বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৩ ১৪২৬   ১৮ মুহররম ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
রিফাত হত্যা : পলাতক ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রোহিঙ্গা সংকট : ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসছে চীন-মিয়ানমার-বাংলাদেশ আমাদের কাজই হচ্ছে জনগণকে সেবা দেয়া : প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে চীন বাংলাদেশের পক্ষে: মোমেন আজ গাজীপুর যাবেন প্রধানমন্ত্রী পরিবেশ দূষণ: ৪ প্রতিষ্ঠানকে কোটি টাকা জরিমানা স্বর্ণজয়ী রোমান সানার মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী আরো দু’টি বোয়িং বিমান কেনার ইঙ্গিত দিলেন প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দির তথ্য ডাটাবেজে থাকবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: প্রধানমন্ত্রী অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী গরিবের ঘরবাড়ি গ্রাম যেন ভাঙা না হয়: প্রধানমন্ত্রী দুই মাসে এডিপি বাস্তবায়নের হার বেড়েছে ৪.৪৮ শতাংশ উদ্বোধনের দিনেই পদ্মাসেতুতে ট্রেন চলবে: রেলমন্ত্রী ৮ হাজার ৯৬৮ কোটি ৮ লাখ টাকার প্রকল্প একনেকে অনুমোদন ভারতীয় কোস্টগার্ড ডিজির সঙ্গে রীভা গাঙ্গুলির বৈঠক ইসির চুরি যাওয়া ল্যাপটপ উদ্ধার, আটক ৩ আজ মহান শিক্ষা দিবস প্রধানমন্ত্রী ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন আজ রোহিঙ্গা ভোটার: ইসি কর্মচারীসহ আটক ৩
৩৫৭

`পাবজি` খেলা হারাম, ফতোয়া জারি

প্রকাশিত: ২০ জুন ২০১৯  

জনপ্রিয় অনলাইন গেম প্লেয়ার আননোন'স ব্যাটলগ্রাউন্ডস (পাবজি) ইসলাম ধর্মের জন্য অবমাননাকর বলে দাবি করেছে ইন্দোনেশিয়ার একটি মুসলিম গোষ্ঠী।

ইরাক এবং নেপালে আনুষ্ঠানিকভাবে এই গেম নিষিদ্ধ ঘোষণার পর ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশে বুধবার ফতোয়া দিয়ে ওই দাবি করা হয় বলে বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ভারতের গুজরাটেও নিষিদ্ধ করা হয়েছ ২০১৭ সালে শুরু হওয়ার পর বিশ্বজুড়ে ব্যাপক জনপ্রিয় হওয়া এই পাবজি খেলা।

এএফপি বলছে, আচেহ প্রদেশের ওলামা পরিষদ বুধবার স্থানীয় বাসিন্দাদের পাবজি খেলা বন্ধের জন্য আহ্বান করে। এটিকে হারাম ঘোষণা করে ফতোয়া দেন ওলামা নেতারা। স্থানীয় সরকারকে এই গেম নিষিদ্ধের দাবিও জানান তারা।

আচেহ ওলামা পরিষদের  সহ-সভাপতি ফয়সাল আলী বলেন, আমাদের ফতোয়া বলছে- পাবজি এবং এই একই ধরনের খেলাগুলো হারাম। এর কারণে সহিংসতা এবং মানুষের আচরণ পরিবর্তন হতে পারে।

পাবজি খেলা ইসলাম ধর্মকে অবমাননা করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

ফয়সাল আলী বলেন, আচেহতে দেখা যায় শিশুরা, এমনকি বয়ষ্করা পর্যন্ত পাবজি খেলায় আসক্ত হয়ে পড়েছেন। মোবাইল ফোনে প্রায় সব জায়গাতেই তারা এটি খেলছে।

এই ঘটনা খুবই উদ্বেগজনক বলে মন্তব্য করেন ওলামা পরিষদের এই নেতা।