শুক্রবার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১৬ ১৪২৬   ০৪ রজব ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ দিয়েছেন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মশা যেন ভোট খেয়ে না ফেলে, নতুন মেয়রদের প্রধানমন্ত্রী তাপস-আতিককে শপথ পড়ালেন প্রধানমন্ত্রী আমার কাছে রিপোর্ট আসছে, কাউকে ছাড়ব না : প্রধানমন্ত্রী দ্বিতীয় কিস্তির ২৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা বিটিআরসিকে দিল রবি মাধ্যমিক পর্যন্ত বিজ্ঞান বাধ্যতামূলকের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ওপর নজরদারি বাড়াতে বললেন প্রধানমন্ত্রী বরগুনায় ওয়ারেন্ট ভুক্ত দুই আসামী গ্রেপ্তার আজকের স্বর্ণপদক প্রাপ্তরা ২০৪১ এর বাংলাদেশ গড়ার কারিগর যে কোন অর্জনের পেছনে দৃঢ় মনোবল এবং আত্মবিশ্বাস গুরুত্বপূর্ণ ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ পেলেন ১৭২ শিক্ষার্থী আজ ১৭২ শিক্ষার্থী প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পাচ্ছেন অশান্ত দিল্লিতে কারফিউ, নিহত ১৭ পিকে হালদারসহ ২০ জনের ব্যাংক হিসাব জব্দের আদেশ বহাল ৭ মার্চ জাতীয় দিবস ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় ১৪ দিনেই ভালো হচ্ছেন করোনা রোগী : আইইডিসিআর মুশফিক-নাঈমে ইনিংস ব্যবধানে দূর্দান্ত জয় টাইগারদের পিলখানা ট্র্যাজেডি দিবস আজ রিফাত হত্যা মামলার আসামি সিফাতের বাবা গ্রেফতার
৩৭

পদ না পেয়ে বিএনপিপন্থী আইনজীবীর চেম্বারে দলীয় কর্মীদের হামলা!

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০১৯  

ক্ষমতায় না থেকেও পদ-পদবির লোভে সংঘাত-সংঘর্ষের ঘটনা বিএনপিতে নতুন নয়। যোগ্যতা ও জ্যেষ্ঠতা না থাকা সত্ত্বেও ইচ্ছানুযায়ী পদ না পাওয়া নিয়ে বিএনপির বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনে সংঘাতের ঘটনা যেন প্রতিদিনের ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

দলীয় কোন্দল ও পদ বাণিজ্যের জেরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামালের চেম্বার ভাঙচুর করেছে বিএনপি নেতা-কর্মীরা। জানা গেছে, বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের সংগঠন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটে। মূলত পদবঞ্চিত আইনজীবীদের উসকানিতে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

বিভিন্ন তথ্যসূত্রে জানা গেছে, সোমবার (৭ অক্টোবর) বিকেলে ওই ভবনের নিচতলায় থাকা চেম্বারটিতে (১১০ নম্বর কক্ষ) ভাংচুর করা হয়। তবে এসময় ব্যারিস্টার কায়সার কামাল চেম্বারে ছিলেন না।

এর আগে গত ৩ অক্টোবর সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেনকে আহ্বায়ক এবং সাবেক ছাত্রনেতা ও আইনজীবী ফজলুর রহমানকে সদস্য সচিব করে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের ১৭৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়। এই কমিটি ঘোষণার পর থেকেই পদবঞ্চিতরা সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ভবনে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। সোমবার ব্যারিস্টার কায়সার কামালের চেম্বার ভাঙচুরের আগেও পদবঞ্চিতদের মিছিল হয়।

ভাংচুরের বিষয়ে জানতে চাইলে ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, অযোগ্য, হাইব্রিড ও সুযোগ সন্ধানীরা পদ না পাওয়ায় উদ্দেশ্যমূলকভাবে আমার চেম্বারে হামলা করেছে। তাদের উদ্দেশ্য ছিলো আমার ক্ষতি করা। সত্যি বলতে, অযোগ্য ও পদ লোভী নেতাদের কারণে সব জায়গায় বিএনপির বদনাম হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, কারও বিরুদ্ধে যদি শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে দলীয়ভাবে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া হবে। আর যোগ্য কেউ পদবঞ্চিত হয়ে থাকলে তাদের হতাশ হওয়ার কিছু নেই। কমিটিতে থাকার সুযোগ শেষ হয়ে যায়নি। তাই বলে বিশৃঙ্খলা সহ্য করা হবে না।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর