বুধবার   ২২ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৯ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
সরকারের ধারাবাহিকতায় গণতন্ত্র সূচকে বাংলাদেশের ৮ ধাপ অগ্রগতি ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন আর স্বপ্ন নয় বাস্তব : প্রধানমন্ত্রী এসকে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আদেশ শুক্রবার টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী থাইল্যান্ড-কম্বোডিয়া যাচ্ছেন শিল্পমন্ত্রী যশোরে সাবেক প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেকের জানাজা সম্পন্ন ই-পাসপোর্টে মানুষ আর ধোঁকায় পড়বে না: প্রধানমন্ত্রী বিজিএমইএ ভবন ভাঙার কাজ উদ্বোধন ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার করা মামলার রায় কাল পাসপোর্ট বহির্বিশ্বে একটি দেশের মর্যাদা নির্দেশক: রাষ্ট্রপতি ই-পাসপোর্ট চালু হচ্ছে আজ, উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ডিগ্রি পাস ছাড়া ফাজিল মাদ্রাসার সভাপতি হওয়া যাবে না প্রয়োজনে শিক্ষকদের বিদেশে পাঠান : প্রধানমন্ত্রী শিল্প-কারখানার পাশে জলাধার থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী কারিগরি শিক্ষার উন্নয়নসহ একনেকে ৮ প্রকল্প অনুমোদন যশোর-৬ আসনের এমপি ইসমত আর নেই,প্রধানমন্ত্রীর গভীর শোক আবরার হত্যা : অভিযোগ গঠন ৩০ জানুয়ারি শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টায় পাঁচ জনের মৃত্যুদণ্ড ভারত থেকে পেঁয়াজ কেনার কোনও সুযোগ নেই: বাণিজ্যমন্ত্রী

বঙ্গোপসাগরে ধরা পড়ল বিরল প্রজাতির ‘তিমি হাঙর’

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ৬ ডিসেম্বর ২০১৯  

বঙ্গোপসাগরে এক জেলের জালে ধরা পড়েছে এক বিশাল তিমি হাঙর মাছ। এই প্রজাতির মাছ সাধারণত গভীর মহাসাগরে বিচরণ করে। বঙ্গোপসাগরের পানিতে সংখ্যায় এই মাছ অত্যন্ত বিরল, নেই বললেই চলে।

বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে চাম্বল ইউনিয়নের বাংলাবাজার ফিশারিঘাটের এক জেলের জালে ধরা পড়েছে ২৫ মণ ওজনের এ হোয়েল শার্ক বা তিমি হাঙর।

জানা যায়, মাছটির সারা গায়ে ছোট ছোট অসংখ্য সাদা দাগ রয়েছে। এটির শরীর ধূসর রঙের। মাথা বিশাল ও চ্যাপ্টা আকৃতির। মাথার দু’পাশে বড়সড় দুটি ফুলকা রয়েছে। মাছটির দৈর্ঘ্য প্রায় ১৫ ফুট।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বলেন, মাছটির ওজন ২৫ মণ। এটি হোয়েল শার্ক বা তিমি হাঙর বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। গভীর মহাসাগরে এই মাছের বাস। বঙ্গোপসাগরে এই মাছ বাস করে না। কীভাবে এই মাছ বঙ্গোপসাগরে এল, সেটি ভাবার বিষয়।

তিনি বলেন, এ প্রজাতির মাছের পাখনাগুলোর থাইল্যান্ড, চীনের মতো দেশে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। এসব দেশের মানুষ পাখনাগুলো দিয়ে মজাদার স্যুপ তৈরি করে খায়।

চাম্বল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুজিবুল হক চৌধুরী জানান, মাছটি আগে কখনো দেখিনি। গন্ডামারা বড়ঘোনা এলাকার মো. রিদোয়ান নামের এক জেলের জালে গভীর বঙ্গোপসাগরে মাছটি ধরা পড়েছে।

রিদোয়ান বলেন, জালে ধরা পড়ার পর মাছটি ট্রলারের সঙ্গে বেঁধে তীরে নিয়ে আসা হয়। তীরে তুলে ট্রাকের সাহায্যে চট্টগ্রাম শহরের সদরঘাটে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু গায়ে পচন লাগায় মাছটি বিক্রি করা যায়নি।

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর