শুক্রবার   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৯ ১৪২৬   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
বিশ্বের প্রভাবশালী ১০০ নারীর তালিকায় শেখ হাসিনা আজকের নবীন কর্মকর্তারাই হবেন ৪১ সালের সৈনিক : প্রধানমন্ত্রী ঘুষ-দুর্নীতির বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বয়স্ক বাবা-মাকে না দেখলে জেল চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে যারা ফখরুল-রিজভীসহ ১৩৫ জনের বিরুদ্ধে দুই মামলা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকছে ‘কনসার্ট ফর ডিজিটাল বাংলাদেশ’ এসক্যাপ অধিবেশনে যোগ দিতে শেখ হা‌সিনা‌কে আমন্ত্রণ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির ন্যায়বিচার-নিরাপত্তা দাবি অক্সফামের কৃষি আধুনিক হলেই মাথাপিছু আয় বাড়বে: কৃষিমন্ত্রী মাওলানা ভাসানীর জন্মবার্ষিকী আজ কাল নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে বললেন ওবায়দুল কাদের ‘ফুড চেইনের মাধ্যমে প্লাস্টিক শরীরে প্রবেশ করছে’ বিশাল জয়ে শুরু কুমিল্লার বঙ্গবন্ধু বিপিএল মিশন টাইম ম্যাগাজিনের ‘পারসন অব দ্য ইয়ার’ গ্রেটা থানবার্গ বিদ্যুৎ খাতের উন্নয়নে ৩০ কোটি ডলার দেবে এডিবি ‘বিদেশগামীদের জন্য চালু হচ্ছে প্রবাসী কর্মী বিমা’ প্রেষণে বদলি রাষ্ট্রীয় ব্যাংকের ৯ জিএম জনতা ব্যাংকের অর্থ আত্মসাৎ: আসামিকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ মাদককে দেশ ছাড়া করবো: আইজিপি
৮৩

প্লাস্টিক বর্জে রাস্তা নির্মাণ, অভিনব উদ্যোগ ভারতীয় সেনাবাহিনীর

প্রকাশিত: ৩০ নভেম্বর ২০১৯  

 


প্লাস্টিক ক্ষতি করছে পরিবেশের। কিন্তু এ থেকে মুক্তির উপায় কী?‌ কারণ প্লাস্টিক কোনো ভাবেই পচনশীল নয়। আর এটাই গোটা বিশ্বের মাথা ব্যথার কারণ। তবে এই পরিস্থিতিতে অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। 
প্লাস্টিককে তারা এবার ব্যবহার করছেন রাস্তা তৈরির কাজে। ইতোমধ্যে দেশটির নারাঙ্গি মিলিটারি স্টেশনে প্লাস্টিক বর্জ্য দিয়ে রাস্তাও তৈরি করে ফেলেছেন তারা। পিচ তৈরিতে বিটুমিনের জায়গায় ‌১.‌২৪ মেট্রিক টন প্লাস্টিক ব্যবহার করেছেন সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং সার্ভিসেসের কর্মকর্তারা। আর এতে তারা যথেষ্ট সাফল্যও অর্জন করেছেন। 
আপাতত এ বিষয়টি নিয়ে আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে বলে জানানো হলেও, আগামী দিনে দেশের অন্যান্য জায়গাতেও এভাবে প্লাস্টিকের সাহায্যে রাস্তা তৈরি হতে দেখা যেতে পারে। 
প্রসঙ্গত, সম্প্রতি একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ভারতে প্রতিদিন প্রায় ২৬ হাজার টন প্লাস্টিক বর্জ্য উৎপন্ন হয়। আর প্লাস্টিক বর্জ্য উৎপাদিত দেশের তালিকায় পৃথিবীতে পঞ্চম স্থানে রয়েছে ভারত। অর্থাৎ ওই প্লাস্টিক বর্জ্য দিয়ে দিল্লির কুতুব মিনারের মতো সুউচ্চ বাড়ি তৈরি হয়ে যাবে। গত ২২ নভেম্বর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভরেকার লোকসভায় স্বীকার করেন। তিনি জানান, দেশের ৬০টি বড় শহরে রোজ ৪ হাজার টন প্লাস্টিক বর্জ্য উৎপন্ন হয়। যা কিনা খুবই ভয়াবহ একটি পরিসংখ্যান।‌

এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য প্লাস্টিক ব্যবহার কমানো, পুনঃব্যবহার করা এবং রিসাইকেল করা। এছাড়া যেহেতু প্লাস্টিক বর্জ্য ব্যবহার করা হচ্ছে তাতে রাস্তার মেয়াদকাল বাড়বে বলে আশা করা যায়। এছাড়াও অনেক কম খরচে এই রাস্তা সংস্কার করা এবং তা রক্ষণাবেক্ষণ করা যাবে। তাতে যে সকল প্লাস্টিক সমুদ্রে বা জলাশয়ে নিক্ষেপ করা হয় তা অনেকটাই কমবে বলে আশা প্রকাশ করছেন অনেকেই। 

এই বিভাগের আরো খবর