• মঙ্গলবার   ০২ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৯ ১৪২৭

  • || ১০ শাওয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ: তথ্যমন্ত্রী যেকোনো প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে এগিয়ে যেতে পারব: প্রধানমন্ত্রী সময় যত কঠিনই হোক দুর্নীতি ঘটলেই আইনি ব্যবস্থা: দুদক চেয়ারম্যান জেলা হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ ইউনিট স্থাপনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা বিশ্ব বদলে দিলেও বিএনপিকে বদলাতে পারেনি: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত ২৯১১ সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা খাদ্য উৎপাদন আরও বাড়াতে সব ধরনের প্রচেষ্টা চলছে: কৃষিমন্ত্রী সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩৮১ জনের করোনা শনাক্ত পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেন চলছে: রেলমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৪৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৪০ জন বাস ভাড়া যৌক্তিক সমন্বয়, প্রজ্ঞাপন আজই: ওবায়দুল কাদের এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবো না: প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে এসএসসির ফল প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল ১২টার পরিবর্তে ১১টায় প্রকাশ হবে এসএসসির ফল করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ২৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৭৬৪ পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কি.মি. দৃশ্যমান, বসল ৩০তম স্প্যান পদ্মা সেতুর ৩০তম স্প্যান বসছে আজ একদিনে সর্বোচ্চ আড়াই হাজার শনাক্ত, মৃত্যু ২৩ জনের
৪২

ঘূর্ণিঝড় আম্পান: বরগুনায় প্রস্তুত ৬১০টি আশ্রয় কেন্দ্র

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৯ মে ২০২০  

বরগুনা প্রতিনিধিঃ করোনা মহামারীর মধ্যে সমুদ্রে সৃষ্ট ঘুর্ণিঝড় আম্পান। ক’দিন পরেই ঈদ। এমন পরিস্থিতি সামলাতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে উপকূলীয় জেলা বরগুনা জেলা প্রশাসনকে। সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে সাইক্লোন শেল্টারে দুর্গতদের আশ্রয় প্রদানের জন্য জেলায় পাঁচশত নয়টি আশ্রয় কেন্দ্রের সাথে বাড়ানো হয়েছে আরও এক’শ একটি আশ্রয়কেন্দ্র। সবমিলিয়ে চয়’শ ১০টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রয়েছে। এছাড়াও ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় ইতোমধ্যেই জেলার ছয় উপজেলায় ২৫ লাখ টাকা ও ২০০মেট্রিকটন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে বরগুনার সাতটি স্থানে বেরিবাঁধ ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে যা মেরামতের জন্য পানি উন্নয়নবোর্ডের চারটি টিম গঠন করে দেয়া হয়েচে। জরুরি বিদ্যুৎ দ্রুততার সাথে সচল রাখতে বিদ্যুৎ বিভাগেও চারটি টিম গঠন করা হয়েছে। এছাড়া ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি (সিপিপি)-এর ছয় হাজার তিনশ ৩০ জন স্বেচ্ছাসেবী কর্মীসহ বিভিন্ন বিভাগের প্রায় সাড়ে সাত হাজার স্চ্ছোসেবী তাদের প্রাথমিক কাজ শুরু করেছেন। কৃষকের বিভিন্ন ফসল যেমন ধান, মুগ ডাল, তরমুজ, সূর্য্যমূখী এসব ফসলের শতকরা ৮০ ভাগই ঘরে তুলতে পেরেছে কৃষক। তবে ভুট্টো এবং চিনা বাদামের অধিকাংশই এখনও খেতে রয়ে গেছে। 
 

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের পূর্ববর্তী এবং পরবর্তী সময়ে পরিস্থিতি সামলাতে জেলা প্রশাসন থেকে প্রতিটি উপজেলায় একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দেয়া হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় করে তারা দায়িত্ব পালন করবেন দায়িত্বপ্রাপ্ত উপজেলায়।

জেলার ৪২টি ইউনিয়নে ৪২টি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। বিশেষ প্রস্তুতি রাখা হয়ে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালেও। 
মঙ্গলবার বরগুনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রবল গূর্ণিঝড়  ‘আম্পান’ মোকাবেলায় সার্বিক প্রস্তুতি ও ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী সময়ে করনীয় বিষয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান বরগুনার জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু, পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন. নৌবাহিনীর কমান্ডার ইমরাণসহ সংশ্লিষ্ট সকল সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।  

 

এদিকে বরগুনা জেলা ট্রলার মালিক সমিতিসূত্রে জানা গেছে, অধিকাংশ মৎস্য শিকারী ট্রলারই বঙ্গোপসাগর থেকে নিরাপদ উপকূলে ফিরে এসেছে। কিছু যা এখনও রয়েছে তাও সন্ধ্যা নাগাদ উপকূলে ফিরে আসবে। তবে নিষেধ অমান্য করেও কিছু কিছু ট্রলার এখনও দুবলার চর, আলোরকোন এবং সুন্দরবনের কিছু কিছু জায়গায় নিরাপদে আশ্রয় নিয়েছে যাতে আম্পান শেষ হওয়ামাত্র সাগরে জাল ফেলতে পারে। এসব ট্রলারগুলো হয়তো ঝুকিতেই থেকে যাবে।  বরগুনাসহ আশেপাশের উপজেলাগুলোতে বর্তমানে আকাশ হালকা মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে। 
 

বরগুনার আলো
বরগুনা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর