মঙ্গলবার   ১২ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৮ ১৪২৬   ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
জনসভায় কথা বলার ভয় কাটিয়ে ওঠার উপায় নৌ স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে ভারত: রীভা গাঙ্গুলি নাসের আল-খেলাইফি: জেলে থেকে ফরাসি ফুটবলের ‘সম্রাট’ এজেন্টদের টাকা দিয়ে মালয়েশিয়া গেলে পুনঃনিয়োগের অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটাক্ষ করলে ক্ষমা করা হবে না: কাদের পাথরঘাটায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ টাকা বিতরণ র‌্যাব-৮ এর অভিযানে ১১,৫০০ কেজি নিষিদ্ধ পলিথিন উদ্ধার ট্রেন দুর্ঘটনা : তূর্ণা নিশীথার মাস্টার-সহকারী মাস্টার বরখাস্ত মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চাকরিতে প্রতারণা : রাজস্ব কর্মকর্তার কারাদণ্ড ঘূর্ণিঝড় বুলবুল : কৃষি ফসলের ক্ষতি ২৬৩ কোটি টাকা চার দিনের সফরে আজ নেপাল গেলেন রাষ্ট্রপতি ট্রেন দুর্ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক শুধু কৃষিতে নির্ভর না করে শিল্প উৎপাদন বাড়াতে হবে: প্রধানমন্ত্রী রেল দুর্ঘটনা: সংশ্লিষ্টদের সতর্ক হওয়ার নির্দেশ ৬ ঘণ্টা পর চালু হলো ঢাকা-চট্টগ্রাম রেল যোগাযোগ ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের পরিবারকে ১ লাখ,আহতদের ১০ হাজার দেয়ার ঘোষণা নুসরাত হত্যা:ফাঁসির আসামিদের পাঠানো হলো কুমিল্লা কারাগারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দুর্ঘটনাস্থলে রেলমন্ত্রী দুই ট্রাভেল এজেন্সিতে র‌্যাবের অভিযান, ১০৫০ পাসপোর্ট জব্দ কসবায় ট্রেন সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনায় রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক
২৩৪

আফ্রিকার ‘অক্সপেকার’ বাংলাদেশের ‘ভাত-শালিক’

প্রকাশিত: ৯ জানুয়ারি ২০১৯  

এক ধরনের পাখি আছে যারা বন্যপ্রাণীর শরীরের ক্ষতিকর পোকা খায়। আফ্রিকায় এ পাখিটির নাম ‘অক্সপেকার’। এই অক্সপেকারের অনুরূপ পাখি আমাদের ‘ভাত-শালিক’। এরাও ‘অক্সপেকার’ পাখির মতো আমাদের দেশের বন্যপ্রাণী বা গৃহপালিত প্রাণীর শরীর থেকে পোকা খায়।

বন্যপ্রাণী গবেষক ও আলোকচিত্রী ‘অক্সপেকার’ সম্পর্কে আদনান আজাদ আসিফ বলেন, আফ্রিকায় ‘অক্সপেকার’ নামে একটি বিশেষ পাখি রয়েছে যারা বন্যপ্রাণীদের শরীরের নানা ধরনের পোকা খায়। প্রাণীদের লোমের ভেতরের ক্ষতিকর পোকাগুলো খেয়ে এরা প্রাণীগুলোকে নানান রোগ-বালাইয়ের হাত থেকে রক্ষা করে। আমাদের দেশের ‘ভাত-শালিকরাও তাই।
 
তিনি আরো বলেন, তারাও ‘অক্সপেকার’ পাখির মতো কাজ করে। আমাদের বিভিন্ন গবাদিপশুর শরীর থেকে ভাত-শালিকরা পোকা খায়। শুধু তাই নয়, গরু-মহিষের নাক-কানের ভেতর থেকে এরা পোকামাকড় টেনে বের করে খায়।
 
আদনান আজাদ আসিফ ‘ভাত-শালিক’ প্রসঙ্গে বলেন, দেশের এমন কোনো এলাকা নেই, যেখানে এই ভাত-শালিকের দেখা পাওয়া যায় না। পাখিটিকে আমাদের দেশের আনাচেকানাচে বেশি দেখা যায়। এটা হচ্ছে এমন পাখি- যাকে কাকের পরে ছেলেবুড়ো সবাই এক নামে চেনে।
তবে এই পাখিটিকে নিয়ে কুসংস্কার আছে যে- ‘আজ একটি শালিক দেখেছি, ভাগ্যটা আজ খারাপ যাবে।’ বা ‘দুইটা শালিক দেখেছি, আজ আমাদের ভাগ্য ভালো।’ শহরগ্রাম সব জায়গাতেই এই পাখিটাকে নিয়ে এমন কুসংস্কার রয়েয়ে বলে জানান আদনান।
 
ভাত-শালিকের গুণ ও খাদ্যগ্রহণ সম্পর্কে তিনি বলেন, এ পাখিটির বিশেষ গুণ হলো সে সুন্দর করে কথা বলতে পারে। অবিকল মানুষের স্বর নকল করে। ময়নার ইংরেজি নাম হলো- Common Myna। তাদের খাদ্যতালিকায় এমন কিছু নেই যে এরা খায় না; এরা সব খায়। এরা ডাস্টবিনের খাবার থেকে শুরু করে, বিভিন্ন পোকা-মাকড়, টিকটিকি-ব্যাঙ, খেজুরের রস, নানান ফুলের মধু, পেয়ারা-পেপেসহ নানা প্রকারের ফল-মূল এমন কিছু নাই যে এরা খায় না। তাই এদের আরেক নাম সর্বভুক পাখি। এরা আমাদের প্রকৃতির উপকারি পাখি।  
 
এই ভাত-শালিক ইচ্ছে করলে বাবুই পাখির মতো সুন্দর করে গাছে বাসা তৈরি করতে পারে আবার চড়ুই পাখির মতো বিল্ডিংয়ে বাসা বানিয়ে প্রজনন করতে পারে বলেন জানান বন্যপ্রাণী গবেষক আদনান আজাদ আসিফ।