বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৬ ১৪২৬   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
শাহজালালে পৌঁছেছে পাকিস্তানের ৮২ টন পেঁয়াজ ক্রিকেটের সঙ্গে টেনিসও এগিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী রিফাত হত্যা : চার্জ গঠন ২৮ নভেম্বর চালের দাম বাড়ানোর চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা: খাদ্যমন্ত্রী র‌্যাব-৮ এর অভিযানে শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রেফতার ৭ ডিসেম্বর বিচারবিভাগীয় সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী বরিশাল বোর্ডে এসএসসিতে বৃত্তি পাচ্ছেন ১৪১৭ শিক্ষার্থী কবি সুফিয়া কামালের মৃত্যুবার্ষিকী আজ জাতীয় অর্থনীতিতে নারীর অবদান সবচেয়ে বেশি: পলক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ট্রাক মালিকদের ফের বৈঠক আজ চক্রান্তকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে: ওবায়দুল কাদের দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী লবণের দাম বাড়ালে জেল-জরিমানা : বাণিজ্যমন্ত্রী লবণ নিয়ে গুজবে কান দিবেন না: শিল্প মন্ত্রণালয় ২০২১ সালের মধ্যে ১০০০ উদ্যোক্তা তৈরিতে সহায়তা দেবে সরকার পদ্মাসেতুর প্রায় আড়াই কিলোমিটার দৃশ্যমান সেনা কল্যাণ সংস্থার চারটি স্থাপনা উদ্বোধন মালিতে জঙ্গি হামলায় ২৪ সেনা নিহত কন্যা সন্তানের জনক হলেন তামিম কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সভা আজ
৩৭

কার্বন-ডাই-অক্সাইডকে জ্বালানিতে পরিণত করতে ‘কৃত্রিম পাতা’

প্রকাশিত: ৬ নভেম্বর ২০১৯  

বিজ্ঞানীরা এক ধরনের ‘কৃত্রিম পাতা’ আবিষ্কার করেছে যেটি কার্বন-ডাই-অক্সাইডকে জ্বালানিতে পরিণত করবে। নতুন প্রযুক্তির প্রভাবে সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ায় উদ্ভিদ কার্বন-ডাই-অক্সাইড বিশেষ করে গ্লুকোজ এবং অক্সিজেন সরবরাহ করে। এই পদ্ধতি অনুসরণ করে কৃত্রিম পাতা সহজলভ্য লাল পাউডার যেটাকে কিউপ্রাস অক্সাইড বলা হয় এবং মিথাইল ও অক্সিজেন উৎপন্ন করতে সাহায্য করে।

ওয়াটার লু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর এবং গবেষক ইয়েমিন ইউ দ্য ইনডিপেন্ডেন্টকে বলেন, এই প্রযুক্তি ১০ শতাংশ কার্যকর সৌরশক্তি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। এটিকে এখন সালোকসংশ্লেষণ পদ্ধতির চেয়ে বড় একটি পদ্ধতি হিসেবে মনে করা হয়।

তিনি আরো বলেন, “আমি খুবই আনন্দিত যে এই গূরুত্বপূর্ণ আবিষ্কার পরিবেশকে পরিবর্তন করতে সাহায্য করছে। সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বে জলবায়ু পরিবর্তন একটি গুরুতর সমস্যা। তাই বিকল্প কিছু আবিষ্কার করে আমরা কার্বন-ডাই-অক্সাইড নির্গমণের বিষয়টি প্রতিহত করতে পারি। ”

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ অর্থনীতি বিষয়ক প্রফেসর ক্যামেরন হেপবার্ন বলেন, তিনি গবেষণার সাথে জড়িত ছিলেন না কিন্তু এই কৃত্রিম পাতা বায়ুমণ্ডলে কার্বন-ডাই-অক্সাইড নিঃসরণ কমাতে সাহায্য করবে। এছাড়া এটি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য পূরণেও গূরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে আশা করা হচ্ছে।