বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৬ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ধর্ষকদের ধরিয়ে দিন, কঠোর ব্যবস্থা নেবো: প্রধানমন্ত্রী টাকা না থাকলে এত উন্নয়ন কাজ করছি কীভাবে : প্রধানমন্ত্রী সব ব্যথা চেপে রেখে দেশের জন্য কাজ করছি : প্রধানমন্ত্রী ট্রেনে খোলা খাবার বিক্রি ও প্লাস্টিকের কাপ নিষিদ্ধ হচ্ছে মজুদ গ্যাসে চলবে ২০৩০ সাল পর্যন্ত : খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী গুজব-অপপ্রচার রোধে কাজ করছে উচ্চ পর্যায়ের কমিটি : তথ্যমন্ত্রী সব কারখানায় ব্রেস্ট ফিডিং কর্নার স্থাপনের নির্দেশ আজ বাংলাদেশ-নেপাল পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক সরকার-জনগণের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার করতে সাংসদের রাষ্ট্রপতির আহ্বান দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে : নাসিম ব্যাংকের জঙ্গি অর্থায়ন নজরদারিতে রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৪০০ মেট্রিক টন মধু রফতানির অর্ডার পেয়েছে বাংলাদেশ : কৃষিমন্ত্রী নয় বছরে সাড়ে ৯৭ হাজার কর্মকর্তা নিয়োগ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী দেশে মোবাইল টাওয়ার রেডিয়েশনের মাত্রা ক্ষতিকর নয় : বিটিআরসি সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী খালেদার প্যারোলে মুক্তির কোনো আবেদন পাইনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উহান ফেরত শিক্ষার্থীরা নজরদারিতেই থাকবেন : আইইডিসিআর রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইন্দোনেশিয়ার সহায়তা চাইলেন ড. মোমেন ইউএনও’দের মাধ্যমে রাজাকারের তালিকা করা হবে : মোজাম্মেল হক মানবপাচারে অভিযুক্ত এমপির বিষয়ে দুদককে তদন্তের আহ্বান কাদেরের
৪৩

এমপিওভুক্ত হচ্ছেন তৃতীয় শিক্ষকরা

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৮ অক্টোবর ২০১৯  

দেশের বেসরকারি কলেজগুলোতে বিনা বেতনে কিংবা সামান্য বেতনে চাকরি করা তৃতীয় শিক্ষকদের এমপিওভুক্ত করার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। এ বছরেই সারাদেশ থেকে হাজারেরও বেশি এসব তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্ত করা হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যক্রম অনুসারে, ডিগ্রি কোর্সে একটি বিষয়ে তিনজন শিক্ষক পাঠদান করাবেন। কিন্তু মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর কলেজগুলোতে একই বিষয়ে কেবল দুই জন শিক্ষককে এমপিওভুক্ত করে থাকে। ফলে বাকি এক জন শিক্ষকের বেতন-ভাতা কলেজ তহবিল থেকে পরিশোধ করতে হয়। এদেরকেই বলা হয় তৃতীয় শিক্ষক।

মাউশির ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বলছে, এবার এসব শিক্ষকরাও সরকারি বেতন ভাতার আওতায় আসবেন।

মাউশি মহাপরিচালক সৈয়দ গোলাম ফারুক বলেন, তৃতীয় শিক্ষকদের এমপিওভুক্ত করার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। এদিকে এমপিওভুক্ত করতে বছরে কি পরিমাণ অর্থ ব্যয় হবে সে ব্যাপারেও একটি সুস্পষ্ট ধারণা পাওয়া গেছে। এ বছরের মধ্যে এ ব্যাপারে একটি সিদ্ধান্ত পাওয়া যেতে পারে।

মাউশি সূত্রে জানা গেছে, ডিগ্রি কলেজের জনবল কাঠামো-২০১০ নীতিমালা প্রকাশের পরে বিধি অনুযায়ী সারাদেশে ৮৪১ জন তৃতীয় শিক্ষক নিয়োগ পেয়েছেন। চলতি বছরে তাদেরকে এমপিওভুক্ত করার কথা চলছে। এজন্য বছরে ২৫ থেকে ৩০ কোটি টাকা খরচ করবে সরকার।

তৃতীয় শিক্ষকদের মধ্যে ২০১৩ ও ২০১৫ সালের অক্টোবরের আগে যারা নিয়োগ পেয়েছিলেন তাদেরকেই এমপিওভুক্ত করা হবে বলে মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে। এমন শিক্ষকের সংখ্যা ১ হাজার ১২০ জন। এই সময়ের পর নিয়োগ পাওয়া কয়েকশো শিক্ষককে এমপিওভুক্ত করা হবে না।

তবে ২০১৫ সালের পরও যারা বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ বা এনটিআরসিএর মাধ্যমে নিয়োগ পেয়েছেন তারা এই ধাপে এমপিওভুক্তির জন্য বিবেচিত হবেন।

এ ব্যাপারে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব সোহরাব হোসাইন বলেন, শিক্ষক বান্ধব বেশ কিছু কাজ এখন মন্ত্রণালয়ে দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। এরমধ্যে এমপিওভুক্তি, প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষক সরকারিকরণসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ রয়েছে। তৃতীয় শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির বিষয়টিও প্রক্রিয়াধীন। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের পরবর্তী সভায় আলোচনা হবে। 

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর