মঙ্গলবার   ১২ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৮ ১৪২৬   ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটাক্ষ করলে ক্ষমা করা হবে না: কাদের পাথরঘাটায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ টাকা বিতরণ র‌্যাব-৮ এর অভিযানে ১১,৫০০ কেজি নিষিদ্ধ পলিথিন উদ্ধার ট্রেন দুর্ঘটনা : তূর্ণা নিশীথার মাস্টার-সহকারী মাস্টার বরখাস্ত মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চাকরিতে প্রতারণা : রাজস্ব কর্মকর্তার কারাদণ্ড ঘূর্ণিঝড় বুলবুল : কৃষি ফসলের ক্ষতি ২৬৩ কোটি টাকা চার দিনের সফরে আজ নেপাল গেলেন রাষ্ট্রপতি ট্রেন দুর্ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক শুধু কৃষিতে নির্ভর না করে শিল্প উৎপাদন বাড়াতে হবে: প্রধানমন্ত্রী রেল দুর্ঘটনা: সংশ্লিষ্টদের সতর্ক হওয়ার নির্দেশ ৬ ঘণ্টা পর চালু হলো ঢাকা-চট্টগ্রাম রেল যোগাযোগ ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের পরিবারকে ১ লাখ,আহতদের ১০ হাজার দেয়ার ঘোষণা নুসরাত হত্যা:ফাঁসির আসামিদের পাঠানো হলো কুমিল্লা কারাগারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দুর্ঘটনাস্থলে রেলমন্ত্রী দুই ট্রাভেল এজেন্সিতে র‌্যাবের অভিযান, ১০৫০ পাসপোর্ট জব্দ কসবায় ট্রেন সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনায় রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক আজ ভয়াল ১২ নভেম্বর সংসদে বাংলাদেশের পতাকবাহী জাহাজ (সুরক্ষা) বিলের রিপোর্ট উপস্থাপন মুজিব বর্ষ উদযাপনে ভারতের আগ্রহ রয়েছে: রাম মাধব বাংলা বন্ড চালু বিশ্ব অর্থনীতিতে একটি বড় পদক্ষেপ:অর্থমন্ত্রী
১৩২

আসছে ‘ভয়াবহ’ শৈত্যপ্রবাহ

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০১৮  

 

ঋতুচক্রে এখন হেমন্তকাল। অগ্রহায়ণ শেষে আসছে পৌষ মাস অর্থাৎ শীতকাল। তবে শীত আসার আগেই এবার শীতের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলের জেলাগুলোর মানুষ কাঁপছেন শীতে। শৈত্যপ্রবাহ না থাকলেও শীতে কাবু উত্তর জনপদের মানুষ।

আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, উত্তরাঞ্চলে শীত শুরু হলেও ঢাকাসহ মধ্যাঞ্চলে ডিসেম্বরের শুরুতে শীত বাড়বে। আর ডিসেম্বরেই দেশের উপর দিয়ে বয়ে যাবে শৈত্যপ্রবাহ।

আবহাওয়া অফিস একমাস আগে জানিয়েছিল, নভেম্বরে দিন ও রাতের তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে হ্রাস পাবে। তবে গড় তাপমাত্রা স্বাভাবিক থাকবে। দেশের নদী অববাহিকা এলাকায় ভোর থেকে সকাল পর্যন্ত হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

উত্তরাঞ্চলে নভেম্বরের শুরু থেকেই শীতের অনুভূতি শুরু হয়েছে। তাপমাত্রা কমেছে দেশের অন্যত্র। ঢাকাসহ মধ্যাঞ্চলেও শেষ রাতে শীত অনুভূত হচ্ছে। নভেম্বরে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট একটি নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়ে ভারতে আঘাত হান। এতে দেশের তাপমাত্রার পারদেও এসেছে পরিবর্তন।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ বলেন, এ মাসে শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা কম। ডিসেম্বরে বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলে দুই-তিনটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। সে সময় দুই-এক জায়গায় তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নিচে নেমে যাবে।

আবহাওয়া অধিদফতরের দীর্ঘমেয়াদী পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ডিসেম্বর মাসে রাতের তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে হ্রাস পাবে। এ মাসের শেষার্ধ্বে দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে ১-২টি মৃদু (৮-১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস)/মাঝারি (৬-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস) ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। রাতের শেষ দিক থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের উত্তরাঞ্চল ও নদ-নদী অববাহিকায় মাঝারি/ঘন কুয়াশা এবং অন্যত্র হালকা/মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। অব্যাহত থাকবে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত।

এদিকে, শনিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। রাতের শেষ দিক থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

এদিকে শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সিলেটের শ্রীমঙ্গলে ১২ দশমিক ৩ ডিগ্রি, পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ১২ দিশমিক ৫ ডিগ্রি রেকর্ড করা হয়েছে। এদিন ঢাকায় ১৭ দশমিক ৬ ডিগ্রি, ময়মনসিংহে ১৫ দশমিক ৩ ডিগ্রি, চট্টগ্রামে ১৭ দশমিক ৪ ডিগ্রি, সিলেটে ১৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি, রাজশাহীতে ১৪ দশমিক ৩ ডিগ্রি, রংপুরে ১৫ দশমকি ৪ ডিগ্রি, খুলনায় ১৭ ডিগ্রি এবং বরিশালে ১৫ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।