মঙ্গলবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ২ ১৪২৬   ১৭ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
দুই মাসে এডিপি বাস্তবায়নের হার বেড়েছে ৪.৪৮ শতাংশ উদ্বোধনের দিনেই পদ্মাসেতুতে ট্রেন চলবে: রেলমন্ত্রী ৮ হাজার ৯৬৮ কোটি ৮ লাখ টাকার প্রকল্প একনেকে অনুমোদন ভারতীয় কোস্টগার্ড ডিজির সঙ্গে রীভা গাঙ্গুলির বৈঠক ইসির চুরি যাওয়া ল্যাপটপ উদ্ধার, আটক ৩ আজ মহান শিক্ষা দিবস প্রধানমন্ত্রী ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন আজ রোহিঙ্গা ভোটার: ইসি কর্মচারীসহ আটক ৩ রিফাত-মিন্নির নতুন ভিডিও, বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য ‘বিজ্ঞান-প্রযুক্তির বিকাশ ছাড়া দেশ উন্নয়ন করা সম্ভব নয়’ রোহিঙ্গা ভোটার খতিয়ে দেখতে চট্টগ্রামে কবিতা খানম আগামী ১০মাসের রোডম্যাপ তৈরি ও তার বাস্তবায়ন করবো - জয় ও লেখক ডেঙ্গুতে সরকারি হিসেবে ৬৮ জনের মৃত্যু আ. লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা ১৮ সেপ্টেম্বর বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপের জন্মদিন আজ আজ থেকে ট্রাকে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি বিশ্ব ওজন দিবস আজ শিগগিরই বন্দর-ট্রেনে যুক্ত হচ্ছে ত্রিপুরা-বাংলাদেশ দিল্লিতে শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক ৫ অক্টোবর সারাদেশে ৭৫ প্রতিষ্ঠানকে পাঁচ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা
১২

কাশ্মীরে এফএম রেডিওতে সংকেত পাঠাচ্ছে পাকিস্তান আর্মি

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

কাশ্মীরে সব ধরনের যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ করে দেওয়ার পর, সেখানকার জঙ্গি সংগঠনগুলোর সঙ্গে এফএম রেডিওতে সংকেত পাঠিয়ে যোগাযোগ রাখছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। এভাবেই জম্মু ও কাশ্মীরে নাশকতা সৃষ্টিতে সেদেশের সেনাবাহিনী চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলে নিশ্চিত হয়েছে ভারতের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো।

দেশটির গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের কাছে লাইন অব কন্ট্রোলে (এলওসি) এফএম স্টেশন স্থাপন করেছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। পাকিস্তানের জাতীয় সঙ্গীত ‘কওমী তারানা’, এর মাধ্যমেই সংকেতগুলো পাঠানো হয়েছে জইশ-ই-মুহাম্মদ, লস্কর-ই-তাইবা এবং আল বদর নামক জঙ্গি সংগঠনগুলোর কাছে। সন্ত্রাসী এই সংগঠনগুলো ভারতে বেশ কয়েকবার নাশকতা চালিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

সংবিধান থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলুপ্তির মাধ্যমে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে দেওয়ার পর গত আগস্টে ভারত সরকার রাজ্যটি থেকে টেলিফোন, মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে দেয়। তবে এর সপ্তাহ খানেকের মধ্যেই এই যোগাযোগ স্থাপন করতে সক্ষম হয় পাকিস্তান সেনাবাহিনী।

জঙ্গি সংগঠনগুলো জম্মু ও কাশ্মীরে তাদের সহযোগীদের কাছে বার্তা পাঠাতে জাতীয় সঙ্গীতটি এমএফ রেডিওর মাধ্যমে খুব সক্রিয়ভাবে ব্যবহার করেছে বলে দাবি করা হচ্ছে।

গোয়েন্দারা বলছেন, উচ্চ ক্ষমতার কম্পাংকের (ভিএইচএফ) রেডিং স্টেশন থেকে সংকেতগুলো ভারতের দিকের লাইন অব কন্ট্রোল’র কাছে পাঠানো হচ্ছিল। যে সংকেতগুলোই জইশ-ই-মুহাম্মদ, লস্কর-ই-তাইবা এবং আল বদর ব্যবহার করে তাদের জম্মু ও কশ্মীরের সন্ত্রাসীদের সঙ্গে যোগাযোগ করছিল।

ভিএইচএফ’র বার্তাগুলো লাইন অব কন্ট্রোলের কাছে থাকা সন্ত্রাসীরা রিসিভ করে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করতে এবং সহিংসতা তৈরি করার জন্য নিকটস্থ গ্রামে ছড়িয়ে দিতো।

খবরে বলা হয়েছে-বিদম্যান এফএম রেডিওগুলোকে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের কাছাকাছি লাইন অব কন্ট্রোলের কাছে সরিয়ে নিয়েছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। সিগন্যাল কোরে এজন্য নিয়েজিত করেছে ১০ জন কমান্ডারকে।

এই বিভাগের আরো খবর