মঙ্গলবার   ১২ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৭ ১৪২৬   ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
সংসদে বাংলাদেশের পতাকবাহী জাহাজ (সুরক্ষা) বিলের রিপোর্ট উপস্থাপন মুজিব বর্ষ উদযাপনে ভারতের আগ্রহ রয়েছে: রাম মাধব বাংলা বন্ড চালু বিশ্ব অথনীতিতে একটি বড় পদক্ষেপ:অর্থমন্ত্রী ইন্দো-প্যাসিফিক সহযোগিতা বাড়ানোর ওপর গুরুত্ব আরোপ মোমেনের ২০২০ সালের হজ নিয়ে সৌদির সাথে বাংলাদেশের চুক্তি ১ ডিসেম্বর সম্প্রচারের অপেক্ষায় ১১টি বেসরকারি টিভি মাছের মুখ দেখতে মানুষের মতো! র‌্যাবের অভিযানে রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট তৈরি চক্রের হদিস আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার মামলা মুক্তিযোদ্ধাদের মর্যাদা ফিরিয়ে দিয়েছেন শেখ হাসিনা: নাসিম বাণিজ্যমন্ত্রীর হাতে ফুল দিয়ে আলোর পথে ১৩ ডাকাত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা লন্ডনে কমনওয়েলথ মেলায় আবাসিকে গ্যাস সংযোগের পরিকল্পনা সরকারের নেই পাঁচ দিনের সফরে কেনিয়া গেলেন পরিকল্পনামন্ত্রী শাহ আমানতে চার্জার লাইটের ব্যাটারি থেকে সোনা জব্দ জ্বিনে ধরেছে আইরিনকে! বরফের সুনামি! সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় (ভিডিও) স্ত্রীর কাটা মাথা নিয়ে থানায় হাজির হলেন স্বামী! বুলবুলের পর এবার ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় `পবন` আইন সংশোধন: পিপিপিতে বছরে একটি সভা

কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব উদ্বোধন করলেন শাহরুখ

প্রকাশিত: ৯ নভেম্বর ২০১৯  

পঁচিশে পা দিল কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। শুক্রবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে আনুষ্ঠানিকভাবে এ উৎসব শুরু হয়। এদিন পুরো স্টেডিয়াম জুড়ে যেন বসেছিল চাঁদের হাট। শাহরুখ খান, মহেশ ভাট্ট, রাখি গুলজার থেকে শুরু করে টালিউডের নুসরাত জাহান, মিমি চক্রবর্তী, পাওলি দাম, দেব, অঙ্কুশ-সোহম সহ অসংখ্য তারকা উপস্থিত হয়েছিলেন এ আয়োজনে।

রাজ চক্রবর্তী এবং সৌরভ গাঙ্গুলীর সঙ্গে অনুষ্ঠানে এসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন যিশু সেনগুপ্ত এবং পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়।

এর আগে টানা পাঁচবার এই উৎসবের উদ্বোধন করেন অমিতাভ বচ্চন। সেই ধারাবাহিকতায় এবারও তারই উদ্বোধন করার কথা ছিল। কিন্তু তিনি অসুস্থতার কারণে আসতে পারেননি। আর এ জন্য এবার উৎসবটি উদ্বোধন করেন বলিউড কিং শাহরুখ খান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও ছিলেন রঞ্জিত মল্লিক, মাধবী মুখোপাধ্যায়, গৌতম ঘোষ, সন্দীপ রায়, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়, ইন্দ্রানী হালদার প্রমুখ।

অমিতাভের না আসার কারণ প্রসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘অসুস্থতার কারণে এবার তিনি উপস্থিত হতে পারলেন না। না আসতে পারলেও তিনি এই উৎসবের সাফল্য কামনা করেছেন। তবে উৎসবে উপস্থিত হওয়ার জন্য শাহরুখ খান, রাখী গুলজার ও মহেশ ভাট্ট’র প্রতি কৃতজ্ঞতা।’

উদ্বোধনী পর্ব শেষে শাহরুখ বলেন, ‘ভালোলাগা এখানে আমাকে বারবার টেনে আনে। তাই দ্বিধাহীন ছুঁটে আসি। এখানে আসলে ভীষণ রকমের আনন্দ পাই। এই কলকাতা আমার ভালো লাগার শহর। সাহিত্য থেকে সিনেমা- অনেক কিছু শিখতে পেরেছি এই কলকাতা থেকে। যে কারণে ডাক পেলেই ছুঁটে আসি। অবশ্য সৌরভ গাঙ্গুলীর মাধ্যমে আমি প্রথম কলকাতা চিনেছি। আর বারবার দিদির ডাকে সাড়া দিতে পেরে আমি উচ্ছ্বসিত।’

প্রসঙ্গত, ৮ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া এই উৎসব চলবে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। উৎসবে দেখানো হবে শতবর্ষের বাংলা সিনেমা। থাকবে সত্যজিৎ রায়ের ‘গুপী গাইন বাঘা বাইন’ ও ঋত্বিক ঘটকের ‘মেঘে ঢাকা তারা’। এ বছর ‘মেঘে ঢাকা তারা’ সিনেমার ৫০ বছর পূর্তি হচ্ছে। এবার উৎসবে ২৪টি দেশের ৫৬ জন প্রতিনিধি এবং ভারতের ৬০ জন প্রতিনিধি অংশ নেবেন। উৎসবের ফোকাস কান্ট্রি ‘জার্মানি’। উৎসবে জার্মানির ৪২টি সিনেমা দেখানো হবে।

এই বিভাগের আরো খবর