্ত হচ্ছে ত্রিপুরা-বাংলাদেশ দিল্লিতে শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক ৫ অক্টোবর সারাদেশে ৭৫ প্রতিষ্ঠানকে পাঁচ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ এ পি জে আব্দুল কালাম স্মৃতি পুরস্কারে ভূষিত শেখ হাসিনা টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করুন : প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীর পুলিশ একাডেমিতে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী গণপরিবহনে মাসিক বেতনে চালক নিয়োগের নির্দেশ হাইকোর্টের সারদার পথে প্রধানমন্ত্রী হাজিদের দেশে ফেরার শেষ ফ্লাইট আজ আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস আজ শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটের কার্যক্রম আজ শুরু বিভিন্ন সংস্থা ও ব্যক্তিকে ১৩ কোটি টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগের নেতৃত্বে জয়-লেখক ছাত্রলীগের পদ হারালেন শোভন-রাব্বানী যাদের আন্দোলনে স্বাধীনতা, সেই দল ক্ষমতায় থাকলে উন্নয়ন হয়
৪০

আগামীকাল থেকে বিদ্রোহীদের শোকজ চিঠি দেবে আ’লীগ

প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও তাদের মদদদাতাদের রোববার (০৮ সেপ্টেম্বর) থেকে শোকজ চিঠি পাঠানো হবে। দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ কথা জানান। এর মধ্যে মদদদাতা হিসেবে এমপি-মন্ত্রীরাও থাকতে পারেন বলেও তিনি জানান।

শনিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, উপজেলা নির্বাচনে দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে যারা বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছিলেন এবং তাদের যারা মদদ দিয়েছিলেন তাদের শোকজ দেওয়ার সিদ্ধান্ত ঠিক আছে। রোববার থেকে তাদের শোকজের চিঠি পাঠানো হবে। শোকজ পাঠানোর পর তারা তিন সপ্তাহ সময় পাবেন শোকজের জবাব দেওয়ার জন্য।

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রায় দেড়শ’র মত বিদ্রোহী ও মদদদাতাকে শোকজ দেওয়া হবে। এর মধ্যে মদদদাতার সংখ্যা অর্ধেক হতে পারে।

যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে তাদের মধ্যে দলের এমপি ও মন্ত্রী আছেন কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, মদদদাতাদের মধ্যে থাকতে পারে। উপজেলা নির্বাচনে বিরোধিতাকারীদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন নিয়ে দলের নেতাকর্মীদের জানার কৌতুহল আছে। যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন ওবায়দুল কাদের।

বিএনপি উপজেলা নির্বাচনে অংশ না নিলে নির্বাচন উৎসবমুখর করার জন্য প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি উন্মুক্ত থাকবে, এ ধরনের কথা বলা হয়েছিলো বলে অভিযুক্তরা বলছেন-এমন প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের বলেন, এমন কোনো কথা দলের পক্ষ থেকে বলা হয়নি। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কি এমন কোনো কথা বলেছিলেন? এর কোনো রেকর্ড আছে? হাওয়া থেকে কথা বললে-তো হবে না।

সংবাদ সম্মেলনে অপর এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, জঙ্গি তৎপরতা একেবারে থেমে গেছে এমন কথা আমরা কখনও বলিনি। জঙ্গিবাদ আছে, এটা বৈশ্বিক সমস্যা। মালীবাগ, পল্টন, গুলিস্তানসহ বিভিন্ন স্থানে বোমা হামলার ঘটনা বিচ্ছিন্ন বলে আমরা মনে করি না। বড় কোনো ঘটনা ঘটানোর পরিকল্পনা হতে পারে এমন আশঙ্কাও রয়েছে। তবে আমরা সতর্ক আছি। আমাদের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনী, গোয়েন্দা সংস্থা দুর্বল না। যেকোনো পরিস্থিতির জন্য তারা প্রস্তুত আছে।

বিএনপি নেতাদের পক্ষ থেকে দুর্নীতি সংক্রান্ত অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, যাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তারা কোনো মন্ত্রী বা এমপি নন। ‘বালিশ’ আর ‘পর্দা’ নিয়ে যাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তারাতো মন্ত্রী বা এমপি নন। এটাতো হাওয়া ভবন না।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, আফম বাহাউদ্দিন নাছিম, বিএম মোজাম্মেল হক, একেএম এনামুল হক শামীম, ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ। 

এই বিভাগের আরো খবর