• বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২২ ১৪২৮

  • || ২২ রমজান ১৪৪২

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
করোনা প্রাণ নিল আরও ৫০ জনের, নতুন শনাক্ত ১৭৪২ ধান-চাল ক্রয়ের জন্য অত্যন্ত যৌক্তিক দাম নির্ধারণ: কৃষিমন্ত্রী শপিংমল খোলা রাত ৮টা পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় আরো ১০ জন গ্রেফতার করোনায় একদিনে আরও ৬১ জনের মৃত্যু জুনায়েদ আল হাবিব আরও ৪ দিনের রিমান্ডে নাশকতার মামলায় ফের ৫ দিনের রিমান্ডে মামুনুল হক জামায়াত-শিবিরের ৮ নেতাকর্মী আটক করোনায় প্রাণ গেল আরও ৬৫ জনের, শনাক্ত ১৭৩৯ ‘লকডাউন’ বাড়লো ১৬ মে পর্যন্ত অর্থবিত্তে বড় হলেও সত্য সংবাদ পরিবেশন হওয়া উচিত: তথ্যমন্ত্রী জনস্বার্থে মামলার নামে জনমনে ভীতি ছড়াবেন না: হাইকোর্ট মাদারীপুরে নৌ দুর্ঘটনায় নিহত বেড়ে ২৬ দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে মৃত ৬৯ যত টাকাই লাগুক, আমরা আরো ভ্যাকসিন নিয়ে আসবো: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর স্ট্রাকচারের কাজ শেষ হয়েছে : কাদের সব কোর্ট খুললে সংক্রমণ বাড়বে: প্রধান বিচারপতি এবার মামুনুলের ২৪ দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ খুবই মারাত্মক: প্রধানমন্ত্রী সব সময় দুর্গত মানুষের পাশে থাকে আওয়ামী লীগ: প্রধানমন্ত্রী

জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমিরের ১০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১১ এপ্রিল ২০২১  

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) ভারপ্রাপ্ত আমির রেজাউল হক ওরফে রেজা ওরফে তানভীর মাহমুদ ওরফে শিহাব আহনাফের ১০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ।

রোববার (১১ এপ্রিল) ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসামি রেজাউল হককে হাজির করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের পরিদর্শক রাইছুল ইসলাম ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন। মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মইনুল ইসলামের আদালতে আজই রিমান্ড আবেদনের শুনানি হবে।

আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন (জিআর) শাখা এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। শনিবার (১০ এপ্রিল) বিকেলে বিশেষ অভিযান চালিয়ে রাজধানীর বাড্ডা থেকে রেজাউল হক ওরফে রেজাকে গ্রেপ্তার করা হয়। বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেন কাউন্টার টেররিজম এন্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপের বম্ব ডিসপোজাল টিমের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মোহাম্মদ রহমত উল্যাহ চৌধুরী।

তিনি বলেন, রেজাউল হক জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমির। তিনি জেএমবির একমাত্র সুরা সদস্য। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সফরের মাধ্যমে তিনি সদস্য সংগ্রহের কাজ করে আসছিলেন। জেএমবির ফান্ডের তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্ব পালন করতেন তিনি। এছাড়া রেজাউল ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে সদস্যদের মধ্যে উগ্রবাদী বক্তব্য প্রচার করে আসছিলেন।

এডিসি রহমত উল্যাহ বলেন, তার বিরুদ্ধে ভাটারা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে একটি মামলার তদন্ত চলছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে জিআরপি ও বিমানবন্দর থানার দুটি মামলা আদালতে বিচারাধীন।

সিটিটিসি সূত্র জানিয়েছে, জেএমবির আরেক পলাতক শীর্ষ নেতা সালাহউদ্দীন সালেহীনের নির্দেশে বাংলাদেশে জেএমবির কার্যক্রম পরিচালনা করছিলেন রেজাউল। এছাড়া ২০০৫ সালে সারাদেশে ঘটে যাওয়া সিরিজ বোমা হামলার অন্যতম আসামি তিনি। ২০০৭ সালে জামিনে বের হয়ে আবারও সক্রিয় হয়ে ওঠেন রেজাউল।

বরগুনার আলো