শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১১ ১৪২৬   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
নাসিরুদ্দিন শাহ ও অনুপম খেরের বাকযুদ্ধ আকাশ থেকে মোবাইলে পদ্মাসেতুর ছবি তুললেন প্রধানমন্ত্রী চীনের রহস্যময় ভাইরাস বাদুড় ও সাপ হয়ে মানবদেহে! `শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণে পরিচয় দিতে গর্ববোধ করি` এত গুণ পুদিনা পাতার? হাঁসের মাংসের কালিয়া দেশ গঠনে ক্যাডেটদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে-সেনাপ্রধান মুজিববর্ষ ঘিরে বিদেশিদের মধ্যেও আগ্রহ বাড়ছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পাখি মেলা শিক্ষার অন্যতম উদ্দেশ্য মানবসম্পদ তৈরি: শিক্ষা সচিব মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের লক্ষ্যেই আ’লীগ কাজ করে যাবে-শেখ হাসিনা সোলেইমানি হত্যার নিন্দা জানানোয় কসোভোতে নারীর কারাদণ্ড বরিশাল বোর্ডে এসএসসিতে অনিয়মিত পরীক্ষার্থী ২১ শতাংশ টুঙ্গিপাড়া যাত্রায় টোল পরিশোধ করলো আওয়ামী লীগ বিক্ষোভে জনসমুদ্র বাগদাদ, স্লোগানে কাঁপছে রাজপথ বিএনপি ভোট কারচুপির রাজত্ব সৃষ্টি করেছিল বলেই ইভিএম আনা হয়েছে বরগুনায় জেলেদের জালে ধরা পড়লো ৪শ কেজি ওজনের শাপলাপাতা মাছ বৈশ্বিক স্বাস্থ্যে এখনো ঝুঁকি নয় করোনা ভাইরাস: ডব্লিউএইচও সাকিবকে ছাড়িয়ে নতুন রেকর্ড গড়লেন তামিম বাবার কবরের পাশে বসে প্রধানমন্ত্রীর কোরআন তেলাওয়াত

ডিসি ও ইউএনওদের গাড়ির তেল খরচ বাড়াল সরকার

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

মাঠ প্রশাসন পর্যায়ের শীর্ষ দুই কর্মকর্তার গাড়ির জ্বালানি খরচ বাড়িয়েছে সরকার। ডিসি ও ইউএনওরা তাঁদের গাড়িতে ব্যবহারের জন্য সর্বোচ্চ ২৫০ লিটার করে জ্বালানি তেল পাবেন। তবে যেসব ইউএনওর উপজেলায় ইউনিয়নের সংখ্যা ১৬টির বেশি, শুধু তাঁরাই ডিসিদের সমান জ্বালানি খরচ পাবেন। আগে ডিসিরা পেতেন ২০০ লিটার এবং ইউএনওরা পেতেন ১৮০ লিটার।

উপজেলা ও জেলা সদরে বিভিন্ন সভা, কর্ম এলাকা পরিদর্শন এবং অন্যান্য সরকারি কাজে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করতে হয় ডিসি ও ইউএনওদের। এর বাইরে প্রটোকলের কাজেও সরকারি গাড়ির ব্যবহার আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। এসব কারণ উল্লেখ করে কয়েক বছর ধরে ডিসি সম্মেলনে ডিসি ও ইউএনওদের গাড়ির জ্বালানি খরচ বাড়ানোর জন্য প্রস্তাব এসেছে। এর মধ্যে ডিসিরা তাঁদের প্রয়োজনমতো তেল খরচ চেয়েছেন। সেই সঙ্গে ইউএনওদের জন্য দ্বিগুণ জ্বালানি খরচের চাহিদা দেওয়া হয়েছিল। এর পরিপ্রেক্ষিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ডিসি ও ইউএনওদের জ্বালানি তেল ব্যবহারের নতুন সিলিং বেঁধে দিল।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, নতুন জারি করা প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী সব ডিসিই ২৫০ লিটার পর্যন্ত তেল খরচ নিতে পারবেন। তবে ইউএনওদের জন্য তিনটি সিলিং করা হয়েছে।

নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, যেসব উপজেলার ইউনিয়নসংখ্যা ১০টি বা তার কম সেসব উপজেলায় জ্বালানি তেলের বরাদ্দ ১৮০ লিটারের জায়গায় ২১০ লিটার পেট্রল বা অকটেন। তবে কেউ যদি গ্যাস ব্যবহার  করেন তাহলে তার পরিমাণ হবে সর্বোচ্চ ৩০০ ঘনমিটার।

উপজেলায় ইউনিয়নের সংখ্যা ১১ থেকে ১৫টি হলে সেসব উপজেলার জন্য জ্বালানি তেলের বরাদ্দ ২৩০ লিটার, গ্যাস নিলে ৩২৮ ঘনমিটার। আর ১৬টির বেশি ইউনিয়ন হলে সেসব উপজেলার ইউএনওদের জন্য তেলের বরাদ্দ হবে ২৫০ লিটার পেট্রল বা অকটেন। গ্যাসের ক্ষেত্রে ৩৫৮ ঘনমিটার।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রথমে বিভাগীয় কমিশনার ও ডিসিদের গাড়ির জ্বালানি তেলের খরচ বাড়িয়েছিল সরকার। পরবর্তী সময়ে আলাদা প্রজ্ঞাপনে বিভাগীয় কমিশনারদের জন্য বাড়তি বরাদ্দ বাতিল করা হয়। একই সঙ্গে ইউএনওদের জন্য বরাদ্দ বাড়ানোর আদেশ জারি করা হয়।

জ্বালানি তেল খরচ বাড়ানো প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, মূলত ডিসি ও ইউএনওদেরই জেলা-উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় বেশি চলাচল করতে হয়। তাই তাঁদের জ্বালানি খরচ বাড়ানো হয়েছে। তিনি বলেন, বিভাগীয় কমিশনারদের জ্বালানি খরচের বিষয়টি এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তাই তাঁদের আগের জ্বালানি খরচ, অর্থাৎ মাসে সর্বোচ্চ ২০০ লিটার ব্যবহারের নিয়ম বহাল রাখা হয়েছে।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর