শুক্রবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৯ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
উন্নত দেশ গড়তে বেসরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুজিববর্ষে বিএনপিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে: কাদের ভণ্ডপীরসহ ৯ জনের কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রী সব সময় শিক্ষাকে গুরুত্ব দেন: পরিকল্পনামন্ত্রী মুজিব বর্ষে নতুন শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী আসন্ন সেচ মৌসুমে লোডশেডিংয়ের শঙ্কা নেই : বিদ্যুৎ বিভাগ একুশে পদক হাতে তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস শুক্রবার একুশে পদক মেধা ও মনন চর্চার ক্ষেত্র সম্প্রসারিত করবে : রাষ্ট্রপতি আজ একুশে পদক প্রদান করবেন প্রধানমন্ত্রী এনামুল বাছিরের পদোন্নতির আবেদন হাইকোর্টে খারিজ ডাকঘর সঞ্চয়ের সুদহার পুনর্বিবেচনা করা হবে : অর্থমন্ত্রী মুঠোফোন প্রতারক জিনের বাদশা গ্রেফতার করোনাভাইরাস নিয়ে গুজবে কান দিবেন না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাগর তীরে উঁচু স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিএনপি জ্বালাও-পোড়াও না করলে দেশ আরো এগিয়ে যেত : তথ্যমন্ত্রী শহীদ দিবসে জঙ্গি হামলার কোনো সম্ভাবনা নেই : ডিএমপি কমিশনার দেশে ব্রয়লারসহ কোন পশু-পাখির মধ্যে করোনা পাওয়া যায়নি : আইইডিসিআর বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশ এখন অনুকরণীয়: শ ম রেজাউল ওআইসিকে শক্তিশালী করতে চাই: ড. মোমেন
৫৮

পাকিস্তানকে ধবলধোলাই করে খরা কাটাল শ্রীলঙ্কা

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৯ অক্টোবর ২০১৯  

লাহোরে টি-টোয়েন্টি সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে ১৩ রানে হেরেছে পাকিস্তান। আগে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ১৪৭ রান তুলেছিল সফরকারি দল। সাদামাটা এ সংগ্রহ তাড়া করতে নেমে পুরো ২০ ওভার খেলেও জয় তুলে নিতে পারেনি স্বাগতিকেরা। ৬ উইকেটে ১৩৪ রানেই থেমেছে পাকিস্তানের ইনিংস। এতে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে ধবলধোলাই হলো পাকিস্তান। দ্বিপক্ষীয় তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে এই প্রথম কোনো দলকে ৩-০ ব্যবধানে ধবলধোলাই করল শ্রীলঙ্কা।

ইনিংসের প্রথম বলেই ওপেনার ফখর জামানকে হারিয়ে বিপদে পড়েছিল পাকিস্তান। এরপর বাবর আজম-হারিস সোহেলের জুটিতে ভর করে প্রথম ১০ ওভার শেষে জয়ের পথেই ছিল স্বাগতিকেরা। ১০ ওভার শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ ছিল ১ উইকেটে ৬৩। লাহিরু কুমারা ১২তম ওভারে বাবরকে (৩২ বলে ২৭) তুলে নেওয়ার পর ধীরে ধীরে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়তে শুরু করে পাকিস্তান। শেষ ৫ ওভারে ৫৪ রান দরকার ছিল দলটির। হাতে ছিল ৮ উইকেট। টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থানীয় পাকিস্তান এখান থেকে ম্যাচটি জিততে পারেনি!

উল্টো র‌্যাঙ্কিংয়ে সাতে থাকা লঙ্কানরা নিয়ন্ত্রিত বোলিং আর দুর্দান্ত ফিল্ডিং করে সাদামাটা স্কোর থেকেই জয় তুলে নিয়েছে। ১৭ থেকে ১৮তম ওভারে মাত্র ৯ বলের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারায় সরফরাজ আহমেদের দল। এতে শেষ দুই ওভারে হাতে ৪ উইকেট নিয়ে ৩৭ রানের লক্ষ্যে পৌঁছানো আর সম্ভব হয়নি তাদের জন্য। শেষ ওভারে জয়ের জন্য দরকার ছিল ২৮ রান। ওয়াহাব রিয়াজ ও ইফতিখার আহমেদ মিলে নিতে পেরেছেন ১৪ রান। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে ধবলধোলাই হলো পাকিস্তান। ২০১৫ সালে আরব আমিরাতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একইভাবে ধবলধোলাই হয়েছিল দলটি।

পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ ৫২ রান এসেছে হারিস সোহেলের ব্যাট থেকে। অধিনায়ক সরফরাজ ১৭ রান করলেও ১৬টি ডেলিভারি খেলায় শেষ দিকে চাপে পড়েছে পাকিস্তান। শ্রীলঙ্কার হয়ে ২১ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন ওয়ানিন্দু হাসারঙ্গা। এর আগে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কার ইনিংস প্রায় একাই টেনেছেন ওসাদা ফার্নান্দো। ৪৮ বলে ৭৮ রান করেন পাঁচে নামা এ ব্যাটসম্যান।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর