• শুক্রবার   ০৩ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ১৯ ১৪২৭

  • || ১২ জ্বিলকদ ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ৪০১৯, মৃত্যু ৩৮ চালের বাজার অস্থিতিশীল করলে কঠোর ব্যবস্থা : খাদ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ৩৭৭৫, মৃত্যু ৪১ যত্রতত্র পশুরহাটের অনুমতি দেওয়া যাবে না- ওবায়দুল কাদের জঙ্গিবাদ দমনে সফলতা ধরে রাখতে কাজ করে যাচ্ছি: র‌্যাব ডিজি ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৬৪ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৬৮৩ শিগগিরই আরও ৪ হাজার নার্স নিয়োগ: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৪৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৪০১৪ অর্ধশত যাত্রী নিয়ে বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি, উদ্ধার কাজ চলছে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৪৩ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৮০৯ ফ্লাইট পরিচালনার অনুমোদন পাচ্ছে ৪ বিদেশি এয়ারলাইন্স অপরাধী ক্ষমতাবান হলেও ছাড় দেয়া হবে না: কাদের গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ৩৫০৪ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ৩৪ গণপরিবহনে বেশি ভাড়া নিলে কঠোর ব্যবস্থার হুমকি সেতুমন্ত্রীর করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৯ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯৪৬ মানুষকে বাঁচানোই এখন একমাত্র রাজনীতি : কাদের ঢাকা-বেইজিং বাণিজ্য যোগাযোগ বাড়ানো হবে: চীনা রাষ্ট্রদূত করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৪৬২ উপযুক্ত পরিবেশ হলেই এইচএসসি পরীক্ষা নেয়া হবে: শিক্ষামন্ত্রী
১০১

আগামী সপ্তাহেই দেশের প্রথম এক্সপ্রেসওয়ের উদ্বোধন

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৪ মার্চ ২০২০  

চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে উদ্বোধন হতে যাচ্ছে দেশের প্রথম একপ্রেসওয়ে ঢাকা-ভাঙা মহাসড়ক। পদ্মা সেতুর ২ পাশে নির্মিত এ ফোর লেন সড়কটি উদ্বোধন হলে সেতুর আগেই সুফল পেতে শুরু করবে দেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ। সরকার বলছে, মুজিববর্ষের ক্ষনগণনার শুরুর আগেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন এ এক্সপ্রেসওয়ে।  কোথাও থামবে না গাড়ি। নেই ট্রাফিক সিগন্যাল কিংবা ইন্টার ক্রসিংয়ের ঝামেলা। ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া গাড়ি পদ্মা সেতু হয়ে একই গতিতে পৌঁছে যাবে ফরিদপুর। এমনই পরিকল্পনা থেকে নির্মাণ করা হয়েছে ঢাকা-ভাঙ্গা ফোর লেন সড়ক।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থেকে মাওয়া পর্যন্ত ৩৫ কিলোমিটার আর মাদারীপুর থেকে ফরিদপুরের ভাঙ্গা পর্যন্ত ২০ কিলোমিটারের এ সড়কটি হতে যাচ্ছে দেশের প্রথম এক্সপ্রেসওয়ে। নির্মাণের পর এর মধ্যেই সড়কের বড় একটি অংশ উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে যানবাহন চলাচলের জন্য। ফলে এখন থেকেই সুফল পাচ্ছেন চালক ও যাত্রীরা।
একজন চালক বলেন, গাড়ি চালাইতেও ভালো লাগতেছে যে একটানে মাওয়া যাইতে পারতেছি বইলা। 

এ মহাসড়কে ছোট বড় সেতু আছে ৩১টি। আছে ৬টি ফ্লাইওভার, ৪টি রেলওয়ে ওভারপাস, ১৫টি আন্ডারপাস আর ৩টি ইন্টারচেঞ্জের সুবিধা। ৪ লেনের মহাসড়কের দু’পাশে স্থানীয় যানবাহন চলার জন্য জায়গা থাকায় সু্বিধা পাওয়া যাবে ৬ লেনের। ২০১৬ সালে কাজ শুরু। শুরুতে ২০১৯ সালের শেষ করার কথা হলেও পরে মেয়াদ বাড়ে চলতি বছরের জুন মাস পর্যন্ত। এখন নির্ধারিত সময়ের আগেই খুলে দেয়া হচ্ছে এ মহাসড়ক। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রস্তুতি চূড়ান্ত পর্যায়ে এখন। ১১ ও ১২ তারিখে ভিডিও কনফারেন্সে উদ্বোধন করবে। এ প্রকল্পের ব্যায় ধরা হয়েছিল সোয়া ৬ হাজার কোটি টাকা। পরে মেয়াদ বাড়ার সাথে সাথে বাজেট বেড়ে দাঁড়ায় প্রায় ১১ হাজার কোটি টাকা।

বরগুনার আলো
উন্নয়ন বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর