• বুধবার   ০৮ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৫ ১৪২৬

  • || ১৪ শা'বান ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
নিয়োগ পেলেন নতুন আইজিপি বেনজীর, র‌্যাব মহাপরিচালক মামুন মাজেদের মৃত্যু পরোয়ানা জারি যারা সাহায্য চাইতে পারবে না তাদের তালিকা করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী দেশে করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত বেড়ে ১৬৪ কারাগারে বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনি ক্যাপ্টেন মাজেদ বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি ক্যাপ্টেন মাজেদ আদালতে বঙ্গবন্ধু হত্যা: আত্মস্বীকৃত খুনি ক্যাপ্টেন মাজেদ গ্রেফতার চিকিৎসকরা কেন চিকিৎসা দেবে না, এটা খুব দুঃখজনক : প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘদিন জেলখাটা আসামিদের মুক্তির নীতিমালা করার নির্দেশ রমজানে সরকারি অফিস ৯টা থেকে সাড়ে ৩টা প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়ন হলে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াবে: অর্থমন্ত্রী করোনা: ৭৩ হাজার কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা বেসরকারি হাসপাতাল চিকিৎসা না দিলেই ব্যবস্থা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রতি উপজেলা থেকে নমুনা সংগ্রহ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে সমালোচনা করছে বিএনপি : কাদের দেশে আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত ২৬ জন সুস্থ : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সেনাবাহিনী কতদিন মাঠে থাকবে সরকার বিবেচনা করবে: সেনাপ্রধান করোনায় খাদ্য ঘাটতি হবে না : কৃষিমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখ‌ছেন প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে ৬৪ জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কনফারেন্স
১৪

আজও অসমাপ্ত বব অ্যন্ড্রু উলমারের মৃত্যু রহস্য

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৯ মার্চ ২০২০  

২০০৭ সালের ১৮ মার্চ উইন্ডিজ বিশ্বকাপে অ্যায়ারল্যান্ডের সঙ্গে ম্যাচের পর টিম হোটেলে মারা যান পাকিস্তানের কোচ বব উলমার। উলমারের শরীরে আঘাত থাকায় প্রাথমিক ভাবে অস্বাভাবিক মৃত্যু হিসেবে গন্য করা হয়।

বিশ্বকাপ চলাকালীন এমন ঘটনা আলোড়ন তোলে ক্রিকেটবিশ্বে। ক্রিকেটারদের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। নানা ঘটন-অঘটনের মধ্যে দিয়ে মানুষের মনে প্রশ্ন রেখে শেষ হয় বিচারকাজ।

ক্রিকেটের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসের মাঝে আছে এক রহস্য ঘেরা বিষাদ। ১১ বছর আগের সেই ঘটনা আজও মনে প্রশ্ন জাগায়, দাগ কাটে মানুষের মনে।

২০০৭ সালের ১৮ মার্চ। স্থান জ্যামাইকার পেগাসাস হোটেল। বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে পাকিস্তানের লজ্জার পরাজয়ের কয়েক ঘন্টা পেরোয়নি। পাকিস্তানের কোচ বব উলমার কোনো এক হতাশা নিয়ে ১২ তলার ৩৭৪ নম্বর রুমে ঢোকেন। যে রুম থেকে আর কোনোদিন হেটে বের হননি বব উলমার। নিরাপত্তা কর্মীরা পরদিন সকালে বাথরুমে আবিস্কার করেন তার প্রাণহীন নিথর দেহ।

বিশ্বকাপ চলাকালীন এই ঘটনা ভয় ধরিয়ে দেয় সবার মনে। সে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ শক্তিশালী ভারতকে হারিয়ে পরের পর্বে উঠেছিল। বব উলমারের শরীরে দাগ থাকায়, প্রাথমিক তদন্ত রিপোর্টে বলা হয় বল প্রয়োগ কিংবা খাদ্যে বিষক্রীয়ায় মারা গেছে উলমার।

পাকিস্তান ক্রিকেটে জুয়ার প্রভাব সবারই জানা। তবে কি আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে হারার ম্যাচে ফিক্সিং করেছিল জুয়াড়িরা। আর তা জেনে ফেলায় এই করুন পরিনতি বব অ্যান্ড্রু উলমারের? বিষয়টি আরও ঘোলাটে হয় পাকিস্তানের এক স্টাফের মুখে মারামারির দাগ থাকায়। পাকিস্তানি খেলোয়াড়দেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় কয়েক দফায়।

তদন্তের মধ্যবর্তী সময়ে জানানো হয় খাদ্যে বিষক্রিয়ায় মারা যান উলমার। সে রাতে উলমারকে খাবার দিয়ে যান হোটেল কর্মী। কি দিয়েছিলেন উলমারকে খেতে? তা নাকি নিশ্চিত ভাবে জানাতে পারেনি হোটেল কর্তৃপক্ষ।

অবশেষে ময়নাতদন্তের চূড়ান্ত রিপোর্ট দেয় স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড। উলমারের ঘাড়ে নাকি কোনো দাগ পাওয়া যায়নি। অ্যাজমার সমস্যা ছিলো উলমারের। সেখান থেকেই নাকি কাশির তোড়ে শ্বাস রোধ হয়ে মারা যান পাকিস্তানের সাবেক এই কোচ।

স্বাভাবিক মৃত্যু হওয়ায় বন্ধ করা হয় কেস। তবে আজও মানুষের মনে প্রশ্ন জাগায় উলমারের নাকে মুখে আঘাতের দাগ এল কোথা থেকে? তাকে কি খেতে দেয়া হয়েছিল, কারাইবা দিয়েছিল। লাস্ট সাপারে তার সঙ্গে কে ছিল? এসব প্রশ্নের উত্তরেরও মৃত্যু হয়েছে উলমারের মৃত্যুর সঙ্গে।

আর অজানা এসব বিষয়ের কোনো সমাধান না থাকায় অনেক ক্রিকেট ভক্তের মনে আজও অসমাপ্ত থেকে গেছে বব অ্যন্ড্রু উলমারের মৃত্যু রহস্য।

বরগুনার আলো
খেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর