সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ১ ১৪২৬   ১৬ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
‘বিজ্ঞান-প্রযুক্তির বিকাশ ছাড়া দেশ উন্নয়ন করা সম্ভব নয়’ রোহিঙ্গা ভোটার খতিয়ে দেখতে চট্টগ্রামে কবিতা খানম আগামী ১০মাসের রোডম্যাপ তৈরি ও তার বাস্তবায়ন করবো - জয় ও লেখক ডেঙ্গুতে সরকারি হিসেবে ৬৮ জনের মৃত্যু আ. লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা ১৮ সেপ্টেম্বর বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপের জন্মদিন আজ আজ থেকে ট্রাকে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি বিশ্ব ওজন দিবস আজ শিগগিরই বন্দর-ট্রেনে যুক্ত হচ্ছে ত্রিপুরা-বাংলাদেশ দিল্লিতে শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক ৫ অক্টোবর সারাদেশে ৭৫ প্রতিষ্ঠানকে পাঁচ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ এ পি জে আব্দুল কালাম স্মৃতি পুরস্কারে ভূষিত শেখ হাসিনা টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করুন : প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীর পুলিশ একাডেমিতে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী গণপরিবহনে মাসিক বেতনে চালক নিয়োগের নির্দেশ হাইকোর্টের সারদার পথে প্রধানমন্ত্রী হাজিদের দেশে ফেরার শেষ ফ্লাইট আজ আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস আজ
১৩৬

আমতলীতে ইউপি চেয়ারম্যানের  উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রকাশিত: ৭ এপ্রিল ২০১৯  

বরগুনা প্রতিনিধিঃ
বরগুনার আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড. নুরুল ইসলাম ও তার সহযোগীদের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবীতে রোববার আমতলী উপজেলা পরিষদের সামনে প্রতিবাদ সভা, বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। মানববন্ধনে বক্তারা চেয়ারম্যানের উপর সন্ত্রাসী হামলার সাথে জড়িত সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচার দাবী করেছেন।

ইউপি চেয়ারম্যানের উপর সন্ত্রাসী হামলার বিচার ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবীতে রোববার চেয়ারম্যান পরিষদের উদ্যোগে প্রতিবাদ সভা, বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে। আমতলী উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মতিয়ার রহমানের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদ সড়কের সামনে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মজিবর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান মোতাহার উদ্দিন মৃধা, আখতারুজ্জামান বাদল খান, বোরহান উদ্দিন মাসুম তালুকদার, শহীদুল ইসলাম মৃধা, হারুন অর রশিদ হাওলাদার, একেএম নুরুল হক তালুকদার ও সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত এ্যাড. নুরুল ইসলাম প্রমুখ।
বক্তরা বলেন,আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড. নুরুল ইসলাম ও তার ৮/৯ জন সহযোগী গত শনিবার গোজখালী ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে বাইনবুনিয়া নামক স্থানে পৌছলে  মিজান, মোকলেস, মোমেন, বাদল হাজী ও মোয়াজ্জেমসহ ৮/১০ জন সন্ত্রাসী চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামকে ইজিবাইক থেকে নামিয়ে কিল ঘুষি মারে। চেয়ারম্যানের সহযোগী দেলোয়ার হোসেন খাঁন , হারুন অর রশিদ, শহীদুল ইসলাম, স্বপন মোল্লা, জহিরুল ইসলাম, লিটন ও মোঃ ইউসুফ আলী চেয়ারম্যানকে রক্ষায় এগিয়ে আসলে তাদের উপর হামলা চালায়। এতে  চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, শহীদুল ইসলাম, স্বপন মোল্লা ও হারুন অর রশিদ আহত হয়। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার চেয়ারম্যান এ্যাড.নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসাদ মৃধাকে প্রধান আসামী করে ১০ জনের নামে মামলা দায়ের করেন। আদালতের বিচারক ওই মামলাটি আমলে নিয়ে আমতলী থানাকে এজাহার হিসেবে গন্য করে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়। পুলিশ এ ঘটনার সাথে জড়িত বাদল হাজীকে শনিবার গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। 
প্রচন্ড রোদ উপেক্ষা করে প্রতিবাদ সভা, বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচীতে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে হাজার হাজার লোক সমাবেত হয়। 
আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মোঃ আবুল বাশার বলেন, গুলিশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাড. নুরুল ইসলামের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। ওই মামলার বাদল হাজী নামের এক আসামী গ্রেফতার করা হয়েছে। অপর আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।
 

এই বিভাগের আরো খবর