শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১২ ১৪২৬   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
নাসিরুদ্দিন শাহ ও অনুপম খেরের বাকযুদ্ধ আকাশ থেকে মোবাইলে পদ্মাসেতুর ছবি তুললেন প্রধানমন্ত্রী চীনের রহস্যময় ভাইরাস বাদুড় ও সাপ হয়ে মানবদেহে! `শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণে পরিচয় দিতে গর্ববোধ করি` এত গুণ পুদিনা পাতার? হাঁসের মাংসের কালিয়া দেশ গঠনে ক্যাডেটদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে-সেনাপ্রধান মুজিববর্ষ ঘিরে বিদেশিদের মধ্যেও আগ্রহ বাড়ছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পাখি মেলা শিক্ষার অন্যতম উদ্দেশ্য মানবসম্পদ তৈরি: শিক্ষা সচিব মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের লক্ষ্যেই আ’লীগ কাজ করে যাবে-শেখ হাসিনা সোলেইমানি হত্যার নিন্দা জানানোয় কসোভোতে নারীর কারাদণ্ড বরিশাল বোর্ডে এসএসসিতে অনিয়মিত পরীক্ষার্থী ২১ শতাংশ টুঙ্গিপাড়া যাত্রায় টোল পরিশোধ করলো আওয়ামী লীগ বিক্ষোভে জনসমুদ্র বাগদাদ, স্লোগানে কাঁপছে রাজপথ বিএনপি ভোট কারচুপির রাজত্ব সৃষ্টি করেছিল বলেই ইভিএম আনা হয়েছে বরগুনায় জেলেদের জালে ধরা পড়লো ৪শ কেজি ওজনের শাপলাপাতা মাছ বৈশ্বিক স্বাস্থ্যে এখনো ঝুঁকি নয় করোনা ভাইরাস: ডব্লিউএইচও সাকিবকে ছাড়িয়ে নতুন রেকর্ড গড়লেন তামিম বাবার কবরের পাশে বসে প্রধানমন্ত্রীর কোরআন তেলাওয়াত

ফাইনাল নিশ্চিত করতে রাজশাহীর প্রয়োজন ১৫৯ রান

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১৩ জানুয়ারি ২০২০  

জিতলেই সরাসরি ফাইনালে। এমন সমীকরণের ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নেমে নাজমুল হোসেন শান্তর ফিফটিতে ভর করে ৩ উইকেটে ১৫৮ রান সংগ্রহ করে খুলনা টাইগার্স। দলের হয়ে ৫৭ বলে ৭টি চার ও ৪টি ছক্কায় সর্বোচ্চ ৭৮ রান করেন শান্ত। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলেন খুলনার এ তরুণ ওপেনার।

সোমবার সন্ধ্যায় মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিপিএল প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে রাজশাহী রয়েলসের বিপক্ষে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে ২.৫ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে প্রাথমিক বিপর্যয়ে পড়ে যায় খুলনা টাইগার্স।

দলীয় ২০ রানেই তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরার কথা ছিল নাজমুল হোসেন শান্তর। শোয়েব মালিকের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরের পথে হাঁটেন নাজমুল। কিন্তু আম্পায়ার তাকে থামিয়ে দেন। রিভিউতে দেখা যায় শোয়েব মালিকের করা বলটি ‘নো’ ছিল। ভাগ্যবশত নতুন লাইফ পান শান্ত।

তৃতীয় উইকেটে শামসুর রহমান শুভকে সঙ্গে নিয়ে গড়েন ৭৮ রানের জুটি। ৩১ বলে দুই চার ও এক ছক্কায় ৩২ রান করে ফেরেন শুভ। শামসু আউট হওয়ার পর ১৪তম ওভারে শোয়েব মালিককে ছক্কা হাঁকিয়ে ফিফটি পূর্ণ করেন শান্ত।

কিন্তু ব্যক্তিগত ৫৭ রানে বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে আফিফ হোসেনের হাতে ক্যাচ তুলে দেন শান্ত। আফিফ ক্যাচটি তালুবন্দি করতে না পারায় দ্বিতীয় দফায় লাইফ পান খুলনার এ তারকা ওপেনার।

এরপর চতুর্থ উইকেটে খুলনার আফগান ব্যাটসম্যান নজিবুল্লাহ জাদরানকে সঙ্গে নিয়ে শান্ত গড়েন ৪২ রানের জুটি। নিংসের শুরুতে নেমে শেষ বল পর্যন্ত খেলেন শান্ত। মাত্র ৫ বল খেলে এক চার ও সমান ছক্কায় ১২ রান করেন নজিবুল্লাহ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

খুলনা টাইগার্স: ২০ ওভারে ১৫৮/৩ (শান্ত ৭৮*, শামসু ৩২, মুশফিক ২১, নজবিুল্লাহ ১২)।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর