• বৃহস্পতিবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১২ ১৪২৭

  • || ১৩ রজব ১৪৪২

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
সাত কলেজের পরীক্ষা চলবে: শিক্ষা মন্ত্রণালয় কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে সাধারণ মানুষও চিকিৎসা পাবেন: আইজিপি জনগণ ভালোবেসে আমাদের সরকার গঠনের সু্যোগ দিয়েছে: কাদের সাত কলেজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত সন্ধ্যায় বিএনপির অনেক নেতা গোপনে টিকা নিয়েছেন : তথ্যমন্ত্রী ‘পাটের উৎপাদন বাড়াতে বীজ সরবরাহ নিশ্চিত করা হচ্ছে’ দেশে করোনায় ১৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯৯ কমিশন বাণিজ্যের ধারা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে: সেতুমন্ত্রী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ধরনের পরীক্ষা স্থগিত ভবিষ্যতে বাংলাদেশেও তৈরি হবে যুদ্ধবিমান: প্রধানমন্ত্রী দেশে করোনায় ৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৬৬ বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলছে ২৪ মে: শিক্ষামন্ত্রী হল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত ৫-৬ দিনের মধ্যেই: মন্ত্রিপরিষদ সচিব এক মাসের মধ্যে চালের বাজার স্বাভাবিক হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৫, শনাক্ত ৩৫০ এটিএম শামসুজ্জামান আর নেই এখন ঘরে ঘরে মানুষ ডিজিটাল সেবার সুবিধা পাচ্ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী সামিসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে করা মামলার আদেশ ২৩ ফেব্রুয়ারি করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯১ খাদ্যে ভেজালকারীদের কঠোর হাতে দমন করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

গোপন ভিডিও ধারণ করে প্রেমিকাকে ব্ল্যাকমেইল, গ্রেফতার যুবক

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৬ জানুয়ারি ২০২১  

দীর্ঘদিন ধরেই হারুনের সঙ্গে ছিল প্রেমের সম্পর্ক। এর মাঝেই হয় মনোমালিন্য। সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার আগে প্রেমিক যুগলের অন্তরঙ্গ অনেক সময় কাটে। সেই অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি গোপনে প্রেমিক ভিডিও-ছবি মোবাইলে নিয়ে নেন। পরবর্তীতে সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ায় শুরু করেন ব্ল্যাকমেইল, দাবি করেন করেন ৩ লাখ টাকা। উপায় না পেয়ে থানায় মামলা করেন প্রেমিকা জোসনা (ছদ্মনাম)।

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) ভিকটিম বোয়ালিয়া মডেল থানায় এসে ওই হারুনের বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১২-এর ৮(১)(২)(৩) ধারায় মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তভার পড়ে এসআই মতিনের ওপর। মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) বাগমারার নামকান গ্রামে তার বাসা থেকে হারুনকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আসামির পুরো নাম মো. হারুনুর রশিদ (৩০)। তিনি বাগমারার নামকান পাড়ার শাহজাহান প্রামানিকের সন্তান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নগর পুলিশের মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস। তিনি জানান, অশ্লীল ছবি ও ভিডিও চিত্র ধারণ করে নারীকে ব্ল্যাকমেইল ও অর্থ গ্রহণের পরও বিভিন্ন গণমাধ্যমে ছবি শেয়ার করার কারণে আসামি হারুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ বিষয়ে দুপুর ১২টায় আরএমপির পক্ষ থেকে একটি প্রেস কনফারেন্সের আয়োজনও করা হয়।

Raj-2.jpg

ঘটনার বিবরণে পুলিশ বলছে, আসামি সম্পর্কের জের ধরে বিভিন্ন সময়ে ভিকটিমের অশ্লীল ছবি ও ভিডিও চিত্র তার অজান্তে মোবাইল ফোনে সংরক্ষণ করে রেখেছিলেন। বিভিন্ন কারণে আসামির সঙ্গে ওই নারীর মনোমালিন্য হওয়ায় সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটে। কিন্তু ১১ জানুয়ারি ওই নারী জানতে পারেন- হারুন মোবাইল ফোন ব্যবহার করে ভিন্ন নামে ফেসবুক আইডি দিয়ে তার অশ্লীল ছবি ও ভিডিও চিত্র বিভিন্ন পরিচিত ব্যক্তির ম্যাসেঞ্জারে প্রেরণ করছেন।

বিষয়টি ওই নারী হারুনকে মোবাইল ফোনে জানালে তিনি তার অশ্লীল ছবি ও ভিডিও চিত্রগুলো মুছে ফেলার জন্য তিন লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। মানসম্মানের ভয়ে হারুনকে ভিন্ন ভিন্ন সময়ে তার দাবি করা ৩ লাখ টাকা প্রদান করেন ওই নারী। এরপরও হারুন পূর্বের ন্যায় বাদীর অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে প্রেরণ করতে থাকেন। আসামি অশ্লীল ছবি ও ভিডিও তাকে বিভিন্ন সময় দেখিয়ে আরও চাঁদা দাবি করেন। এরপর ক্ষুব্ধ নারী বাধ্য হয়ে থানায় পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের করেন হারুনের বিরুদ্ধে।

ঘটনার বিষয়ে তদন্তকারী অফিসার এসআই মতিন জানান, আরএমপির সাইবার ক্রাইম ইউনিট হতে তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে সঙ্গীয় এসআই মো. মাসুদ রানা, এসআই মো. গোলাম মোস্তফা ও সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় রাজশাহী জেলার বাগমারা থানার নামকান গ্রাম হতে আসামি মো. হারুনুর রশিদ (৩০) কে সাড়ে সাতটার দিকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করি। মোবাইল ফোন সেটসহ হাতে-নাতেই তাকে গ্রেফতার করা হয়। আসামির বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

বরগুনার আলো