• শনিবার   ০৬ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২২ ১৪২৭

  • || ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
৩ হাজার মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট নিয়োগে অনুমোদন দিলেন প্রধানমন্ত্রী মানুষকে সুরক্ষিত করতে প্রাণপণে চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ৩৫ জন, নতুন শনাক্ত ২৪২৩ গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত আরও ২৬৯৫ আজ থেকে চলবে আরও ৯ জোড়া ট্রেন হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ: তথ্যমন্ত্রী যেকোনো প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে এগিয়ে যেতে পারব: প্রধানমন্ত্রী সময় যত কঠিনই হোক দুর্নীতি ঘটলেই আইনি ব্যবস্থা: দুদক চেয়ারম্যান জেলা হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ ইউনিট স্থাপনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা বিশ্ব বদলে দিলেও বিএনপিকে বদলাতে পারেনি: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত ২৯১১ সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা খাদ্য উৎপাদন আরও বাড়াতে সব ধরনের প্রচেষ্টা চলছে: কৃষিমন্ত্রী সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩৮১ জনের করোনা শনাক্ত পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেন চলছে: রেলমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৪৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৪০ জন বাস ভাড়া যৌক্তিক সমন্বয়, প্রজ্ঞাপন আজই: ওবায়দুল কাদের এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবো না: প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে এসএসসির ফল প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী
২৩

আম্ফান: বরগুনায় ৫০৯ টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত, মাইকিং শুরু

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৯ মে ২০২০  

 ঘূর্ণিঝড় আম্ফান মোকাবেলায় জেলায় ৫০৯টি আশ্রয়কেন্দ্র, ৪২টি মেডিকেল টিম ও ৬ হাজারের বেশি স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছাড়া জেলা-উপজেলায় পর্যায়ে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। এরই মধ্যে উপকূলবাসীকে সতর্ক করতে মাইকিং শুরু হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ জানিয়েছেন, আশ্রয়কেন্দ্রে নদী ও সমুদ্র তীরবর্তী বাসিন্দাদের নিয়ে আসা হবে। আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বরগুনার সকল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদস্যদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। জেলা সদর ও উপজেলা পর্যায়ে দফায়-দফায় প্রস্তুতিমূলক সভা চলছে। খোলা হয়েছে কন্ট্রোল রুম।

বরগুনার সিভিল সার্জন ডা. হুমায়ুন শাহীন খান জানিয়েছেন, জেলার ৪২টি ইউনিয়নে ৪২টি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। মেডিকেল টিমগুলো সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে।
জেলা ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী জানান, মাছ ধরা সকল ট্রলারকে নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিতে বলা হয়েছে। অধিকাংশই গভীর সাগর থেকে ফিরছে।

ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির (সিপিপি) টিম লিডার জাকির হোসেন মিরাজ জানিয়েছেন, ৬ হাজার ৩৩০ জন স্বেচ্ছাসেবী প্রস্তুত রয়েছেন।
সোমবার (১৮ মে) মধ্যরাত পর্যন্ত মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছিল।গভীর সাগর থেকে ফিরে আসা ট্রলারগুলোর জেলেরা জানিয়েছেন, সাগর উত্তাল হয়ে উঠেছে।

 

বরগুনার আলো
বরগুনা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর