• রোববার   ০৯ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২৬ ১৪২৮

  • || ২৬ রমজান ১৪৪২

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যাপারে সরকার আন্তরিক: হানিফ লাইলাতুল কদর এক মহিমান্বিত রজনী: প্রধানমন্ত্রী ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দেশে ৪৫ মৃত্যু খালেদা জিয়াকে বিদেশে নেয়ার প্রয়োজন নেই : হানিফ তাণ্ডবকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনলাইনে পরীক্ষা নিতে পারবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আজই ফিরছেন সাকিব-মুস্তাফিজ খালেদা জিয়ার আবেদন পেয়েছি, দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে: আইনমন্ত্রী গ্রামে বাড়ি নির্মাণে ইউনিয়ন পরিষদের অনুমতি লাগবে: তাজুল করোনা প্রাণ নিল আরও ৫০ জনের, নতুন শনাক্ত ১৭৪২ ধান-চাল ক্রয়ের জন্য অত্যন্ত যৌক্তিক দাম নির্ধারণ: কৃষিমন্ত্রী শপিংমল খোলা রাত ৮টা পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় আরো ১০ জন গ্রেফতার করোনায় একদিনে আরও ৬১ জনের মৃত্যু জুনায়েদ আল হাবিব আরও ৪ দিনের রিমান্ডে নাশকতার মামলায় ফের ৫ দিনের রিমান্ডে মামুনুল হক জামায়াত-শিবিরের ৮ নেতাকর্মী আটক করোনায় প্রাণ গেল আরও ৬৫ জনের, শনাক্ত ১৭৩৯ ‘লকডাউন’ বাড়লো ১৬ মে পর্যন্ত অর্থবিত্তে বড় হলেও সত্য সংবাদ পরিবেশন হওয়া উচিত: তথ্যমন্ত্রী

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে জানালেন বোর্ড সভাপতি

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১১ এপ্রিল ২০২১  

চলতি বছর এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা নিয়েই রেজাল্ট দেয়া হবে। কোনোভাবেই শিক্ষার্থীদের অটো পাস দেয়া হবে না। পরীক্ষা আয়োজনের বিষয়টি নির্ভর করছে করোনা পরিস্থিতির ওপর।

রোববার (১১ এপ্রিল) সময় সংবাদকে এসব কথা জানান আন্তঃশিক্ষা সমন্বয় বোর্ড সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর নেহাল আহমেদ।

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অটো পাস নিয়ে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, না না, এই গুঞ্জন ঠিক না। আমরা অপেক্ষা করছি, হয়তো পরীক্ষা পিছিয়ে যেতে পারে। পরীক্ষা ছাড়া আমাদের অন্য কোনো পরিকল্পনা নেই। পরীক্ষা ছাড়া রেজাল্ট তৈরি করা ডিফিকাল্ট। অটো পাসের জন্য শুধু গত বছর আইন পরিবর্তন করা হয়েছিল, সেটা এ বছরের জন্য কার্যকর হবে না। 

গত ফেব্রুয়ারিতে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছিলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান যখনই খোলা হোক না কেন, আমরা শিক্ষার্থীদের ক্লাস করিয়েই এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নেব। এক্ষেত্রে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ৬০ দিন ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ৮৪ দিন ক্লাস করানো হবে।

এ প্রসঙ্গে প্রফেসর নেহাল আহমেদ বলেন, শিক্ষামন্ত্রী যে ঘোষণা দিয়েছিলেন, সে অনুযায়ী আমাদের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। সংক্ষিপ্ত সিলেবাস শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে পাঠানো হয়েছে। ২৩ মে যদি স্কুল-কলেজ খোলা যায়, তাহলে সেপ্টেম্বরে এসএসসি ও ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা আয়োজন করা যেতে পারে।

তিনি বলেন, ২৩ মের মধ্যেও যদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব না হয়, তখন সেটা দেখা যাবে। তবে এখনো পর্যন্ত আমার পরীক্ষা নেওয়ার ব্যাপারে অটল রয়েছি। এখনো হাতে সময় আছে, দেখা যাক করোনা পরিস্থিতি কোথায় যায়।

এদিকে, করোনার কারণে এক বছরের বেশি সময় ধরে ক্লাস না হওয়ায় সংক্ষিপ্ত পাঠ্যসূচিতে গত ৩০ মার্চ থেকে ৬০ দিন শ্রেণিকক্ষে ক্লাস করিয়ে এসএসসি এবং ৮০ দিন ক্লাস করিয়ে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা ছিল। সেটিও ভেস্তে গেছে।

এ বিষয়ে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সচিব তপন কুমার সরকার গণমাধ্যমকে জানয়েছেন, তারা এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ, প্রশ্নপত্র প্রণয়ন ও ছাপার কাজটি এগিয়ে রাখছেন। প্রস্তুতি নিয়ে রাখছেন, যাতে কোনো সিদ্ধান্ত হলে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া যায়।

বরগুনার আলো