রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৬ ১৪২৬   ২২ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ক্যাসিনো মালিকদের গল্প প্রয়োজনে ঋণ নেব, তবু ডোনেশন নয়-পরিকল্পনামন্ত্রী খেলাধুলার বিকল্প নেই: সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী কুরআনের ১০০ নির্দেশনা গ্রানাদার কাছে বার্সার পরাজয় চলমান অভিযান জনমনে প্রত্যাশার সৃষ্টি করবে: টিআইবি ৪০ কোটি টাকা নিয়ে পালানো সেই টার্কি বাবলু স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার নারায়ণগঞ্জে পুলিশের ওপর হামলা, গুলিবিদ্ধ ১ ৪ দিনের সফরে ঢাকায় ভারতের নৌবাহিনী প্রধান ধোনির বাড়িতে প্রতিদিন লোডশেডিং, বিরক্ত স্ত্রী আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী পদোন্নতি না নিলে শাস্তি ব্যক্তিগত গাড়ির ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে হবে : রাষ্ট্রপতি পাঁচ বছর আফগানিস্তানকে হারাল বাংলাদেশ ভূতের আড্ডায় অভিযান, বাতি জ্বালাতেই অপ্রীতিকর দৃশ্য কথাসাহিত্যিক শরদিন্দুর প্রয়াণ বিষাক্ত মদ পান করে ২ যুবকের মৃত্যু ঠাকুরগাঁওয়ের বাস কাউন্টারে মিলল মানুষের ৪ বস্তা খুলি ও হাড় রিফাত হত্যা মামলার আলামত আদালতে দাখিল, সাক্ষী ৭৫ কুমিল্লায় আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবাসহ যুবক আটক
১৮

তিন মাসে এক লাখ ভিডিও ডিলিট করল ইউটিউব

প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯  


  
ইউটিউব একটি ভিডিও আদান-প্রদান করার ওয়েবসাইট যা সবারই জানা। বর্তমান ইন্টারনেট জগতের একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট হলো ইউটিউব। এর সদস্যদের ভিডিও আপলোড, দর্শন আর আদান-প্রদানের সুবিধা দান করে আসছে  ভিডিও শেয়ারিং এ প্রতিষ্ঠানটি।

ইউটিউব এখন আরও তৎপর। কেননা, স্বচ্ছতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা বজায় রাখতে চায় জনপ্রিয় ওয়েবসাইটটি। এরই প্রেক্ষিতে চলতি বছরের গত এপ্রিল থেকে জুন মাস পর্যন্ত, এই তিন মাসে প্রায় ১ লাখ ভিডিও ডিলিট করে দিয়েছে এই সোশ্যাল সাইট।

এর আগেও সন্ত্রাস ও হিংসা দমনে  এমন উদ্যোগ নিয়েছিল ইউটিউব। তবে এবার আরও বেশি সতর্ক তারা। আর তাই আগের তুলনায় পাঁচগুণ বেশি অপ্রীতিকর-হিংসাত্মক ভিডিও নামিয়ে নিয়েছে ইউটিউব। বহু ইউটিউব চ্যানেলও ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে। দ্বিগুণ পরিমাণ আপত্তিকর, বর্ণবিদ্বেষমূলক কমেন্টও মুছে ফেলা হয়েছে। 

ইউটিউবের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, তারা মোট এক লাখ এমন ভিডিও খুঁজে পেয়েছে, যেখানে উসকানিমূলক কথা বার্তা রয়েছে। যা সমাজে সম্প্রীতির ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। সাধারণ মানুষকে ভুল পথে চালিত করতে পারে এইসব ভিডিও। এ কারণেই তা সরিয়ে ফেলা হয়েছে। ১৭ হাজার এমন চ্যানেলও পাওয়া গিয়েছে, যা সন্ত্রাস ছড়িয়ে দেওয়ায় প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে মদত দেয়। ইউটিউবে আর তাদের কোনও অস্তিত্ব নেই। ৫০০ মিলিয়ন কমেন্টও ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থা।

সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট ফেসবুক যেমন অনেক ভুয়া প্রোফাইল এবং ভুয়া খবরের মাধ্যমে হিংসা ছড়াতে পারে এমন পেজ সরিয়ে দিয়েছে। এবার একই পথে হেঁটে আরও কঠোর হয়েছে ইউটিউব। সে সমস্ত ভিডিও এবং কমেন্ট কোম্পানির পলিসি ভেঙেছে, সেগুলিকেই মুছে ফেলা হচ্ছে।

ইউটিউব জানিয়েছে, এই ধরনের ভুয়া এবং উসকানিমূলক ভিডিও খুঁজে বের করতে একটি ইন্টেলিজেন্স ডেস্ক তৈরি করা হয়েছে। তারাই আপত্তিকর ভিডিও ডিলিট করার দায়িত্ব নিয়েছে। সেই সঙ্গে ইউটিউব চ্যানেলগুলিকে সতর্কও করা হচ্ছে যাতে ভবিষ্যতে তারা আর এ ঘটনা না ঘটায়। শিশু নিগ্রহ থেকে যৌন হেনস্তার ভিডিওর উপরও নানা নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে ইউটিউরে পক্ষ থেকে।