• বুধবার   ০৩ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭

  • || ১১ শাওয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত আরও ২৬৯৫ আজ থেকে চলবে আরও ৯ জোড়া ট্রেন হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ: তথ্যমন্ত্রী যেকোনো প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে এগিয়ে যেতে পারব: প্রধানমন্ত্রী সময় যত কঠিনই হোক দুর্নীতি ঘটলেই আইনি ব্যবস্থা: দুদক চেয়ারম্যান জেলা হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ ইউনিট স্থাপনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা বিশ্ব বদলে দিলেও বিএনপিকে বদলাতে পারেনি: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত ২৯১১ সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা খাদ্য উৎপাদন আরও বাড়াতে সব ধরনের প্রচেষ্টা চলছে: কৃষিমন্ত্রী সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩৮১ জনের করোনা শনাক্ত পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেন চলছে: রেলমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৪৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৪০ জন বাস ভাড়া যৌক্তিক সমন্বয়, প্রজ্ঞাপন আজই: ওবায়দুল কাদের এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবো না: প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে এসএসসির ফল প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল ১২টার পরিবর্তে ১১টায় প্রকাশ হবে এসএসসির ফল করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ২৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৭৬৪ পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কি.মি. দৃশ্যমান, বসল ৩০তম স্প্যান
১৫৪৮

ওমরাহ করেছেন ৩১৯৯ বার, রোজা রাখছেন টানা ২০ বছর ধরে

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০১৯  

হজ পালন প্রতিটি মুসলমানের পরম আরাধ্য। কারো ভাগ্যে হজ জুটে আর কারো হয়তো হজ করা সৌভাগ্য হয় না। আর্থিক ও কায়িক শ্রমের মিশেল থাকায় ইসলামের মৌলিক স্তম্ভটি (যাদের সামর্থ আছে, শুধু তাদের জন্য প্রযোজ্য) অনেকে পালন করতে সক্ষম হন না। তাই কেউ কেউ ওমরাহ করেন। আবার কেউ কেউ হজ আদায় করার পর ওমরাহ করে আল্লাহপ্রেমের ষোলকলা পূর্ণ করেন।

ওমরাহ করা হজের তুলনায় যথেষ্ট সহজ। কিন্তু একজন মানুষ সর্বোচ্চ কয়টি ওমরাহ করতে পারেন? ৫, ১০, ২০, ৫০ কিংবা সর্বোচ্চ ১০০টি! আশ্চর্যজনক হলেও সত্য যে, এক পাকিস্তানি ভদ্রলোক মোট ওমরাহ করেছেন ৩ হাজার ১৯৯টি। এতগুলো ওমরাহ তিনি গত সতের বছরের বিভিন্ন সময়ে আদায় করেছেন। বোদ্ধাদের ধারণা মতে, এমন সাফল্য ও সৌভাগ্য হয়তো আর কারো নেই। বিশ্বের সর্বোচ্চ সংখ্যক ওমরাহ পালনকারী হিসেবে এমন চমৎকার ও সম্মানজনক অর্জনে তিনি রেকর্ড করেছেন। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ‘দ্য ন্যেশন’ রোববার (০৯ জুন) এমনটাই জানিয়েছে।

অতিমানবীয় এমন কীর্তি ও সৌভাগ্যেল অধিকারী ব্যক্তির নাম সৈয়দ দিলনাওয়াজ শাহ। পবিত্র মক্কা শরিফে রমজানের বরকতময় মাস কাটানোর পর বৃহস্পতিবার (০৬ জুন) তিনি নিজ শহর করাচিতে ফিরে আসেন। মক্কায় থাকাকালীন তিনি দৈনিক ৩টি করে ওমরাহ পালন করেন। এভাবে সব মিলিয়ে প্রায় ৫ ডজন ওমরাহ সম্পন্ন করেছেন এ পবিত্র মাসে। এরপর রমজানের শেষ দশদিন তিনি মদিনা মুনাওয়ারায় পবিত্র মসজিদে নববীতে অতিবাহিত করেন।

সৈয়দ দিলনাওয়াজ ছয় সন্তানের পিতা। ২০১২ সালে অবসর গ্রহণের আগ পর্যন্ত তিনি করাচির একটি গ্যাস কোম্পানির ডেপুটি ম্যানেজার ছিলেন। গত ১৭ বছরের সময়কালে তিনি প্রায় প্রতি বছর একবার করে সৌদি আরব সফর করছেন।

সর্বাধিক সংখ্যক ওমরাহ পালনকারী সম্পর্কিত কোনো তথ্য নেটে সার্চ দিয়ে পাওয়া যায় না। পারিপার্শ্বিক অন্যান্য তথ্য-উপাত্তেও এমন কোনো হিসেবে উল্লেখ নেই। সে সূত্রে ধারণা করা হয়, সৈয়দ দিলনাওয়াজ শাহ-ই সর্বোচ্চ ওমরাহ পালনকারী।

অন্যদিকে আরো অবাককরা বিষয় হলো, গত ২০ বছর ধরে তিনি টানা প্রতিদিন রোজা রাখছেন। শুধু নিষিদ্ধ (ইসলামে) দিনের সময়ে তিনি রোজা রাখেন না। এতো দীর্ঘ সময় রোজা রাখার এই যাত্রা তিনি শুরু করেছেন ১৯৯৯ সালের জুন থেকে।

বরগুনার আলো
ধর্ম বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর