• সোমবার   ০৬ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২২ ১৪২৭

  • || ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ভিসার মেয়াদ বাড়ালো সৌদি আরব: পররাষ্ট্রমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ২৭৩৮, মৃত্যু ৫৫ কাউকেই ভূতুড়ে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে হবে না: বিদ্যুৎ সচিব আজ থেকে অধস্তন আদালতে আত্মসমর্পণ করা যাবে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ২৯ মৃত্যু, শনাক্ত ৩২৮৮ বেতন-ভাতা পরিশোধে মালিকরা সহমর্মিতার নজির দেখাবেন : কাদের পাটকল শ্রমিকরা দুই ধাপে সব পাওনা পাবে: পাটমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ৪০১৯, মৃত্যু ৩৮ চালের বাজার অস্থিতিশীল করলে কঠোর ব্যবস্থা : খাদ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ৩৭৭৫, মৃত্যু ৪১ যত্রতত্র পশুরহাটের অনুমতি দেওয়া যাবে না- ওবায়দুল কাদের জঙ্গিবাদ দমনে সফলতা ধরে রাখতে কাজ করে যাচ্ছি: র‌্যাব ডিজি ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৬৪ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৬৮৩ শিগগিরই আরও ৪ হাজার নার্স নিয়োগ: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৪৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৪০১৪ অর্ধশত যাত্রী নিয়ে বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি, উদ্ধার কাজ চলছে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৪৩ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৮০৯ ফ্লাইট পরিচালনার অনুমোদন পাচ্ছে ৪ বিদেশি এয়ারলাইন্স অপরাধী ক্ষমতাবান হলেও ছাড় দেয়া হবে না: কাদের
৯৮

কুষ্টিয়ার যে গ্রামের শিশু থেকে বৃদ্ধ সবাই ইউটিউবার, মাসে আয় ৬ লাখ

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০২০  

কুষ্টিয়ার খোকসার শিমুলিয়ার দেলোয়ার মাস্টার নেতৃত্বে প্রায় ২৫-৩০জন মিলে একটি ইউটিউব চ্যানেল পরিচালনা করেন। চ্যানেলটির নাম ‘অ্যারাউন্ড মি বিডি’। ভিডিওর মাধ্যমে গ্রামীণ জীবন বিশেষত রান্নাবান্নাকে তুলে ধরা হচ্ছে বিশ্ব দরবারে। তাদের প্রচেষ্টায়ই শিমুলিয়া গ্রামটি ‘ইউটিউব ভিলেজ’ নামে পরিচিতি পেয়েছে। 

 

 

তাদের করা রান্নার ভিডিওগুলোতে নেই কোনো উপস্থাপনা, নেই কোনো ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক। প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে ভিডিওগুলোর প্রত্যেকটির শুরু থেকে শেষ অব্দি উপভোগ করেন উৎসুক দর্শক।  আয়োজন করে গ্রাম্য ধারায় শত শত মানুষের জন্য রান্না করা হয়। এ রান্নার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পুরো প্রক্রিয়াই শৈল্পিকভাবে ভিডিওতে তুলে ধরা হয়।

 

 

২০১৬ সালে এর যাত্রা শুরু হয়। অ্যারাউন্ড মি বিডি’তে বর্তমানে ২৪ লাখেরও বেশি সাবস্ক্রাইবার আছে। প্রতিমাসে চ্যানেল থেকে আয় প্রায় ৬ লাখ টাকা। যদিও অর্থ আয়ই উদ্দেশ্য নয়, এলাকার সংস্কৃতি বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরতে পেরেই খুশি দেলোয়ার হোসেন।

তিনি বলেন, এমন নিরক্ষর একটা অঞ্চলে যে ইউটিউব ভিলেজ তৈরি করতে পেরেছি এটাই আমাদের বিশাল পাওয়া। আমাদের দেখাদেখি অনেক মানুষই ইউটিউব চ্যানেল গড়ে তুলেছে।

 

 

চ্যানেলটির ক্যামেরার দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিরা বলেন, আমরা শখের বশেই ভিডিও করি। আগে মোবাইলে ভিডিও করতাম এখন ক্যামেরা কিনে নিয়েছি। আমাদের গ্রামীণ সংস্কৃতির সঙ্গে যেন নতুন প্রজন্ম পরিচিত হতে পারে তাই আমাদের এই উদ্যোগ।

বরগুনার আলো
ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর