বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৩ ১৪২৬   ১৮ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
রিফাত হত্যা : পলাতক ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রোহিঙ্গা সংকট : ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসছে চীন-মিয়ানমার-বাংলাদেশ আমাদের কাজই হচ্ছে জনগণকে সেবা দেয়া : প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীন বাংলাদেশের পক্ষে: মোমেন আজ গাজীপুর যাবেন প্রধানমন্ত্রী পরিবেশ দূষণ: ৪ প্রতিষ্ঠানকে কোটি টাকা জরিমানা স্বর্ণজয়ী রোমান সানার মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী আরো দু’টি বোয়িং বিমান কেনার ইঙ্গিত দিলেন প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দির তথ্য ডাটাবেজে থাকবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: প্রধানমন্ত্রী অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী গরিবের ঘরবাড়ি গ্রাম যেন ভাঙা না হয়: প্রধানমন্ত্রী দুই মাসে এডিপি বাস্তবায়নের হার বেড়েছে ৪.৪৮ শতাংশ উদ্বোধনের দিনেই পদ্মাসেতুতে ট্রেন চলবে: রেলমন্ত্রী ৮ হাজার ৯৬৮ কোটি ৮ লাখ টাকার প্রকল্প একনেকে অনুমোদন ভারতীয় কোস্টগার্ড ডিজির সঙ্গে রীভা গাঙ্গুলির বৈঠক ইসির চুরি যাওয়া ল্যাপটপ উদ্ধার, আটক ৩ আজ মহান শিক্ষা দিবস প্রধানমন্ত্রী ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন আজ রোহিঙ্গা ভোটার: ইসি কর্মচারীসহ আটক ৩
২৪০

দেশী বিদেশী ষড়যন্ত্র আর গুজবের মাঝেও সমৃদ্ধির পথে বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 

সময়ে সময়ে বাংলাদেশে বিভিন্ন গুজব ছড়িয়েছে। এসব গুজবের খেসারতে প্রাণও হারিয়েছেন বহু মানুষ। সাম্প্রদায়িক সহিংসতারও সৃষ্টি হয়েছে নানা সময়ে। রাজনৈতিক বা বিভিন্ন গোষ্ঠী এ গুজব ছড়িয়ে ফায়দা লুটিয়ে নেওয়ারও চেষ্টা করেছে। এদের লক্ষ্য, অস্থিরতা ও নৈরাজ্য সৃষ্টি করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলা।উন্নয়নের অগ্রগতি রুখতে স্বার্থান্বেষী মহল তৎপরতা চালাচ্ছে।তবে এসব গুজব আর ষড়যন্ত্র রোধে সরকার ছিলো কঠোর। বিভিন্ন সংস্থাকে ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে দেখা গেছে।

পদ্মা সেতুতে লাগবে শিশুর মাথা, নিখোঁজ হয়ে গেছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট, বেসিনে হারপিক ঢাললে মরবে এডিস মশা- এমন সব গুজব ছড়িয়েছে বাংলাদেশে৷ গুজবে কান দিয়ে জামায়াত নেতা সাঈদীকে চাঁদেও দেখেছিলেন কেউ কেউ৷ 

দেশী বিদেশী যত ষড়যন্ত্র আর গুজবঃ

রোহিঙ্গা ও আসাম ষড়যন্ত্র:

রোহিঙ্গাদের নিয়ে চলছে দেশ বিদেশে নানা ষরযন্ত্র।২০১৭ সালের আগস্টের দিকে যখন মিয়ানমার থেকে রোহিঙ্গারা দল বেধে বাংলাদেশে আসতে শুরু করে তখন তাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দিতে সরকারকে অনুরোধ জানিয়েছিলো যারা আজ তরাই ষরযন্ত্র করছে সরকারের বিরুদ্ধে।

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামে ১৯ লাখেরও বেশি মানুষকে নাগরিকত্ব বাতিল করে বাংলাদেশে পাঠানোর 

পায়তারা ষরযন্ত্র ছাড়া কিছুই নয়।

পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা:

পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজে মানুষের মাথা লাগবে বলে যে খবর রটে যায়৷ এরপর সেতু কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে সতর্কবার্তা দিয়ে জানান এটি গুজব৷ কিন্তু ততক্ষণে বিকারগ্রস্থ জনতার হাতে গণপিটুনিতে বহু মানুষের প্রাণ শেষ হয়েছে। 

ডেঙ্গু প্রতিরোধে হারপিক:

কমোডে বা বেসিনে হারপিক ও ব্লিচিং পাউডার ঢেলে এডিস মশা মারার একটি বার্তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। পরে বিশেষজ্ঞরা এটিকে গুজব বলে উড়িয়ে দেন। হারপিকের উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানও জানায়, এই তথ্যের কোনো সত্যতা নেই।

ছেলেধরা গুজব:

পদ্মাসেতুতে মানুষের মাথা লাগবে এমন গুজব ছড়িয়ে শিশুদের ধরে নেওয়া হচ্ছে বলে ‘ছেলেধরা’ গুজব ছড়িয়ে পড়ে। ছেলেধরা সন্দেহে কয়েকজনকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। পরে এ নিয়ে সতর্কবার্তা জারি করে সরকার। এই গুজব ছড়ানোর সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নত করে তাদের গ্রেপ্তার করে।

