বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৩ ১৪২৬   ১৮ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
রিফাত হত্যা : পলাতক ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রোহিঙ্গা সংকট : ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসছে চীন-মিয়ানমার-বাংলাদেশ আমাদের কাজই হচ্ছে জনগণকে সেবা দেয়া : প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীন বাংলাদেশের পক্ষে: মোমেন আজ গাজীপুর যাবেন প্রধানমন্ত্রী পরিবেশ দূষণ: ৪ প্রতিষ্ঠানকে কোটি টাকা জরিমানা স্বর্ণজয়ী রোমান সানার মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী আরো দু’টি বোয়িং বিমান কেনার ইঙ্গিত দিলেন প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দির তথ্য ডাটাবেজে থাকবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: প্রধানমন্ত্রী অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী গরিবের ঘরবাড়ি গ্রাম যেন ভাঙা না হয়: প্রধানমন্ত্রী দুই মাসে এডিপি বাস্তবায়নের হার বেড়েছে ৪.৪৮ শতাংশ উদ্বোধনের দিনেই পদ্মাসেতুতে ট্রেন চলবে: রেলমন্ত্রী ৮ হাজার ৯৬৮ কোটি ৮ লাখ টাকার প্রকল্প একনেকে অনুমোদন ভারতীয় কোস্টগার্ড ডিজির সঙ্গে রীভা গাঙ্গুলির বৈঠক ইসির চুরি যাওয়া ল্যাপটপ উদ্ধার, আটক ৩ আজ মহান শিক্ষা দিবস প্রধানমন্ত্রী ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন আজ রোহিঙ্গা ভোটার: ইসি কর্মচারীসহ আটক ৩
৪০

চেন্নাইয়ে বাংলাদেশ জেএমবির আরেক শীর্ষ নেতা গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ভারতের চেন্নাই থেকে জঙ্গিগোষ্ঠী জামাতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ-জেএমবির আরেক শীর্ষ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে কলকাতার স্পেশ্যাল টাস্ক ফোর্স-এসটিএফ। তার নাম আসাদুল্লাহ শেখ ওরফে রাজা।

মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে চেন্নাইয়ের থোরিয়াপক্কনম এলাকায় একটি বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। কলকাতা পুলিশ জানিয়েছে, জেএমবির সক্রিয় সদস্য রাজার বাড়ি পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমানে। চেন্নাইয়ের ওই বাড়িতে তিন মাস ধরে ভাড়া ছিল সে।

এসটিএফ জানিয়েছে, আসাদুল্লাহ সংগঠনটির বীরভূমের জঙ্গি ইজাজের সমসাময়িক।খাগড়াগড় বিস্ফোরণ পরবর্তী সময়ে জেএমবি’র বীরভূম, বর্ধমান, মুর্শিদাবাদ মডিউলের সব সদস্যরা রাজ্য ছেড়ে দক্ষিণ ভারতের আশ্রয় নেয়। আত্মগোপণে থাকা সদস্যদের মধ্যে সেও ছিল। ইজাজের মতোই সেও মঙ্গলকোটের শিমুলিয়া মাদ্রাসায় প্রশিক্ষণ নেয়। পরবর্তীতে নিজেও প্রশিক্ষকের ভূমিকা পালন করে।

খাগড়াগড় পরবর্তী সময়ে পরিস্থিতি ঝিমিয়ে গেলে দলছুট হয়ে যাওয়া সদস্যদের এক করতে মাঠে নামে কাওসার ও সংগঠনের নিউক্লিয়াস খ্যাত সালাউদ্দিন। সেই সূত্র ধরেই ফের সংগঠনের সক্রিয় হন আসাদুল্লাহ। জঙ্গি কাওসারের পরিকল্পনামাফিক বুদ্ধগোয়ায় বিস্ফোরণের জন্য সদস্য তৈরি করা তাদের প্রশিক্ষণ দেয়ার কাজ করছিল আসাদুল্লাহ।

চেন্নাইয়ে আত্মগোপনে থাকলেও পশ্চিমবঙ্গে কয়েক মাস আগে এসেছিল সে। পুরনো কয়েকটি ঘাঁটিতে গিয়ে সে সংঘঠনের কয়েকজনের সাথেও দেখাও করে। সম্প্রতি ইজাজের অন্যতম সহযোগী কাশেম আটকের পর ওঠে আসে আসাদুল্লাহ’র নাম। কাশেমের কাছ থেকে আসাদুল্লাহর চেন্নাইয়ের থাকার সন্ধান পান এসটিএফ।  গ্রেপ্তারের সময়ে ঘর থেকে তল্লাশি চালিয়ে বেশ কিছু নথি পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এই বিভাগের আরো খবর