মঙ্গলবার   ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৬ ১৪২৬   ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
টাকা না থাকলে এত উন্নয়ন কাজ করছি কীভাবে : প্রধানমন্ত্রী সব ব্যথা চেপে রেখে দেশের জন্য কাজ করছি : প্রধানমন্ত্রী ট্রেনে খোলা খাবার বিক্রি ও প্লাস্টিকের কাপ নিষিদ্ধ হচ্ছে মজুদ গ্যাসে চলবে ২০৩০ সাল পর্যন্ত : খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী গুজব-অপপ্রচার রোধে কাজ করছে উচ্চ পর্যায়ের কমিটি : তথ্যমন্ত্রী সব কারখানায় ব্রেস্ট ফিডিং কর্নার স্থাপনের নির্দেশ আজ বাংলাদেশ-নেপাল পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক সরকার-জনগণের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার করতে সাংসদের রাষ্ট্রপতির আহ্বান দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে : নাসিম ব্যাংকের জঙ্গি অর্থায়ন নজরদারিতে রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৪০০ মেট্রিক টন মধু রফতানির অর্ডার পেয়েছে বাংলাদেশ : কৃষিমন্ত্রী নয় বছরে সাড়ে ৯৭ হাজার কর্মকর্তা নিয়োগ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী দেশে মোবাইল টাওয়ার রেডিয়েশনের মাত্রা ক্ষতিকর নয় : বিটিআরসি সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী খালেদার প্যারোলে মুক্তির কোনো আবেদন পাইনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উহান ফেরত শিক্ষার্থীরা নজরদারিতেই থাকবেন : আইইডিসিআর রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইন্দোনেশিয়ার সহায়তা চাইলেন ড. মোমেন ইউএনও’দের মাধ্যমে রাজাকারের তালিকা করা হবে : মোজাম্মেল হক মানবপাচারে অভিযুক্ত এমপির বিষয়ে দুদককে তদন্তের আহ্বান কাদেরের হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন
৪৪

পাকিস্তানের চেয়েও এগিয়ে বাংলাদেশ!

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০২০  

টি-টোয়েন্টিতে র‍্যাঙ্কিংয়ের ১ নম্বর দল পাকিস্তান। অন্যদিকে বাংলাদেশের অবস্থান ৯ নম্বরে। তবে একটি জায়গায় এগিয়ে আছে মাহমুদউল্লাহরা। সেটি হলো ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা। অন্যদিকে, রান কিংবা উইকেটে প্রায় সমান অবস্থানে দু’দল।

পরিসংখ্যান বলছে, বাংলাদেশ দলের ১৫ সদস্য মিলে ৩৭০ টি-টোয়েন্টি খেলেছেন, পাকিস্তানের ক্ষেত্রে সংখ্যাটি ৩৫৩। দুই অধিনায়কের অভিজ্ঞতার পার্থক্যটাও দেখার মতো, বাংলাদেশের অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহর থেকে ৯ বছরের ছোট বাবার আজমের বয়স ২৫। তবে রিয়াদের ৮৩ ম্যাচে মাহমুদউল্লাহর রান ১৪৩০ হলে মাত্র ৩৬ ম্যাচে সেটি প্রায় ছুঁ ফেলেছেন বাবর আজম। তার রান ১৪০৫।

দুই দলের দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার তামিম ইকবাল আর শোয়েব মালিকের বয়সের পার্থক্য ৭। ৭৫ ম্যাচে তামিমের রান ১৬১৩, আর ১১১ ম্যাচে শোয়েবের ২২৬৩। অভিজ্ঞতা বিবেচনায় শোয়েব মালিকই পাকিস্তানের তুরুপের তাস।

দু’দলেই একশোর বেশি স্ট্রাইক রেট আছে ৬ জনের। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে সবেচেয়ে বেশি স্ট্রাইক রেট লিটন দাসের- ১৩৮। অন্যদিকে, পাকিস্তানের ইফতেখারের স্ট্রাইকরেট ১৪৪। সৌম্যর ৬ উইকেটের সাথে রান যেখানে ৭৯১। সেখানে ইমাদ ওয়াসিমের ৪২ উইকেট; রান ২৬১।

দলের ১৫ জন মিলে বাংলাদেশের মোট রান ৫২৫৪ আর উইকেটে শিকার ১৮৩। বিপরীতে পাকিস্তানের করেছে মোট ৬৩০২ রান আর উইকেট ১৮৭।

পাকিস্তানের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী মোহাম্মদ হাফিজ, অন্যদিকে টাইগার মোস্তাফিজের সংগ্রহ ৫২ উইকেট। স্বাগতিকদের ৪ অভিষেকের বিপরীতে টাইগাররদের নতুন মুখ হাসান মাহমুদ।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর