• বুধবার   ২১ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৭

  • || ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৪, শনাক্ত ১৫৪৫ মাধ্যমিকে বার্ষিক পরীক্ষা বাতিল ১২ বছরের ব্যর্থতার জন্য বিএনপির নেতৃত্বের পদত্যাগ করা উচিত বিদেশে পালালেও এসআই আকবরকে ফিরিয়ে আনা হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী পরিপত্র জারি : ৭ মার্চকে ঐতিহাসিক দিবস ঘোষণা করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২১, শনাক্ত ১৬৩৭ জনগণের ভাষা বুঝে না বলেই বিএনপি ব্যর্থ: কাদের ৭ কার্যদিবসেই শিশু ধর্ষণ মামলার রায়, আসামির যাবজ্জীবন ২৫ টাকা কেজিতে আলু বিক্রি করবে টিসিবি: বাণিজ্যমন্ত্রী পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী ৩০ অক্টোবর সরকারের আশ্বাসে ইন্টারনেট-ডিশ সংযোগ ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত স্থগিত ইন্টারনেট-ক্যাবল টিভি বন্ধের সিদ্ধান্ত স্থগিত করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৩, শনাক্ত ১২০৯ ৬০ মিশনে দূতাবাস অ্যাপ চালু করা হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ সঠিক পথেই হাঁটছে: তাজুল ইসলাম করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬০০ টাঙ্গাইলে গণধর্ষণ মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড ভূমিহীনদের ২ শতাংশ জমি দেয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী টেকনাফে সমুদ্র থেকে বাংলাদেশি ৭ জেলে উদ্ধার করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩১, শনাক্ত ১৪৭২

একাদশে ভর্তি: যেভাবে চলবে কলেজ নিশ্চিতকরণ-মাইগ্রেশন-ভর্তি

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৬ আগস্ট ২০২০  

একাদশ শ্রেণিতে (২০২০) ভর্তির জন্য প্রথম ধাপে ১২ লাখ ৭৭ হাজার ৭২১ জন শিক্ষার্থী মনোনীত হয়েছেন।  বুধবার (২৬ আগস্ট) থেকে শুরু হয়েছে কলেজ নিশ্চিতকরণ। এরপর রয়েছে মাইগ্রেশন ও ভর্তির বিষয়।  এসব ব‌্যাপারে বেশকিছু ধাপের কথা জানিয়েছেন আন্তঃশিক্ষা সমন্বয় বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক হারুন অর রশিদ।

কলেজ নিশ্চিতকরণ
কলেজ নিশ্চিতকরণের বিষয়ে অধ্যাপক হারুন অর রশিদ বলেন, ‘যারা প্রথম ধাপে মনোনীত হয়েছেন, তাদের কলেজ নিশ্চিত করতে হবে। ২৬ আগস্ট থেকে কলেজ নিশ্চিতকরণের কাজ শুরু।  প্রথম ধাপে নাম আসা শিক্ষার্থীরা যদি কলেজ নিশ্চিত না করেন, তাহলে তিনি দ্বিতীয় দফা আবেদন করতে পারবেন। কিন্তু কোনো শিক্ষার্থী যদি তার মনোনীত কলেজ ভর্তির জন্য নিশ্চিত করে ফেলেন, তাহলে তিনি দ্বিতীয় দফায় আবেদনের আর সুযোগ পাবেন না। আর কলেজ নিশ্চিতকরণের প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে অনলাইনেই।  এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীকে ২০০ টাকা ফি দিতে হবে।

মাইগ্রেশন পদ্ধতি 
মাইগ্রেশনের বিষয়ে অধ্যাপক হারুন অর রশিদ বলেন, ‘মাইগ্রেশনের জন্য আলাদা কোনো আবেদনের প্রয়োজন হবে না।  শিক্ষার্থী প্রথমে যে প্রক্রিয়ায় আবেদন করেছেন, তারই ভিত্তিতে যোগ্যতা অনুযায়ী একটি কলেজ পাবেন।  যদি দেখা যায়,  তার আবেদন করা আগের কলেজে আসন খালি আছে এবং তিনি ওই আসনের যোগ্য তাহলে, অবশ্যই তিনি ওই কলেজে অটোমাইগ্রেট হয়ে যাবেন।  এজন্য আলাদা কোনো ফি ও আবেদনের প্রয়োজন হবে না।  ৪ সেপ্টেম্বর প্রথম মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশিত হবে।’

ভর্তি প্রক্রিয়া
প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপ শেষে কলেজভিত্তিক চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করা হবে আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর। একই দিন ভর্তি প্রক্রিয়াও শুরু হবে।  ১৩, ১৪, ১৫ সেপ্টেম্বর—এই তিনদিন শিক্ষার্থীরা নিজেদের মনোনীত কলেজে নিয়মানুযায়ী ভর্তি হতে পারবেন। 

আন্তঃশিক্ষা সমন্বয় বোর্ডের তথ্যমতে, সব বোর্ড মিলে মোট আবেদন করেছিলেন ১৩ লাখ ৪২ হাজার ৬৯৩ জন।  মনোনীত হয়েছেন ১২ লাখ ৭৭ হাজার ৭২১ জন। এর মধ্যে ৬৪ হাজার ৯৭২ জন ভর্তির জন্য কোনো সিট পাননি।

দ্বিতীয় পর্যায়ে আবেদন গ্রহণ করা হবে ৩১ আগস্ট থেকে ২ সেপ্টেম্বর রাত ৮টা পর্যন্ত।  পছন্দ ধারাবাহিকতার অনুসারে প্রথম মাইগ্রেশনের ফল ও দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদনের ফল প্রকাশিত হবে ৪ সেপ্টেম্বর রাত ৮টায়। 

দ্বিতীয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের সিলেকশন নিশ্চিত করা  হবে ৫ সেপ্টেম্বর থেকে ৬ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত। শিক্ষার্থী সিলেকশন নিশ্চিত না করলে দ্বিতীয় পর্যায়ের সিলেকশন ও আবেদন বাতিল হবে।

তৃতীয় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ করা হবে ৭ ও ৮ সেপ্টেম্বর।  পছন্দ অনুযায়ী দ্বিতীয় মাইগ্রেশনের ফল ও তৃতীয় পর্যায়ের আবেদনের ফল প্রকাশিত হবে ১০ সেপ্টেম্বর রাত ৮টায়।  তৃতীয় পর্যায়ে শিক্ষার্থীর সিলেকশন নিশ্চিত করতে হবে ১১ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ সেপ্টেম্বর রাত ৮টা পর্যন্ত।  সিলেকশন নিশ্চিত না করলে আবেদন বাতিল হবে।

বরগুনার আলো