ভুয়া নোট:

এক পাশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং অন্য পাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের ছবি সম্বলিত নতুন ১০০ টাকার নোট বাজারে ছাড়া হয়েছে জানিয়ে সেই নোটের একটি ছবিও ছড়িয়ে যায় ফেসবুকে। পরে বাংলাদেশ ব্যাংক জানায় এই তথ্য ভুয়া।

মোটরযান আইন:

সংশোধনী মোটরযান আইন অনুযায়ী জরিমানার পরিমাণ সর্বোচ্চ এক হাজার গুণ পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে ফেসবুকে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। সরকারের তরফ থেকে এ বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে তা ঠিক নয় বলে জানানো হয়।

বিদ্যুৎ বন্ধ:

ছেলেধরা গুজবের রেশ না কাটতেই দেশের বিভিন্ন স্থানে তিনদিন বিদ্যুৎ বন্ধ রেখে বাচ্চাদের ধরে নিয়ে যাওয়া হবে বলে ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে গুজব ছাড়িয়ে পড়ে। পরে বিদ্যুৎ বিভাগ জানায়, এই খবরটি সঠিক নয়।

প্রিয়া সাহার ষড়যন্ত্র:

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার সংখ্যালঘু নির্যাতনের মনগড়া মিথ্যাচারের পুরো দেশ প্রতিবাদ জানালো।জানা যায়,কোনো বিশেষ মহলের স্বার্থ উদ্ধারে প্রিয়া সাহা এর আগেও বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছেন। ফলে নতুন করে ট্রাম্পের কাছে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশকে বিতর্কিত করে উপস্থাপন করতে তিনি কোনো বিশেষ মহলের দ্বারা প্রলুব্ধ হয়েছেন বলেও মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও সমাজ সেবামূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত ব্যক্তিবর্গ।

প্রসঙ্গত, ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহা অভিযোগ করেছেন, বাংলাদেশে ৩৭ মিলিয়ন হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান নিখোঁজ রয়েছে। আরো ১০ মিলিয়ন মানুষ হুমকির মুখে আছে। যেখানে বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার মধ্যে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টানের সংখ্যা ১৭ মিলিয়ন সেখানে ৩৭ মিলিয়ন মানুষ নিখোঁজ হয় কিভাবে? এদিকে প্রিয়া সাহার বক্তব্যের জবাবে খোদ বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মিলার বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশি নারীর বক্তব্য সঠিক নয়।

চাঁদে সাঈদী: 

২০১৩ সালের মার্চে মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডিত সাঈদীকে চাঁদে দেখা যাচ্ছে বলে গুজব ছড়ানো হয়৷ এই খবর সারা দেশে ছড়িয়ে পড়লে লাঠিসোটা ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে জামায়াত ও বিএনপির কর্মীরা দেশেজুড়ে তাণ্ডব চালায়, গুলি ছুড়তে বাধ্য হয় পুলিশ৷

নিখোঁজ স্যাটেলাইট: 

‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ নিখোঁজ’ শিরোনামে একটি খবর বেনামী কিছু ওয়েবপোর্টাল ও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। পরে সরকারি ভাষ্যে এ খবরকে গুজব বলে নিশ্চিত করা হয়।

হেফাজত:

ঢাকার শাপলা চত্বরে যৌথ বাহিনীর অপারেশনে হেফাজতে ইসলামীর কর্মীদের মৃতের সংখ্যা নিয়ে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। পরে পুলিশ সংবাদ সম্মেলন করে জানায়, গণমাধ্যমের সামনে ঐ অপারেশন পরিচালিত হয়েছে, নিহতের ব্যাপারে যে খবর ছড়ানো হচ্ছে তা গুজব৷

ধর্ম অবমানার গুজব:

ফেসবুকে ধর্ম অবমাননার গুজব ছড়িয়ে কক্সবাজারের রামু উপজেলায় বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ওপর সাম্প্রদায়িক হামলা হয়। বাংলাদেশের আরো বেশ কয়েকটি জায়গায় একই ধরনের ঘটনা ঘটেছে।

তবে, এসব গুজব প্রতিরোধে সরকার ত্বরিতগতিতে যথাযথ পদক্ষেপ নিয়েছে। বিভিন্ন মহল থেকে মানুষকে সচেতন করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সামাজিক আন্দোলন গড়ে উঠছে।মানুষকে বোঝানো হয়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব সৃষ্টির মাধ্যমে কতগুলো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে। এ গুজবের কোনো ভিত্তি নেই।সরকারের পক্ষ থেকে গুজব ছড়ানোর শুরুতেই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে মানুষকে সচেতন করা হয়েছে।অস্থিরতা ও নৈরাজ্য সৃষ্টি করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার চেষ্টা করলে ও বাংলাদেশ আজ সমৃদ্ধির পথে ।

এই বিভাগের আরো খবর