শুক্রবার   ০৩ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ২০ ১৪২৬   ০৯ শা'বান ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
প্রতি উপজেলা থেকে নমুনা সংগ্রহ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে সমালোচনা করছে বিএনপি : কাদের দেশে আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত ২৬ জন সুস্থ : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সেনাবাহিনী কতদিন মাঠে থাকবে সরকার বিবেচনা করবে: সেনাপ্রধান করোনায় খাদ্য ঘাটতি হবে না : কৃষিমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখ‌ছেন প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে ৬৪ জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কনফারেন্স পিপিই যেন নষ্ট না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা মোকাবিলায় সরকার জনগণের পাশে আছে -প্রধানমন্ত্রী ছুটিতে কর্মস্থল ছাড়া যাবে না : সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন করোনা সংকটকালে জনগণের পাশে থাকবে আ.লীগ: কাদের আমি করোনায় আক্রান্ত হইনি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত নেই : আইইডিসিআর পদ্মা সেতু‌তে বসলো ২৭তম স্প্যান, দৃশ্যমান হলো ৪ হাজার ৫০ মিটার সব পোশাক কারখানা বন্ধের নির্দেশ পবিত্র শবে বরাত ৯ এপ্রিল অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে যাবেন না : প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মুক্তি পেলেন খালেদা জিয়া সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী
১৯

কুষ্টিয়ায় জগো বাহিনীর প্রধানের ফাঁসি, ১১ জনের যাবজ্জীবন

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সংঘটিত একটি চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার রায়ে জগো বাহিনীর প্রধান জগোর ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

সেই সাথে এই মামলায় ১১জন আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত জগো (৩০) কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার বানিয়াপাড়া এলাকার নফছের আলীর ছেলে।

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার সোনাইডাঙ্গা এলাকার বদর উদ্দিনের ছেলে ইলাম মন্ডল ওরফে কালু (৩২), বৃত্তিপাড়া এলাকার মনোয়ার মন্ডলের ছেলে শহিদুল ইসলাম (৩০), গজনবীপুর এলাকার মৃত আলম ফকিরের ছেলে বাদশা ওরফে বাশি মন্ডল (৩৮), দেড়িপাড়া এলাকার তোয়াক্কেল জোয়াদ্দারের ছেলে আলিম ওরফে ঝড়ো (৩৮), বারুইপাড়া এলাকার আফাজ সর্দারের ছেলে আমিরুল ইসলাম (৩৫), উজানগ্রাম এলাকার মোনাউল্লাহর ছেলে বাবলু (৪০), বারুইপাড়া এলাকার মৃত তাইজাল হোসেনের ছেলে রহমত ওরফে সাইদুল (২৬), একই এলাকার ইজ্জত আলীর ছেলে মিজানুর রহমান (৩৫), ইয়ার আলীর ছেলে আলী হোসেন (২৫), আব্দুল মজিদ মন্ডলের ছেলে আসাদুল (২১) এবং বৃত্তিপাড়া এলাকার সামসুলের ছেলে ইউনুচ (৩৫)।

রায় ঘোষণাকালে যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি শহিদুল ইসলাম, আলিম ওরফে ঝড়ো, বাবলু, সাইদুল, মিজানুর রহমান, আলী হোসেন, ইউনুচ এবং মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জগো পলাতক ছিলেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালের ২৩ অক্টোবর কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার বারুইপাড়া মিনি ক্যানেল পাড়ে জবাই করে হত্যার পর দেহ থেকে মাথা আলাদা করে সেখানকার ব্রিজের রেলিং এর উপরে রেখে সন্ত্রাসীরা চলে যায়।

এ ঘটনায় কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানায় পরদিন ২৪ অক্টোবর একটি মামলা দায়ের হয়। মামলার তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ২০ জুন আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন ইবি থানা পুলিশ।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের কৌসুলী (পিপি) অনুপ কুমার নন্দী জানান, চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলার দীর্ঘ বিচারকার্যে ১৬ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে এবং দুই আসামির জবানবন্দীতে আসামিদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাহীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় এ আদেশ প্রদান করেন আদালত। সেই সাথে প্রত্যেক আসামিদের ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন আদালত।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর