শুক্রবার   ০৩ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ১৯ ১৪২৬   ০৯ শা'বান ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
প্রতি উপজেলা থেকে নমুনা সংগ্রহ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে সমালোচনা করছে বিএনপি : কাদের দেশে আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত ২৬ জন সুস্থ : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সেনাবাহিনী কতদিন মাঠে থাকবে সরকার বিবেচনা করবে: সেনাপ্রধান করোনায় খাদ্য ঘাটতি হবে না : কৃষিমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখ‌ছেন প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে ৬৪ জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কনফারেন্স পিপিই যেন নষ্ট না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা মোকাবিলায় সরকার জনগণের পাশে আছে -প্রধানমন্ত্রী ছুটিতে কর্মস্থল ছাড়া যাবে না : সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন করোনা সংকটকালে জনগণের পাশে থাকবে আ.লীগ: কাদের আমি করোনায় আক্রান্ত হইনি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত নেই : আইইডিসিআর পদ্মা সেতু‌তে বসলো ২৭তম স্প্যান, দৃশ্যমান হলো ৪ হাজার ৫০ মিটার সব পোশাক কারখানা বন্ধের নির্দেশ পবিত্র শবে বরাত ৯ এপ্রিল অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে যাবেন না : প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মুক্তি পেলেন খালেদা জিয়া সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী
৩৮

এখন যৌবন যার বাসায় থাকার তার শ্রেষ্ঠ সময়: মাশরাফি

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৩ মার্চ ২০২০  

 

করোনা ভাইরাসের কারণে স্থবির হয়ে পড়েছে পুরো বিশ্ব। কোভিড-১৯ এর আক্রমণে মৃত্যুর মিছিলে প্রতিদিনই কয়েকশ প্রাণ ঝরে যাচ্ছে। চীনে শুরু হওয়া এই করোনায় বাংলাদেশেও দু’জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আক্রান্তের সংখ্যা ২৭। আর প্রাণঘাতী এই রোগ থেকে বাঁচতে বিশেষজ্ঞরা জনসমাগম এড়িয়ে বাসায় থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। তবে বাস্তবে উল্টো চিত্র দেখা যাচ্ছে অনেক জায়গায়।


বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের তারকা মাশরাফি বিন মর্তুজাও এমন বিপদের সময় বাসায় থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে অবশ্য তরুণদের দিকেই নির্দেশনাটি রেখেছেন ম্যাশ। জানান, এখন যৌবন যার বাসায় থাকার তার শ্রেষ্ঠ সময়।

সদ্যই ওয়ানডের নেতৃত্ব ছেড়ে দেওয়া মাশরাফি ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন। ছবিতে নিজের মুখের সাদৃশ্য একটি অবয়ব রয়েছে। আর দুটি ভিন্ন লাইন লেখা রয়েছে। প্রথমটি ‘এখন যৌবন যার বাসায় থাকার তার শ্রেষ্ঠ সময়’। আর অন্যটি ‘এখন যৌবন যার দেশ কে বাঁচানোর তার শ্রেষ্ঠ সময়’। ওপরে ক্যাপশনে প্রথম লাইনটির নিচে আবার ইংরেজিতে লিখেছেন বি সেইফ ও বি এট হোম।

২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে বিশ্বের ১৮৯ দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯। এতে মৃত্যু হয়েছে ১৪ হাজার ৪৩৩ জনের। মোট আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৩ লাখ ৩০ হাজার মানুষ। চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন প্রায় ৯৭ হাজার করোনা আক্রান্ত রোগী।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর