মঙ্গলবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ২ ১৪২৬   ১৭ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
উদ্বোধনের দিনেই পদ্মাসেতুতে ট্রেন চলবে: রেলমন্ত্রী ৮ হাজার ৯৬৮ কোটি ৮ লাখ টাকার প্রকল্প একনেকে অনুমোদন ভারতীয় কোস্টগার্ড ডিজির সঙ্গে রীভা গাঙ্গুলির বৈঠক ইসির চুরি যাওয়া ল্যাপটপ উদ্ধার, আটক ৩ আজ মহান শিক্ষা দিবস প্রধানমন্ত্রী ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন আজ রোহিঙ্গা ভোটার: ইসি কর্মচারীসহ আটক ৩ রিফাত-মিন্নির নতুন ভিডিও, বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য ‘বিজ্ঞান-প্রযুক্তির বিকাশ ছাড়া দেশ উন্নয়ন করা সম্ভব নয়’ রোহিঙ্গা ভোটার খতিয়ে দেখতে চট্টগ্রামে কবিতা খানম আগামী ১০মাসের রোডম্যাপ তৈরি ও তার বাস্তবায়ন করবো - জয় ও লেখক ডেঙ্গুতে সরকারি হিসেবে ৬৮ জনের মৃত্যু আ. লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা ১৮ সেপ্টেম্বর বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপের জন্মদিন আজ আজ থেকে ট্রাকে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি বিশ্ব ওজন দিবস আজ শিগগিরই বন্দর-ট্রেনে যুক্ত হচ্ছে ত্রিপুরা-বাংলাদেশ দিল্লিতে শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক ৫ অক্টোবর সারাদেশে ৭৫ প্রতিষ্ঠানকে পাঁচ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ

ডিসি ও ইউএনওদের গাড়ির তেল খরচ বাড়াল সরকার

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

মাঠ প্রশাসন পর্যায়ের শীর্ষ দুই কর্মকর্তার গাড়ির জ্বালানি খরচ বাড়িয়েছে সরকার। ডিসি ও ইউএনওরা তাঁদের গাড়িতে ব্যবহারের জন্য সর্বোচ্চ ২৫০ লিটার করে জ্বালানি তেল পাবেন। তবে যেসব ইউএনওর উপজেলায় ইউনিয়নের সংখ্যা ১৬টির বেশি, শুধু তাঁরাই ডিসিদের সমান জ্বালানি খরচ পাবেন। আগে ডিসিরা পেতেন ২০০ লিটার এবং ইউএনওরা পেতেন ১৮০ লিটার।

উপজেলা ও জেলা সদরে বিভিন্ন সভা, কর্ম এলাকা পরিদর্শন এবং অন্যান্য সরকারি কাজে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করতে হয় ডিসি ও ইউএনওদের। এর বাইরে প্রটোকলের কাজেও সরকারি গাড়ির ব্যবহার আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। এসব কারণ উল্লেখ করে কয়েক বছর ধরে ডিসি সম্মেলনে ডিসি ও ইউএনওদের গাড়ির জ্বালানি খরচ বাড়ানোর জন্য প্রস্তাব এসেছে। এর মধ্যে ডিসিরা তাঁদের প্রয়োজনমতো তেল খরচ চেয়েছেন। সেই সঙ্গে ইউএনওদের জন্য দ্বিগুণ জ্বালানি খরচের চাহিদা দেওয়া হয়েছিল। এর পরিপ্রেক্ষিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ডিসি ও ইউএনওদের জ্বালানি তেল ব্যবহারের নতুন সিলিং বেঁধে দিল।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, নতুন জারি করা প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী সব ডিসিই ২৫০ লিটার পর্যন্ত তেল খরচ নিতে পারবেন। তবে ইউএনওদের জন্য তিনটি সিলিং করা হয়েছে।

নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, যেসব উপজেলার ইউনিয়নসংখ্যা ১০টি বা তার কম সেসব উপজেলায় জ্বালানি তেলের বরাদ্দ ১৮০ লিটারের জায়গায় ২১০ লিটার পেট্রল বা অকটেন। তবে কেউ যদি গ্যাস ব্যবহার  করেন তাহলে তার পরিমাণ হবে সর্বোচ্চ ৩০০ ঘনমিটার।

উপজেলায় ইউনিয়নের সংখ্যা ১১ থেকে ১৫টি হলে সেসব উপজেলার জন্য জ্বালানি তেলের বরাদ্দ ২৩০ লিটার, গ্যাস নিলে ৩২৮ ঘনমিটার। আর ১৬টির বেশি ইউনিয়ন হলে সেসব উপজেলার ইউএনওদের জন্য তেলের বরাদ্দ হবে ২৫০ লিটার পেট্রল বা অকটেন। গ্যাসের ক্ষেত্রে ৩৫৮ ঘনমিটার।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রথমে বিভাগীয় কমিশনার ও ডিসিদের গাড়ির জ্বালানি তেলের খরচ বাড়িয়েছিল সরকার। পরবর্তী সময়ে আলাদা প্রজ্ঞাপনে বিভাগীয় কমিশনারদের জন্য বাড়তি বরাদ্দ বাতিল করা হয়। একই সঙ্গে ইউএনওদের জন্য বরাদ্দ বাড়ানোর আদেশ জারি করা হয়।

জ্বালানি তেল খরচ বাড়ানো প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, মূলত ডিসি ও ইউএনওদেরই জেলা-উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় বেশি চলাচল করতে হয়। তাই তাঁদের জ্বালানি খরচ বাড়ানো হয়েছে। তিনি বলেন, বিভাগীয় কমিশনারদের জ্বালানি খরচের বিষয়টি এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তাই তাঁদের আগের জ্বালানি খরচ, অর্থাৎ মাসে সর্বোচ্চ ২০০ লিটার ব্যবহারের নিয়ম বহাল রাখা হয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর