বুধবার   ১১ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৭ ১৪২৬   ১৩ রবিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
কাল নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে বললেন ওবায়দুল কাদের ‘ফুড চেইনের মাধ্যমে প্লাস্টিক শরীরে প্রবেশ করছে’ বিশাল জয়ে শুরু কুমিল্লার বঙ্গবন্ধু বিপিএল মিশন টাইম ম্যাগাজিনের ‘পারসন অব দ্য ইয়ার’ গ্রেটা থানবার্গ বিদ্যুৎ খাতের উন্নয়নে ৩০ কোটি ডলার দেবে এডিবি ‘বিদেশগামীদের জন্য চালু হচ্ছে প্রবাসী কর্মী বিমা’ প্রেষণে বদলি রাষ্ট্রীয় ব্যাংকের ৯ জিএম জনতা ব্যাংকের অর্থ আত্মসাৎ: আসামিকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ মাদককে দেশ ছাড়া করবো: আইজিপি বিটিসিএলের সব স্কুলের প্রাথমিক শাখা হবে ডিজিটাল কাল থেকে শুরু এইচএসসির ফরম পূরণ টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছে কুমিল্লা বিধ্বংসী ইমরুলে সিলেটকে হারিয়ে শুভসূচনা চট্টগ্রামের আদালতের কাজে সরকার হস্তক্ষেপ করে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সান্ধ্যকালীন কোর্স বন্ধে ইউজিসির নির্দেশ মাশরুম খাওয়া কি হালাল? সংখ্যালঘু নির্যাতন নিয়ে ভারতের অভিযোগ সঠিক নয়: মোমেন রাখাইনে সেনা অভিযান মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ বিষয়: সু চি রোহিঙ্গা নির্যাতন: মিয়ানমার সেনাদের জবাবদিহি করতে হবে আওয়ামী লীগে দূষিত রক্ত রাখা হবে না: সেতুমন্ত্রী
৫০

‘গোল্ডেন ব্লাড’ ধারণ করেন বিশ্বে মাত্র ৪৩ জন!

প্রকাশিত: ১ ডিসেম্বর ২০১৯  

মানুষের শরীরে ‘এ’, ‘বি’, ‘এবি’ এবং ‘ও’ এই চার গ্রুপের রক্ত রয়েছে। প্রতি গ্রুপেরই দুটি ভাগ থাকে। পজেটিভ এবং নেগেটিভ। কারও শরীরে পজেটিভ গ্রুপের রক্তের প্রয়োজন হলে তা সহজেই পাওয়া যায়। কিন্তু যাদের শরীরে নেগেটিভ গ্রুপের রক্ত রয়েছে তাদের রক্তের প্রয়োজন পড়লে তা খুঁজে পেতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয়। এই নেগেটিভ গ্রুপের মধ্যে বিরল হলো ‘ও’ নেগেটিভ। তবে আরেকটি বিরল রক্তের গ্রুপ পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। সেই রক্তকে ‘গোল্ডেন ব্লাড’ নামে অভিহিত করছেন তারা।

আমেরিকান রেড ক্রস সংস্থাটি বলেছে, যেসব গ্রুপের রক্ত প্রতি ১ হাজার জনের মধ্যে একজনের শরীরে থাকে, সেগুলোকে ‘বিরল’ বলে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়। ‘ও’ নেগেটিভ হল তেমনই একটি ‘বিরল’ রক্তের গ্রুপ। কিন্তু এমন একটি রক্তের গ্রুপ রয়েছে যা প্রতি ৬০,০০,০০০ জনের মধ্যে ১ জনের শরীরে আছে। বিজ্ঞানীদের মতে, এটিই হল বিশ্বের ‘বিরলতম’ গ্রুপের রক্ত। রক্তের এই গ্রুপটিকে বলা হয় ‘গোল্ডেন ব্লাড’। চিকিত্সকদের কাছে এটি ‘আরএইচ-নাল’ (Rh-Null) নামে পরিচিত।

সাধারণত, রক্তের কোষগুলোতে ৩৪২টি অ্যান্টিজেন থাকে। এই অ্যান্টিজেনগুলোর কম্বিনেশনই নির্ধারণ করে কোন রক্তের গ্রুপ ঠিক কী হবে। এই অ্যান্টিজেনের ভিত্তিতে মানুষের রক্তকে চার ভাগে ভাগ করা হয়। সেগুলি হল, ‘এ’, ‘বি’, ‘এবি’ আর ‘ও’। প্রত্যেকটি রক্তের গ্রুপ আবার দু’ভাগে বিভক্ত, ‘পজেটিভ’ এবং ‘নেগেটিভ’। অর্থাৎ সব মিলিয়ে মানুষের শরীরে মোট আটটি আলাদা আলাদা গ্রুপের রক্ত পাওয়া যায়। সেগুলো হল, ‘এ পজেটিভ’, ‘এ নেগেটিভ’, ‘বি পজেটিভ’, ‘বি নেগেটিভ’, ‘ও পজেটিভ’, ‘ও নেগেটিভ’, ‘এবি পজেটিভ’ ও ‘এবি নেগেটিভ’।

‘গোল্ডেন ব্লাড’ গ্রুপের রক্তের আরএইচ সিস্টেমের ৬১টি অ্যান্টিজেনের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি বলে একে ‘বিরল’ বলে গণ্য করছেন বিজ্ঞানীরা। এই ‘আরএইচ-নাল’ নামের রক্তের সন্ধান প্রথম পাওয়া যায় ১৯৬১ সালে। 

বিগত ৫৮ বছরে বিশ্বে মাত্র ৪৩ জন মানুষের মধ্যে এই ‘আরএইচ-নাল’ গ্রুপের রক্ত বা ‘গোল্ডেন ব্লাড’-এর অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। এই ৪৩ জনের মধ্যে ৯ জন নিয়মিত রক্ত দান করেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, যাদের শরীরে ‘আরএইচ-নাল’ গ্রুপের রক্ত রয়েছে, তারা যে কোন গ্রুপের মানুষকেই রক্ত দিতে পারেন, তবে সবার থেকে রক্ত নিতে পারেন না। তাই চিকিৎসকদের মতে, যাদের শরীরে ‘আরএইচ-নাল’ গ্রুপের রক্ত রয়েছে, তাদের খুব সাবধানে জীবনযাপন করা জরুরি।