বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৮ ১৪২৬   ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
আজকের নবীন কর্মকর্তারাই হবেন ৪১ সালের সৈনিক : প্রধানমন্ত্রী ঘুষ-দুর্নীতির বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বয়স্ক বাবা-মাকে না দেখলে জেল চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে যারা ফখরুল-রিজভীসহ ১৩৫ জনের বিরুদ্ধে দুই মামলা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকছে ‘কনসার্ট ফর ডিজিটাল বাংলাদেশ’ এসক্যাপ অধিবেশনে যোগ দিতে শেখ হা‌সিনা‌কে আমন্ত্রণ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির ন্যায়বিচার-নিরাপত্তা দাবি অক্সফামের কৃষি আধুনিক হলেই মাথাপিছু আয় বাড়বে: কৃষিমন্ত্রী মাওলানা ভাসানীর জন্মবার্ষিকী আজ কাল নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে বললেন ওবায়দুল কাদের ‘ফুড চেইনের মাধ্যমে প্লাস্টিক শরীরে প্রবেশ করছে’ বিশাল জয়ে শুরু কুমিল্লার বঙ্গবন্ধু বিপিএল মিশন টাইম ম্যাগাজিনের ‘পারসন অব দ্য ইয়ার’ গ্রেটা থানবার্গ বিদ্যুৎ খাতের উন্নয়নে ৩০ কোটি ডলার দেবে এডিবি ‘বিদেশগামীদের জন্য চালু হচ্ছে প্রবাসী কর্মী বিমা’ প্রেষণে বদলি রাষ্ট্রীয় ব্যাংকের ৯ জিএম জনতা ব্যাংকের অর্থ আত্মসাৎ: আসামিকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ মাদককে দেশ ছাড়া করবো: আইজিপি বিটিসিএলের সব স্কুলের প্রাথমিক শাখা হবে ডিজিটাল
১৬০

বাস বন্ধের পর এবার ট্রাকেও ধর্মঘট ডাকলেন বিএনপি নেতারা!

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৯  

সড়কে জনগণের নিরাপত্তার জন্য আশীর্বাদ হয়ে আসা নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকরের পর থেকে দেশের বিভিন্ন জেলায় বাস চলাচল বন্ধের পর এবার সারাদেশে ট্রাক ধর্মঘটের ডাক এসেছে। বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন আইন স্থগিত রাখাসহ নয় দফা দাবিতে বুধবার থেকে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি ডেকেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের কার্যক্রম বিএনপির শ্রমিক দল দ্বারা ব্যাপকভাবে প্রভাবিত। শ্রমিকদের স্বার্থ সংক্রান্ত সরকারের প্রতিটি কাজকে বানচাল করার উদ্দেশে যেকোন ছোট ছোট ইস্যুতে পরিবহন ধর্মঘটের নামে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারী এই পরিষদকে বিএনপির তরফ থেকে বিভিন্ন সময়ে উসকানি দেয়া হয়। আর এ কারণেই এবার নতুন সড়ক নিরাপত্তা আইন বাতিলের অজুহাতে আয়োজন করা হচ্ছে শ্রমিকদের পরিবহন ধর্মঘট।

এ বিষয়ে বিএনপির শ্রম বিষয়ক সম্পাদক নাজিম উদ্দিন বলেন, মালিক কিংবা শ্রমিক-প্রত্যেকেই আন্দোলন করছে নিজেদের অধিকার আদায়ের জন্য। এখানে বিএনপির শ্রমিক দলের কোনো হাত নেই। যদিও অনেকে বলছেন বিএনপির তৈরি করা সিন্ডিকেটের মাধ্যমেই এমন ধর্মঘটের সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু তার সরাসরি প্রমাণ কেউ দিতে পারবে না।

নাজিম উদ্দিনের কথার রেশ ধরে শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইন বলেন, সিন্ডিকেট একটি সাধারণ বিষয়। প্রতিটি ক্ষেত্রেই সকল দলের সিন্ডিকেট থাকে। এ নিয়ে বেশি কিছু বলার নেই। তবে বিএনপির কিছু নেতা সরকারের এই আইনে খুশি নয়। তারা হয়তো তাদের বাস কিংবা ট্রাক রাস্তায় নামায়নি। এর বেশি কিছু বলতে পারবো না। তবে আমরা বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিকে সমর্থন করছি।

এ বিষয়ে রাজধানীর মিরপুর থেকে মতিঝিল রুটের বাস চালক নুরুল কবির বলেন, বাস কেনো চলছে না, জানি না। তবে আমাদের লিডার আনোয়ার হোসাইন বলেছেন, রাস্তায় গাড়ি বের না করতে। আর তাই আমরা গাড়ি বের করছি না।

এই বিভাগের আরো খবর