শনিবার   ১৭ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ২ ১৪২৬   ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
চামড়ার দরপতনের সঙ্গে জড়িতদের বিচার হবে: তথ্যমন্ত্রী বোর্ডের কাছে দুই মাসের সময় চাইলেন মাশরাফি মোটরসাইকেলসহ দুই চোর গ্রেফতার ডেঙ্গুজ্বর থেকে মুক্তি পেতে ‘স্টপ ডেঙ্গু’ অ্যাপ চালু দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার ১৪ বছর আজ মেসিহীন হার দিয়ে লা লিগা শুরু বার্সার আজ থেকে হজের ফিরতি ফ্লাইট শুরু কবি শামসুর রাহমানের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ সোমবার ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কবিরা গুনাহকারীরা কি চিরকাল জাহান্নামে থাকবে? মিরপুরে বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে ২০ ইউনিট ১৯ হাজার ৪০০ পিস ইয়াবাসহ আটক দুই বাড়তি ভাড়া আদায়ের অপরাধে ১৭ পরিবহনকে জরিমানা ‘সবসময় যারা আমাদের বাড়িতে ঘোরাঘুরি করতো তারাই সেই খুনি’   হাতঘড়ির ফ্যাশন ফিরে এসেছে দেশে শেখ হাসিনার জীবনই এখন বেশি ঝুঁকিপূর্ণ : কাদের বিশ্বের আট গুরুত্বপূর্ণ শহরে ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপন করা হবে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য প্রাথমিক দল ঘোষণা বাংলাদেশের জিরো টলারেন্স নীতিতে জঙ্গি দমন সম্ভব হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রবি শাস্ত্রীই কোচের দায়িত্বে থাকছেন: সিএসি
২৯

পুলিশ কখনো রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার হয়নি: বিদায়ী ডিএমপি কমিশনার

প্রকাশিত: ৮ আগস্ট ২০১৯  

বিগত চার বছরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কখনো রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের বিদায়ী কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া। বৃহস্পতিবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে মিট দ্য প্রেসে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শেষ কর্মদিবসে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে কাজ করেছে—এ কথা একেবারেই সত্য নয়। এটা বিভ্রান্তিমূলক ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। আপনারা মনে করে দেখেন, আমি যখন পদে আসি তখন একটানা ৯২ দিন আগুন-বোমা, জ্বালাও-পোড়াও ও নজিরবিহীন সন্ত্রাস চলছিল। পুলিশের কাজ কী? জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দেয়া। আমরা আমাদের সেই কাজ করে গেছি। যারা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়েছে তাদের বিপক্ষে আমাদের শক্ত অবস্থান ছিল; তারাই বলছে—পুলিশ রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার হয়েছে।

বিদায়ী ডিএমপি কমিশনার বলেন, পুলিশ বিধানে বিনা পরোয়ানায় গ্রেফতারের কথা উল্লেখ থাকলেও আমি আমার সময়ে সেটা বন্ধ রেখেছি। যাতে সাধারণ জনগণ হয়রানির শিকার না হয়। তবে ব্যতিক্রম কিছু ঘটনা ছিল, যেগুলো আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য করা হয়েছে। তবে তা কখনো রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ছিল না।

২০১৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরিস্থিতি তুলে ধরে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, আমরা চেষ্টা করেছি যাতে জনমনে আতঙ্ক বিরাজ না করে। সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই নির্বাচনের কার্যক্রম শেষ করেছি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ৪ বছর ৭ মাস ডিএমপি কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। কমিশনার থাকাকালীন দুই জায়গায় ব্যর্থতার আক্ষেপ রয়েছে। একটি হচ্ছে জনগণ থানায় যে সেবা প্রত্যাশা করেছে, তা আমরা অনেকাংশে পূরণে ব্যর্থ হয়েছি। আরেকটি হচ্ছে যানজট। ঢাকায় সিগন্যাল ব্যবস্থা একটি সংস্থা দেখভাল করে, পানি জমলে আরেকজনের সাহায্য নিতে হয়। এসবের কারণে যানজট নিরসন পুরোপুরি সম্ভব হয়নি।

বক্তব্যের শেষ পর্যায়ে বিদায়ী পুলিশ কমিশনার বলেন, এই পোশাকে এটাই হয়তো শেষ দেখা। তবে অন্য পোশাকে অন্য কোন জায়গায় আবার দেখা হয়ে যাবে। এ দেখাই শেষ দেখা নয়!

এই বিভাগের আরো খবর