• শনিবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১১ ১৪২৭

  • || ০৮ সফর ১৪৪২

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
মেহেরপুরে ‘আল্লাহর দল’র সক্রিয় সদস্য আটক করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৬৬ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৮, শনাক্ত ১৫৫৭ মসজিদে বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪ ধর্ষণ মামলায় ভিপি নুর গ্রেফতার আইসিটি মামলায় আলাউদ্দিন জিহাদী এক দিনের রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪০, শনাক্ত ১৭০৫ গাড়িচালক মালেক ১৪ দিনের রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৬, শনাক্ত ১৫৪৪ গভীর সমুদ্র থেকে ৫ লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার, আটক ৭ ব্যাংকটা যেন ভালোভাবে চলে সেদিকে দৃষ্টি দিবেন: প্রধানমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণে মৃত্যু বেড়ে ৩৩ আহমদ শফী কওমি শিক্ষার আধুনিকায়নে ভূমিকা রেখেছেন: প্রধানমন্ত্রী না.গঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩২ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৬, শনাক্ত ১৫৯৩ সরকার ওজোনস্তর রক্ষায় কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে: পরিবেশ মন্ত্রী শামুকের পাশাপাশি ঝিনুকও সংরক্ষণ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪৩, শনাক্ত ১৭২৪ পাটকল শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধের কার্যক্রম শুরু তুরস্কে বাংলাদেশ চ্যান্সারি ভবন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
৯৮

তাবিথের উপর হামলা নিয়ে রহস্যের ধুম্রজাল সৃষ্টি !

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২১ জানুয়ারি ২০২০  

প্রচারণাকালে ঢাকা উত্তরের বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর গাবতলীর আনন্দনগর তেল মিল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হামলায় তাবিথ আউয়াল সামান্য আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে, হামলার ঘটনাটি নিয়ে বিভিন্ন মহলে গভীর ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ‘‘সকাল থেকেই ওই এলাকায় কিছু নতুন মুখের ব্যক্তিকে সন্দেহজনকভাবে ঘোরাফেরা করতে দেখা গিয়েছিল। তাবিথ আউয়াল ওই এলাকার প্রবেশের আগে, সকাল ১০ টার দিকে সেই লোকগুলোকে স্থানীয় বিএনপি ও যুবদলের নেতাদের সাথে কথা বলতে দেখা যায়। একটি চায়ের দোকানে বসে বেশ কিছু সময় তারা চা সিগারেট খেয়েছিল।’’

আনন্দনগর তেলমিল এলাকার চা বিক্রেতা মো. হানিফ ও জাহাঙ্গীর জানান, ‘‘সকাল থেকে ঘোরাফেরা করা লোকগুলো বিএনপির মেয়র প্রার্থীর উপর হামলার সময় ঘটনাস্থলে ছিল। কিছুক্ষণ আগে যারা বিএনপি নেতাদের সাথে কথা বলেছিল, তারাই হামলার সময় আওয়ামীলীগ দলীয় বিভিন্ন শ্লোগান দেয়।’’

তাবিথের পক্ষে ঘটনাস্থলে প্রচারণায় থাকা গাবতলীর ওয়ার্ড যুবদল কর্মী ফয়েজুল, জামিল ও মো. হায়দার জানান, ‘‘হামলাকারীদের সাথে বহিস্কৃত স্থানীয় যুবদল নেতা কামাল ওরফে ‘ককটেল কামাল’র সম্পর্ক থাকতে পারে। কামালকে গ্রেফতার করলে আসল সত্য জানা যাবে। আমরা হামলার ঘটনার তিব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’’

এ বিষয়ে স্থানীয় বিএনপির একজন নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘‘কারা হামলা চালিয়েছে তা আমরা এখনো বুঝতে পারছি না। হামলাকারীরা আওয়ামীলীগের নাকি বিএনপি’র এটা জানতে একটু সময় লাগবে। বিএনপির কেউ যদি এমন হামলা চালিয়ে থাকে তবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’’

হামলার ঘটনা খুবই ন্যাক্কার জনক উল্লেখ করে স্থানীয় সরকার নির্বাচন বিশেষজ্ঞ এ্যাড. আমির মাহমুদ কোরেশী বলেন, ‘‘এ ধরণের হামলা সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের অন্তরায় হয়ে দাঁড়াতে পারে। ইতোপূর্বে আমরা দেশের বিভিন্ন স্থানে দেখেছি, বিশেষ ফায়দা লুটার জন্য জামায়াত-শিবিরের নেতা কর্মীরা পরিকল্পনা মাফিক জয় বাংলা শ্লোগান দিয়ে বিএনপির উপর হামলা চালিয়েছে। সরকার ও আওয়ামীলীগকে বিব্রত করতে শ্লোগান ব্যবহার করে এ ধরণের হামলা তারা চালাতে পারে। গাবতলীর হামলাও অনেকটা একই ধাঁচের।’’ সঠিক তদন্তপূর্বক দোষীদের গ্রেফতারের দাবি জানান তিনি।

বরগুনার আলো
রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর