বৃহস্পতিবার   ১৪ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ৩০ ১৪২৬   ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
কলকাতা টেস্ট দেখতে আমন্ত্রণ জানিয়ে শেখ হাসিনাকে মোদীর চিঠি কৃষি জমি রক্ষায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী চার বছরের মধ্যে দারিদ্র্র্যের হার কমবে : প্রধানমন্ত্রী আজ ঝালকাঠির দুই বিচারক হত্যা দিবস পিকেএসএফ উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী আয়কর মেলা: ১১৩ কোটি থেকে লক্ষ্যমাত্রা তিন হাজার কোটি টাকা রোহিঙ্গা নিপীড়নে এবার সুচি’র বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনায় মামলা টেস্ট বিশ্বকাপ অভিষেকে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ রোহিঙ্গা সমস্যার পেছনে জিয়াউর রহমানের হাত ছিল: প্রধানমন্ত্রী খেলাপি ঋণ অবশ্যই আদায় করা হবে: অর্থমন্ত্রী ধেয়ে আসছে ‘বুলবুলে’র চেয়েও ভয়ানক ঘূর্ণিঝড় ‘নাকরি’ দেশের কল্যাণে প্রয়োজনে বাবার মতো জীবন দেবো: শেখ হাসিনা বিমানে উড়ে বাংলাদেশ এল ২২৫টি গরু! দেশে রফতানি বাড়াতে দরকার পরিবহন খাতে উন্নয়ন: বিশ্বব্যাংক মা হারানো সেই শিশুর দায়িত্ব নিলেন উপমন্ত্রী শামীম মালয়েশিয়ায় বীমার আওতায় দুই লাখ বাংলাদেশি কর্মী আওয়ামী লীগে দূষিত রক্তের প্রয়োজন নেই: সেতুমন্ত্রী ঘুরে দাঁড়িয়ে দুর্দান্ত জয় বাংলাদেশের মেয়েদের শেখ হাসিনার নেতৃত্ব মানুষের দিন বদল হয়েছে-তথ্যমন্ত্রী ৭৫ পরবর্তীতে অনেকে উচ্ছিষ্টের লোভে দল ছেড়ে চলে গেছেন: নওফেল
৪১১

জঙ্গিবাদ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়বে ১৪ দল

প্রকাশিত: ২২ এপ্রিল ২০১৯  

খুনি, ঘুষখোর, দুর্নীতিবাজ, সন্ত্রাস, নারী নির্যাতনকারী, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম।

 

এ লক্ষ্যে আগামী ২৬ এপ্রিল (শুক্রবার) মতিঝিলে ১৪ দলের সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেন তিনি। নাসিম বলেন, সব অপকর্মের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের নেতারা মাঠে নেমেছেন। শুধু বিএনপির বিরুদ্ধে নয়, এদের বিরুদ্ধেও সবাইকে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আজ সোমবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে ১৪ দল আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন নাসিম। ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এ সদস্য।

নাসিম বলেন, হাইব্রিডরা দলের অনেক ক্ষতি করছে। এরা বিএনপি-জামায়াতের প্রেতাত্মা। তা না হলে একজন হত্যাকারীকে আশ্রয় প্রশ্রয় দিতে পারে। এমন দু’একজনের জন্য আমাদের সব অর্জন নষ্ট হতে দিতে পারি না। ফেনীর ঘটনায় একজন ওসি কিভাবে খুনিদের আশ্রয় দেয়। এসব কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। এভাবে চলতে দেওয়া যায়না।
 
এ সময় বিএনপিকে সংসদে আসার আহ্বান জানিয়ে নাসিম বলেন, আগামী ৩০ এপ্রিল বিএনপির সংসদ সদস্যদের শপথ নেওয়ার শেষ সময়। এর মধ্যে শপথ না নিলে তারা আমছালা দু’টোই হারাবে। আমি তাদের বলবো সংসদে এসে আমাদের সমালোচনা করুন, ভুল ত্রুটি ধরিয়ে দিন। এ সুযোগ নষ্ট করবেন না।

সভায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী বলেন, বিএনপি বিভিন্ন জাতীয় দিবস পালন না করে, জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করে ইতিহাস অস্বীকার করতে চায়। যারা জাতীয় দিবসগুলো পালন করে না তারা কি করে স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে? 

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা কিভাবে হবে তা চিকিৎসকরা নির্ধারণ করবেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, দলের নেতারা কেন খালেদা চিকিৎসার ব্যাপারে জনগণকে বিভ্রান্ত করছেন। কিছুদিনের জন্য কিছু মানুষকে বিভ্রান্ত করা যায়, কিন্তু চিরদিনের জন্য সব মানুষকে বিভ্রান্ত করা যায় না।

ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেন, আজ বিএনপি-জামায়াতকে কোণঠাসা করতে পেরেছি কিন্তু রাজনৈতিকভাবে পুরোপুরি পরাজিত করতে পারিনি। আজ উগ্রসাম্প্রদায়িক শক্তি মাথা চাড়া দিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে। একটা প্রবাদ আছে, তোমারে বধিবে যে, গোকুলে বাড়িছে সে। এরা গোকুলে বাড়ছে। উগ্রসাম্প্রদায়িক শক্তি শ্রীলঙ্কায় হামলা করেছে। এদেশকে আমরা এই ধ্বংসের কিনারায় ঠেলে দেবো কিনা আজ আমাদের ভাবতে হবে।

জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেন, যারা মুজিবনগর দিবস পালন করে না তারা পাকিস্তানের দালাল। পাকিস্তানপন্থি বিএনপি মুজিবনগর দিবসকে অস্বীকার করে। জামায়াত ও জঙ্গিবাদকে এই বিএনপি পৃষ্ঠপোষকতা করে। এই বিএনপি-জামায়াত রাজনৈতিক মঞ্চ থেকে বিতারিত না হলে গণতন্ত্র মজবুত হবে না। এদেরকে রাজনীতির মঞ্চ থেকে চিরতরে বিদায় জানাতে হবে। এদের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে, ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।  

আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, যারা ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবস পালন করে না তারা স্বাধীনতার পক্ষের বা স্বাধীনতা বিশ্বাস করে, এটা আমার বিশ্বাস হয় না। হঠাৎ করে স্বাধীনতার প্রেক্ষাপট তৈরি হয়নি। দীর্ঘ ২৩ বছর ধরে এই প্রেক্ষাপট বঙ্গবন্ধু তৈরি করেছিলেন। কেউ কেউ বলেন প্রথম রাষ্ট্রপতি নাকি জিয়াউর রহমান। ওদের প্রতি ধিক্কার জানাতে হয়। যারা এই রাজনীতি করে তাদের প্রতি ধিক্কার ও করুণা জানাই।

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরিফ নুরুল আম্বিয়া, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাৎ হোসেন, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরিণ আক্তার, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ। 

এই বিভাগের আরো খবর