• সোমবার   ১৯ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৪ ১৪২৭

  • || ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
পরিপত্র জারি : ৭ মার্চকে ঐতিহাসিক দিবস ঘোষণা করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২১, শনাক্ত ১৬৩৭ জনগণের ভাষা বুঝে না বলেই বিএনপি ব্যর্থ: কাদের ৭ কার্যদিবসেই শিশু ধর্ষণ মামলার রায়, আসামির যাবজ্জীবন ২৫ টাকা কেজিতে আলু বিক্রি করবে টিসিবি: বাণিজ্যমন্ত্রী পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী ৩০ অক্টোবর সরকারের আশ্বাসে ইন্টারনেট-ডিশ সংযোগ ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত স্থগিত ইন্টারনেট-ক্যাবল টিভি বন্ধের সিদ্ধান্ত স্থগিত করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৩, শনাক্ত ১২০৯ ৬০ মিশনে দূতাবাস অ্যাপ চালু করা হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ সঠিক পথেই হাঁটছে: তাজুল ইসলাম করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬০০ টাঙ্গাইলে গণধর্ষণ মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড ভূমিহীনদের ২ শতাংশ জমি দেয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী টেকনাফে সমুদ্র থেকে বাংলাদেশি ৭ জেলে উদ্ধার করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩১, শনাক্ত ১৪৭২ পাপিয়া দম্পতির ২৭ বছরের কারাদণ্ড আইন সংশোধনে প্রধানমন্ত্রী নিজেই উদ্যোগ নিয়েছেন: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৪, শনাক্ত ১১৯৩ প্রয়োজনের বেশি কোন পয়সা এখন খরচ করা চলবে না: প্রধানমন্ত্রী

তোতলামো দূর করতে

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২২ মার্চ ২০২০  

কথা বলতে গিয়ে কি প্রায়ই কিছু শব্দের শুরুতেই হঠাৎ আটকে যাচ্ছে? এই সমস্যা কি দিনদিন বেড়েই চলেছে? উত্তর যদি হয় হ্যাঁ, তবে এটি তোতলামো জনিত সমস্যা। তোতলামোর সঠিক কারণ আজ পর্যন্ত অজানা।

সাধারণত তিন থেকে সাত বছরের বাচ্ছাদের মধ্যে তোতলামোর সমস্যা বেশি দেখা যায়। তবে অনেক বড়দের মধ্যেও এটা হয়ে থাকে। 

শিশুর যদি তোতলামোর সমস্যা থেকে থাকে, তাহলে এখন থেকেই সচেতন হোন। ছোট থেকেই কিছু ব্যায়ামের অভ্যাস গড়ে তুলুন, তোতলামো দূর হবে শিশু হবে আরও আত্মবিশ্বাসী। বড়রাও চেষ্টা করে দেখতে পারেন যারা তোতলামোর সমস্যায় রযেছেন। 


তোতলামো দূর করতে যা করতে হবে: 

জোরে জোরে বর্ণ উচ্চারণ করুন
স্পষ্ট উচ্চারণে অ, আ, ই, ঈ বা এ, বি, সি, ডি, ই জোরে জোরে বলার অভ্যাস করান। 

থামতে শিখুন

তোতলামো দূর করতে একবারে বড় বাক্য বলার অভ্যাস বাদ দিয়ে ছোট ছোট বাক্য বলতে হবে। একটা শব্দের পর একটু থেমে পরের শব্দটি উচ্চারণ করতে হবে। 


স্ট্র ব্যবহার

ঘরে-বাইরে যেখানেই পানীয় বা পানি যাই পান করা হোক স্ট্র ব্যবহার করলে দ্রুত তোতলামো কমে আসবে। 


গভীরভাবে নিঃশ্বাস 

পেট থেকে নিশ্বাস নিতে চেষ্টা করুন। নিঃশ্বাস কিন্তু গভীরভাবে নেবেন। কারণ পেট থেকে নিঃশ্বাস নিলে পেটের পেশি, স্নায়ুতন্ত্র সবই রিল্যাক্স হয়। ফলে তোতলামোর সমস্যা কমে।

কথা বলুন 
শিশুর হাতে মোবাইল ফোন বা টিভির রিমোট দিয়ে ব্যস্ত না রেখে নিজে কথা বলুন। শিশুকে সময় দিন। তাকে প্রতিটি কথা সুন্দর করে উচ্চারণ করতে শেখান। 


চেষ্টার পরও যদি তোতলামো না কমে, তবে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে হবে। 

বরগুনার আলো