রোববার   ২৬ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১২ ১৪২৬   ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
র‍্যাবের সঙ্গে `বন্দুকযুদ্ধে` দুই ডজন মামলার আসামি নিহত চীনে ভয়াবহ মহামারি : ইসলাম কী বলে? অনলাইনে যেভাবে সার্টিফিকেটের ভুল সংশোধন করবেন `ভয়াবহ পরিস্থিতি` মোকাবিলা করছে চীন: শি জিনপিং দারিদ্র্যতা দূর করলে সীমান্তে মাদক ব্যবসা বন্ধ হবে-র‍্যাব ডিজি যাত্রাপালা গ্রামীণ মানুষের বিনোদনের উত্তম মাধ্যম- ফরহাদ হোসেন চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে মূল চালিকা শক্তি হবে তরুণরা: পলক রাবিতে র‌্যাগিংয়ের দায়ে শিক্ষার্থী বহিষ্কার বন্ধ হয়ে গেছে ফেসবুক নোটিফিকেশন! ছয় দিনে ১ হাজার শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল বানাবে চীন! চীনের করোনা ভাইরাস নেপালে, সতর্কতা জারি ভারতে পদ্মশ্রী পাচ্ছেন বলিউডের চার তারকা  বাংলাদেশিদের জরুরি হটলাইন নম্বর জানালেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সাবেক ফুটবলার হোসে মোরিনহোর জন্ম চর উন্নয়ন অথরিটি থাকা জরুরি : ডেপুটি স্পিকার বঙ্গবন্ধু প্লান্টে মিটবে সুপেয় পানির সঙ্কট জঙ্গি কর্মকাণ্ডে জড়িত খুবির দুই শিক্ষার্থী ১০ দিনের রিমান্ডে অনলাইনে পরিশোধ করা যাবে ভ্রমণ কর-এনবিআর চেয়ারম্যান ‘পদ্মভূষণ’ ও ‘পদ্ম শ্রী’ পুরস্কার পেলেন মোয়াজ্জেম-এনামুল নামাজে মনোযোগ ধরে রাখার বিশেষ কিছু উপায়
৭৩

পদ্মায় ২১তম স্প্যান বসবে ১২ জানুয়ারি

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৭ জানুয়ারি ২০২০  

মাওয়া প্রান্তে পদ্মাসেতুর ৫ ও ৬ নম্বর পিলারে একটি স্প্যান পুনঃস্থাপন করা হয়েছে। এটি আগে অস্থায়ীভাবে বসানো ছিল। আর সেতুর ২১ তম স্প্যান বসবে আগামী ১২ জানুয়ারি।

সোমবার (৬ জানুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে তিয়ানহু নামের ক্রেন ৫ ও ৬ নম্বর পিলারে স্প্যান পুনঃস্থাপন প্রক্রিয়া শেষ করে।

সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন। চলতি মাসে আরও তিনটি স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে সেতু নির্মাণ সংশ্লিষ্টদের।

পদ্মাসেতু প্রকল্প এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, সেতুর মোট ৪২ টি পিলারের মধ্যে ৩৬টি পিলারের কাজ শতভাগ শেষ হয়েছে। বাকি রয়েছে ৬ টি পিলার (৮, ১০, ১১, ২৬, ২৭, এবং ২৯ )। এসব পিলার এর কাজ এপ্রিলে পুরোপুরি শেষ হবে। সেতুর ৪১ টি স্প্যানের মধ্যে ২০ টি স্প্যান স্থাপন করা হয়েছে। আগামী ৬ জানুয়ারি নতুন আরেকটি স্প্যান স্থাপন করা হবে।

 

সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানান, জানুয়ারি মাস থেকে প্রতিমাসে ৩ টি করে স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। সে হিসেবে চলতি বছরেই শেষ হয়ে যাবে সেতুর সবগুলো স্প্যান বসানোর কাজ।

এদিকে, সেতুর সড়ক পথে ২ হাজার ৯৩১টি রোডওয়ে স্ল্যাব বসে গড়ে উঠবে। আর রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে ২ হাজার ৯৫৯টি। যে কাজও এরই মধ্যে শুরু হয়েছে।

পদ্মা মূল সেতু নির্মাণে কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদীশাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো। ২০২১ সালের জুনে সেতুর সব কাজ শেষ হলে তখনই যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর