সোমবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১৩ ১৪২৬   ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
বিদেশের মসজিদে আর অর্থ দেবে না সৌদি গুরুত্বপূর্ণ নথি ও সামগ্রী নিয়ে আর্কাইভ হচ্ছে এত সুন্দরভাবে নির্বাচন হচ্ছে কীভাবে: ইসি সচিব জমাদিউস সানি শুরু আজ ভাঙা হৃদয় জোড়া লাগালেন ব্র্যাড পিট ও জেনিফার অ্যানিস্টন বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে ৫ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা আজ ঐতিহাসিক সলঙ্গা বিদ্রোহ দিবস অটোমেশনে দুর্নীতি কমবে: অর্থমন্ত্রী বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় করার প্রত্যয় ধর্ষণ থেকে রক্ষায় জাবি শিক্ষার্থীর অ্যাপ তৈরি ইশরাকের অভিযোগ অমূলক : তাপস বিশ্বের প্রাণঘাতী ৭টি ভাইরাস দ্রুত পেটের চর্বি গলাবে জাপানিজ এই পানীয় ফেসবুকে অযাচিত ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট আটকাবেন যেভাবে ইসলামের মুদ্রাব্যবস্থা স্বর্ণ-রৌপ্যনির্ভর জমাদিউস সানি শুরু সোমবার বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনায় সুপ্রিমকোর্টে ঘড়ি স্থাপন তাবিথ আউয়ালের প্রার্থিতা বাতিল চেয়ে রিট আফতাবনগরে মানবপাচার চক্রের সন্ধান, আটক ১৩ রোহিঙ্গা নারী একগুচ্ছ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
৪২৩

`পাবজি` খেলা হারাম, ফতোয়া জারি

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২০ জুন ২০১৯  

জনপ্রিয় অনলাইন গেম প্লেয়ার আননোন'স ব্যাটলগ্রাউন্ডস (পাবজি) ইসলাম ধর্মের জন্য অবমাননাকর বলে দাবি করেছে ইন্দোনেশিয়ার একটি মুসলিম গোষ্ঠী।

ইরাক এবং নেপালে আনুষ্ঠানিকভাবে এই গেম নিষিদ্ধ ঘোষণার পর ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশে বুধবার ফতোয়া দিয়ে ওই দাবি করা হয় বলে বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ভারতের গুজরাটেও নিষিদ্ধ করা হয়েছ ২০১৭ সালে শুরু হওয়ার পর বিশ্বজুড়ে ব্যাপক জনপ্রিয় হওয়া এই পাবজি খেলা।

এএফপি বলছে, আচেহ প্রদেশের ওলামা পরিষদ বুধবার স্থানীয় বাসিন্দাদের পাবজি খেলা বন্ধের জন্য আহ্বান করে। এটিকে হারাম ঘোষণা করে ফতোয়া দেন ওলামা নেতারা। স্থানীয় সরকারকে এই গেম নিষিদ্ধের দাবিও জানান তারা।

আচেহ ওলামা পরিষদের  সহ-সভাপতি ফয়সাল আলী বলেন, আমাদের ফতোয়া বলছে- পাবজি এবং এই একই ধরনের খেলাগুলো হারাম। এর কারণে সহিংসতা এবং মানুষের আচরণ পরিবর্তন হতে পারে।

পাবজি খেলা ইসলাম ধর্মকে অবমাননা করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

ফয়সাল আলী বলেন, আচেহতে দেখা যায় শিশুরা, এমনকি বয়ষ্করা পর্যন্ত পাবজি খেলায় আসক্ত হয়ে পড়েছেন। মোবাইল ফোনে প্রায় সব জায়গাতেই তারা এটি খেলছে।

এই ঘটনা খুবই উদ্বেগজনক বলে মন্তব্য করেন ওলামা পরিষদের এই নেতা।  

বরগুনার আলো