শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৪ ১৪২৬   ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
বিপিএলে প্রথম শিরোপার স্বাদ পেলো রাজশাহী আদালতে মজনুর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাউন্ড সিস্টেমে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা যাবে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি শুরু প্রথম আলোর সম্পাদকসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা আমরা ক্রসফায়ারকে সাপোর্ট করতে পারি না : ওবায়দুল কাদের পোশাক রপ্তানিকে ছাড়িয়ে যাবে আইসিটি : জয় বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু কাল বিশ্ব ইজতেমার ২য় পর্বে ময়দানে আসতে শুরু করেছেন মুসল্লিরা অন্ধকার ভেদ করে আলোর পথে বাংলাদেশ: সংসদে প্রধানমন্ত্রী রিফাত হত্যা : দুই আসামি জামিনে মুক্ত দুর্নীতি মামলা : বিএনপি প্রার্থী ইশরাকের বিচার শুরু কাদেরের বাইপাস পরবর্তী স্বাস্থ্যের উন্নতি, দেশে ফিরছেন রাতেই  এসডিজি অর্জনে বাংলাদেশ সঠিক পথে রয়েছে : প্রধানমন্ত্রী আবুধাবি থেকে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী সরকারের জনপ্রিয়তা অনেক বেড়েছে: আইআরআই ওমানের সুলতানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোকবার্তা আবুধাবি থেকে দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী পদ্মাসেতুতে বসলো ২১তম স্প্যান,দৃশ্যমান হলো ৩ হাজার ১৫০ মিটার রিট খারিজ, নির্ধারিত তারিখেই হচ্ছে ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন
৩৮২

আবারও পাঁজরের হাড় না কেটে ৫ হাজার টাকায় হার্টের অপারেশন

প্রকাশিত: ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 

আবারও বুকের হাড় না কেটে হৃদযন্ত্রের সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে। এতে খরচ হয়েছে মাত্র ৫ হাজার টাকা। এর আগে ২৫ আগস্ট প্রথমবার দেশের কোনো সরকারি হাসপাতালে এ অস্ত্রোপচার হয়।


 
জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের (এনআইসিভিডি) চিকিৎসক আশরাফুল হক সিয়ামের নেতৃত্বে দ্বিতীয় এ অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করা হয়েছে।

শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) ডা. আশরাফুল হক সিয়াম এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, মৌলভীবাজারের ৪০ বছরের মো. মতিন হার্টের দুটি ব্লক নিয়ে গত ২৫ আগস্ট আমাদের সার্জারি ইউনিট-০৯ এ ভর্তি হন। আমরা ২ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে মিনিমাল ইনভ্যাসিভ কার্ডিয়াক সার্জারি অপারেশন করে দুটি গ্রাফট দিই অফ পাম্প বেটিং হার্টে। সফলভাবে অপারেশনের পর তৃতীয় দিনের মধ্যেই তিনি বাড়ি ফিরে যাওয়ার মতো সুস্থ হয়ে ওঠেন।

২ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৯টায় এ অস্ত্রোপচার শুরু করা হয়। প্রায় ৪ ঘণ্টা চলা এ অস্ত্রোপচারে ডা. সিয়ামের দলে ছিলেন ডা. আসিফ, ডা. রুমু, ডা. শাহরিয়ার, ডা. ওয়াহিদা, ডা. মনজুর, ডা. মইনুল ও ডা. আহসানারা। পারফিউশানে ছিলেন ডা. রুবাইয়াত। এনেস্থেশিয়ায় ছিলেন ডা. আজাদ ও ডা. রাজু।

এর আগে এ অপারেশন পদ্ধতি সম্পর্কে ডা. আশরাফুল হক সিয়াম বলেন, চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় এটাকে বলা হয় মিনিমাল ইনভ্যাসিভ কার্ডিয়াক সার্জারি (এমআইসিএস)। এই পদ্ধতিতে বুক না কেটে ছোট ছোট ছিদ্রের মাধ্যমে হৃদযন্ত্রের অস্ত্রোপচার করা হয়।

এ চিকিৎসা পদ্ধতির ঝুঁকি সম্পর্কে ডা. সিয়াম বলেন, হৃদরোগের যেকোনো অপারেশনেই ঝুঁকি থাকে। কিন্তু প্রচলিত অস্ত্রোপচার পদ্ধতি থেকে এমআইসিএস পদ্ধতিতে তুলনামূলক ঝুঁকি কম। কারণ এতে রক্তক্ষরণ কম হয়, অন্য সংক্রমণের আশঙ্কাও কম থাকে। পাশাপাশি এ পদ্ধতিতে রোগী দ্রুতই সুস্থ হয়ে অস্ত্রোপচারের পরদিনই বাড়ি ফিরতে পারেন।

তিনি বলেন, বিশ্বের কিছু উন্নত দেশে অল্পসংখ্যক হাসপাতালে এ পদ্ধতিতে অস্ত্রোপচার হয়। বাংলাদেশের নামি বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে এখনো এ পদ্ধতিতে অস্ত্রোপচার করা হয় না। তবে কিছু হাসপাতালে পরীক্ষামূলকভাবে হলেও সরকারি হাসপাতালে প্রথম আমরাই এ পদ্ধতিতে অস্ত্রোপাচার করছি। এটি আমাদের বিশাল সফলতা।