বুধবার   ০১ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ১৭ ১৪২৬   ০৭ শা'বান ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
করোনায় খাদ্য ঘাটতি হবে না : কৃষিমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখ‌ছেন প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে ৬৪ জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কনফারেন্স পিপিই যেন নষ্ট না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা মোকাবিলায় সরকার জনগণের পাশে আছে -প্রধানমন্ত্রী ছুটিতে কর্মস্থল ছাড়া যাবে না : সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন করোনা সংকটকালে জনগণের পাশে থাকবে আ.লীগ: কাদের আমি করোনায় আক্রান্ত হইনি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত নেই : আইইডিসিআর পদ্মা সেতু‌তে বসলো ২৭তম স্প্যান, দৃশ্যমান হলো ৪ হাজার ৫০ মিটার সব পোশাক কারখানা বন্ধের নির্দেশ পবিত্র শবে বরাত ৯ এপ্রিল অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে যাবেন না : প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মুক্তি পেলেন খালেদা জিয়া সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে আজ ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নিষেধাজ্ঞা অক্ষরে অক্ষরে পালন করুন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরগুনায় সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই খালেদা জিয়াকে মুক্তির সিদ্ধান্ত
৪৯

নামাজের অনন্য ৫ উপকারিতা

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

 

নামাজ ইসলামের মৌলিক স্তম্ভগুলোর একটি। একজন ব্যক্তি মুসলমান হওয়ার পর প্রথম যে কাজটি তার ওপর ফরজ (অত্যাবশ্যক) হয়, তা হলো নামাজ। এক হাদিসে রাসুল (সা.) বলেছেন, মুসলমান ও কাফেরের মধ্যে পার্থক্য সৃষ্টিকারী হলো নামাজ। (সহিহ মুসলিম, হাদিস নং ১৩৪) সুতরাং মুসলমান হিসেবে নামাজ আদায় করা আমাদের সকলের কর্তব্য।

নামাজ শুধু আবশ্যিক কর্তব্যই নয়, পাশাপাশি মানসিক ও আধ্যাত্মিকতার দিক থেকেও নামাজের বিভিন্ন উপকারী প্রভাব আছে। তন্মধ্যে পাঁচটি উপকারিতা এখানে উল্লেখ করা হলো-

১. আত্মোপলব্ধি ও অন্তরের শান্তি অর্জন।
প্রত্যেক জীবিত আত্মারই আধ্যাত্মিক চাহিদা রয়েছে। এ চাহিদা পূরণ না হলে কোনো ব্যক্তিই অন্তরে শান্তি লাভ করতে পারে না। নামাজের মাধ্যমে ব্যক্তি তার স্রষ্টার সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করে। ফলে আধ্যাত্মিক চাহিদা পূরণের মাধ্যমে একদিকে যেমন সে অন্তরের শান্তি অর্জন করে, অপরদিকে নিজের অস্তিত্ব সম্পর্কে যথাযথ উপলব্ধি লাভ করতে পারে। হজরত আবু মুসা আল-আশয়ারী (রা.) থেকে বর্ণিত, এক হাদিসে এসেছে, রাসুল (সা.) বলেন, ‘যে ব্যক্তি তার প্রভুকে স্মরণ করে এবং যে ব্যক্তি তার প্রভুকে স্মরণ করে না, উভয়ের মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে জীবিত ও মৃতের মধ্যে যে পার্থক্য।’ (সহিহ বুখারি ও মুসলিম)

২. দাসত্ব থেকে মুক্তি দানকারী।
নামাজ মানুষকে বস্তু জগতের সকল প্রকার দাসত্ব ও বন্দিত্ব থেকে মুক্তি দান করে। ইমাম ইবনে তাইমিয়া (রহ.) বলেছেন, আসল বন্দি সে, যার অন্তর তার প্রভুর জন্য বন্ধ থাকে এবং আসল দাস সে ব্যক্তি যার অন্তর তার ইচ্ছা-আকাঙ্ক্ষার দাস।

৩. নৈতিকতার মূলভিত্তি।
নামাজ একজন ব্যক্তির মধ্যে নৈতিকতার ভিত্তি তৈরি করে দেয়। কোনো ব্যক্তি যদি যথাযথ নামাজ আদায় করে, তবে নৈতিক গুণাবলী তার মাঝে সহজেই বিকশিত হওয়ার সুযোগ পাবে।

৪. ঈমানের নবায়নকারী।
পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের মধ্য দিয়ে আমরা যদি দৈনিক পাঁচবার আল্লাহকে স্মরণ করি, তবে আমরা প্রকৃতপক্ষে আল্লাহর বান্দা। সারাদিন ইচ্ছায়-অনিচ্ছায় যত গুনাহ আমাদের দ্বারা হয়ে যায়, নামাজের মাধ্যমে আমরা সেসব থেকে মুক্তি লাভ করতে পারি। তাই নামাজের মাধ্যমে আমরা আমাদের ঈমানকে প্রতিনিয়ত নবায়ন করে নিতে পারি।

৫. সম্প্রীতির শিক্ষা।
নামাজের জামাতে ধনী-গরিব, সাদা-কালো একই কাতারে দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করে। কোনোপ্রকার বৈষম্যের ধারণা নামাজের জামাতে কাজ করে না। সকলেই এক আল্লাহর বান্দা হিসেবে নামাজ আদায় করে। জামাতে নামাজের এই ব্যবস্থা থেকে আমরা একতার ধারণা ও ভ্রাতৃত্বের শিক্ষা অর্জন করতে পারি। আল্লাহ আমাদের সকলকে সঠিক নিয়মে নামাজ আদায় করার তাওফিক দিন। আমিন।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর