শুক্রবার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১৫ ১৪২৬   ০৪ রজব ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ দিয়েছেন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মশা যেন ভোট খেয়ে না ফেলে, নতুন মেয়রদের প্রধানমন্ত্রী তাপস-আতিককে শপথ পড়ালেন প্রধানমন্ত্রী আমার কাছে রিপোর্ট আসছে, কাউকে ছাড়ব না : প্রধানমন্ত্রী দ্বিতীয় কিস্তির ২৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা বিটিআরসিকে দিল রবি মাধ্যমিক পর্যন্ত বিজ্ঞান বাধ্যতামূলকের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ওপর নজরদারি বাড়াতে বললেন প্রধানমন্ত্রী বরগুনায় ওয়ারেন্ট ভুক্ত দুই আসামী গ্রেপ্তার আজকের স্বর্ণপদক প্রাপ্তরা ২০৪১ এর বাংলাদেশ গড়ার কারিগর যে কোন অর্জনের পেছনে দৃঢ় মনোবল এবং আত্মবিশ্বাস গুরুত্বপূর্ণ ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ পেলেন ১৭২ শিক্ষার্থী আজ ১৭২ শিক্ষার্থী প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পাচ্ছেন অশান্ত দিল্লিতে কারফিউ, নিহত ১৭ পিকে হালদারসহ ২০ জনের ব্যাংক হিসাব জব্দের আদেশ বহাল ৭ মার্চ জাতীয় দিবস ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় ১৪ দিনেই ভালো হচ্ছেন করোনা রোগী : আইইডিসিআর মুশফিক-নাঈমে ইনিংস ব্যবধানে দূর্দান্ত জয় টাইগারদের পিলখানা ট্র্যাজেডি দিবস আজ রিফাত হত্যা মামলার আসামি সিফাতের বাবা গ্রেফতার
৮৩

গ্রহণযোগ্যতার অভাবে রাজপথে দাঁড়ানোর সক্ষমতা হারিয়েছে বিএনপি!

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

সরকারবিরোধী আন্দোলনের ডাক দিয়ে, বক্তৃতা দিয়েও কর্মীদের রাজপথের আন্দোলনে নামাতে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি দিন দিন দলীয় ভঙ্গুরাবস্থার প্রমাণ দিচ্ছে। দীর্ঘ ২০ মাস ধরে দলটির নেত্রী কারাবন্দী থাকলেও কার্যকর কোন আন্দোলন গড়ে তুলতে পারেনি দলটি। মূলত কর্মীদের সমর্থন হারিয়ে ফেলায় বিএনপি নেতাদের বক্তৃতা, আন্দোলনের হুমকি রাজনীতিতে হাস্যরসের জন্ম দিচ্ছে।

বিএনপির বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থান ও নেতাদের বক্তৃতার গ্রহণযোগ্যতার বিষয়ে জানতে চাইলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা দলটি সম্পর্কে এমনটাই মন্তব্য করেছেন।

বিএনপির রাজনৈতিক অচলাবস্থার বিষয়ে জানতে চাইলে রাজনৈতিক বিশ্লেষক অধ্যাপক এ আরাফাত বলেন, আজ শুনলাম বিএনপি নেত্রীর উপদেষ্টা জয়নাল আবদীন ফারুক হুমকি দিয়েছেন যে, চেয়ারপারসনের কারামুক্ত করতে আন্দোলনের ডাক দিলে তা প্রতিহতের শক্তি বর্তমান সরকারের নেই। বিষয়টি আমার কাছে হাস্যকর মনে হয়েছে। আন্দোলন গড়ে তুলতে যৌক্তিক ও সত্য ইস্যু প্রয়োজন হয়। বেগম জিয়ার দুর্নীতি প্রমাণিত হওয়ায় তার সাজা হয়েছে। যা দলটির নেতা-কর্মীরাও জানেন। যার কারণে মিথ্যা ও অযৌক্তিক ইস্যুতে তারা আন্দোলনের নামে বিশৃঙ্খলায় জড়াতে চাচ্ছেন না।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির নেতা-কর্মীরা হর-হামেশা আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছেন। কথার ফুলঝুরি ঝরাচ্ছেন। লাভের লাভ কিছু হচ্ছে না। সত্যি বলতে, জনসম্পৃক্ততা নেই বিএনপির। যার কারণে আন্দোলনও গড়ে উঠছে না। রাজনীতিতে যখন আপনার প্রতারক চরিত্র উন্মোচিত হয়ে যায়, তখন আসলে বক্তৃতা, হুংকারই আপনার সম্বল। নীতি-নৈতিকতা হারিয়ে বিএনপির আজ সেই অবস্থাই হয়েছে। রাজপথে নামার যাদের সাহস নেই, তারাই কেবল বাক্যবাণে যুদ্ধে জড়াতে পারে।

এদিকে বিষয়টিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, রাজপথের কর্মসূচি না থাকায় আজকে বিএনপিকে নিয়ে নানা মুখরোচক গল্প সাজানো হচ্ছে। বলা হচ্ছে নেতারা মুখে আন্দোলনের ফেনা তুললেও সাংগঠনিকভাবে দলকে গোছাতে পারছেন না। কিছু প্রেক্ষাপটে এমন অভিযোগ সত্য। কারণ কিছু বিতর্কিত বিষয় নিয়ে বিএনপি আন্দোলনে প্রেক্ষাপট রচনার চেষ্টা করছে, যা জনমনে নানা প্রশ্নের উদ্রেক করছে। রাজনীতিতে হাসি-ঠাট্টা করাটা সমীচীন নয়। আশাকরি বিএনপির দুর্বলতা নিয়ে আর কেউ মশকরা করবেন না।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর