রোববার   ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১১ ১৪২৬   ২৮ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
পতাকার মর্যাদা ধরে রাখতে সেনা সদস্যদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান জুয়ার আসর থেকে আটক ২৬ দুই ইউনিভার্সিটিকে ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা দৃশ্যমান পদ্মা সেতুর পৌনে চার কিলোমিটার সারা দেশে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত ইংরেজি উচ্চারণে বাংলা বলার সমালোচনা প্রধানমন্ত্রীর উন্নত দেশ গড়তে বেসরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুজিববর্ষে বিএনপিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে: কাদের ভণ্ডপীরসহ ৯ জনের কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রী সব সময় শিক্ষাকে গুরুত্ব দেন: পরিকল্পনামন্ত্রী মুজিব বর্ষে নতুন শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী আসন্ন সেচ মৌসুমে লোডশেডিংয়ের শঙ্কা নেই : বিদ্যুৎ বিভাগ একুশে পদক হাতে তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস শুক্রবার একুশে পদক মেধা ও মনন চর্চার ক্ষেত্র সম্প্রসারিত করবে : রাষ্ট্রপতি আজ একুশে পদক প্রদান করবেন প্রধানমন্ত্রী এনামুল বাছিরের পদোন্নতির আবেদন হাইকোর্টে খারিজ ডাকঘর সঞ্চয়ের সুদহার পুনর্বিবেচনা করা হবে : অর্থমন্ত্রী মুঠোফোন প্রতারক জিনের বাদশা গ্রেফতার করোনাভাইরাস নিয়ে গুজবে কান দিবেন না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী
১২২

ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে ওষুধ ছাড়াই!

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০১৯  

শীতকাল শুরু হতে না হতেই শরীরে বাসা বাঁধে ঠাণ্ডাজনিত অসুখ। আবহাওয়ার পরিবর্তনের সঙ্গে শরীরের খাপ খাওয়াতে না পেরেই এসব অসুখের সৃষ্টি। তাইতো দেখা যায় পুরো শীত জুড়ে সর্দি-কাশি লেগেই থাকে।

তাই এ সময় সামান্য অবহেলা বা অসতর্কতা থেকেই সর্দি-কাশির প্রকোপ বাড়ে। হাঁচি, কাশি সঙ্গে মাথা যন্ত্রণা, চোখ-নাক দিয়ে পানি পড়া শীতের খুবই স্বাভাবিক সমস্যা। এই সমস্যাগুলোর হাত থেকে ওষুধ ছাড়াই খুব সহজে রেহাই পাওয়া সম্ভব। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেই উপায়গুলো-    
 
দারুচিনি
রান্নার স্বাদ বাড়াতে দারুচিনির তুলনা নেই। রান্না ছাড়াও ঠাণ্ডা লাগা কমাতে দারুচিনি ব্যবহার হয়। এটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সৃষ্টি করতে পারে। কয়েক টুকরো দারুচিনি গরম পানিতে দিয়ে তা ফুটিয়ে প্রতিদিন পান করুন। এতে বুকে কফের সমস্যা থাকলেও তা কমে যাবে। এমন কি সাইনাস ও মাইগ্রেনের সমস্যাও কিছুদিনের মধ্যে কমে যাবে।

মরিচ চা
মরিচে পিপারিন রয়েছে। এটি শরীরের রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়া গোল মরিচ অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টও। গলা বসে যাওয়া, নাক বন্ধ ইত্যাদি সমস্যা থেকে আরাম দেয় এই পানীয়। অপরদিকে ঠাণ্ডার সঙ্গে লড়াই করার ক্ষমতারও বাড়ায় এই গোল মরিচ। এই শীতে চায়ের সঙ্গে মিশিয়ে নিন এই গোল মরিচ। শীতে প্রতিদিন মরিচ চা খেলে শরীর থাকবে সুস্থ্য।

আদা, লেবু ও মধু
আদায় রয়েছে জিঞ্জারল, জিঞ্জারন। এ দুটি উপাদান অ্যান্টিইনফ্লেমটরি ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। ঠাণ্ডা লাগা থেকে বাঁচতে খুবই কাজে আসে আদা। এক কাপ পানিতে আদা কুঁচি দিয়ে ফুটিয়ে নিন। এতে যোগ করুন লেবুর রস ও মধু। লেবু ও মধু দুই-ই প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। নিয়ম করে খালি পেটে এই পানীয় খেলে শীতের অসুখের হাত থেকে তো রক্ষা পাবেন। পাশাপাশি শরীরে জমে থাকা টক্সিন দূর করবে সহজেই।

বরগুনার আলো