শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ১ ১৪২৬   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
আয়কর দিলেন অর্থমন্ত্রী, রিটার্ন দাখিল প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার নির্দেশনায় পুলিশ এখন দক্ষ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কলকাতা টেস্ট দেখতে আমন্ত্রণ জানিয়ে শেখ হাসিনাকে মোদীর চিঠি কৃষি জমি রক্ষায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী চার বছরের মধ্যে দারিদ্র্র্যের হার কমবে : প্রধানমন্ত্রী আজ ঝালকাঠির দুই বিচারক হত্যা দিবস পিকেএসএফ উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী আয়কর মেলা: ১১৩ কোটি থেকে লক্ষ্যমাত্রা তিন হাজার কোটি টাকা রোহিঙ্গা নিপীড়নে এবার সুচি’র বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনায় মামলা টেস্ট বিশ্বকাপ অভিষেকে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ রোহিঙ্গা সমস্যার পেছনে জিয়াউর রহমানের হাত ছিল: প্রধানমন্ত্রী খেলাপি ঋণ অবশ্যই আদায় করা হবে: অর্থমন্ত্রী ধেয়ে আসছে ‘বুলবুলে’র চেয়েও ভয়ানক ঘূর্ণিঝড় ‘নাকরি’ দেশের কল্যাণে প্রয়োজনে বাবার মতো জীবন দেবো: শেখ হাসিনা বিমানে উড়ে বাংলাদেশ এল ২২৫টি গরু! দেশে রফতানি বাড়াতে দরকার পরিবহন খাতে উন্নয়ন: বিশ্বব্যাংক মা হারানো সেই শিশুর দায়িত্ব নিলেন উপমন্ত্রী শামীম মালয়েশিয়ায় বীমার আওতায় দুই লাখ বাংলাদেশি কর্মী আওয়ামী লীগে দূষিত রক্তের প্রয়োজন নেই: সেতুমন্ত্রী ঘুরে দাঁড়িয়ে দুর্দান্ত জয় বাংলাদেশের মেয়েদের
২৮

আমাদের উন্নয়ন দরিদ্র জনগোষ্ঠী ও গ্রামীণ এলাকাকেন্দ্রিক

প্রকাশিত: ১৬ অক্টোবর ২০১৯  

বাংলাদেশকে নির্ভরযোগ্য অংশীদার হিসেবে আখ্যায়িত করে উন্নয়ন সহায়তা অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় গণভবনে এডিবির বোর্ড অব ডিরেক্টরসের সাত সদস্যের প্রতিনিধিদল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে। পরে, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

প্রতিনিধিদলের নেতা এডিবির নির্বাহী পরিচালক ইন-চং সং বলেন, উন্নয়ন অংশীদার হিসেবে বাংলাদেশকে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

এসময় বাংলাদেশকে নির্ভরযোগ্য অংশীদার উল্লেখ করে অতিদ্রুত দারিদ্র্যের হার হ্রাস, সামাজিক নিরাপত্তা, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, পরিবহন, আবাসনসহ বিভিন্ন সেক্টরে দেশের অগ্রগতির প্রশংসা করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করে এডিবির নির্বাহী পরিচালক বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নতির পথে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে।

খাদ্য নিরাপত্তা ও জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবিলায় বাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা করে প্রতিনিধিদলটি। এসময় ঢাকা ওয়াসারও প্রশংসা করেন দলের সদস্যরা।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সহায়তা অব্যাহত রাখার কথা জানান প্রতিনিধিরা।

ক্ষমতায় আসার আগে থেকেই বাংলাদেশের উন্নয়নে পরিকল্পনা করে রাখার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে আমার দল কঠোর পরিশ্রম করছে।

সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রমে প্রান্তিক জনগণকে অগ্রাধিকার দেওয়ার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, আমাদের উন্নয়ন দরিদ্র জনগোষ্ঠী ও গ্রামীণ এলাকাকেন্দ্রিক।

বাংলাদেশের উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় জনগণকে সম্পৃক্ত করার কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। বেসরকারি খাতকে উন্মুক্ত করে দেওয়া ও এর সুফলের কথা তুলে ধরেন তিনি।

প্রতিনিধিদলের কাছে সামাজিক নিরাপত্তা খাতে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা।

সারাদেশে একশ’টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এসব অর্থনৈতিক অঞ্চল দেশের অগ্রগতিকে ত্বরান্বিত করবে।

জাতিগত নিধনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের দুর্দশা লাঘবে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, এদের যত তাড়াতাড়ি ফিরিয়ে নেওয়া হবে, তত ভালো। 

এডিবির প্রতিনিধি দলে আরও ছিলেন ক্রিস পাণ্ডে, বায়রাম্মুহাম্মেত গারায়েব, কেজোঁ ওহি, এনরিক গেলান, বুরাক মুয়েজিনোগলু, বাংলাদেশে নিযুক্ত এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব মো. নজিবুর রহমান।

এই বিভাগের আরো খবর