বৃহস্পতিবার   ২৪ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৮ ১৪২৬   ২৪ সফর ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
ধর্মঘট প্রত্যাহার, শনিবার অনুশীলনে যোগ দেবেন সাকিবরা বরগুনায় কলেজছাত্রী হত্যায় বিএনপির সাবেক নেতার যাবজ্জীবন তুরস্কে ফিকাহ-বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বাংলাদেশি গবেষক ডিসেম্বরে মুক্তি পাচ্ছে পরমব্রত-কোয়েলের নতুন সিনেমা মশা-ছারপোকা দূর করবে কর্পূর অছাত্ররা কোনোভাবেই ঢাবির হলে অবস্থান করতে পারবে না-উপাচার্য ধনী-দরিদ্রের বৈষম্য কমার প্রত্যাশা পরিকল্পনামন্ত্রীর আগামী ১ নভেম্বর থেকে সড়ক পরিবহন আইন কার্যকরে গেজেট প্রকাশ ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন জানুয়ারিতে! ২০৪০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে অধূমপায়ী রাষ্ট্র : তথ্যমন্ত্রী মহাকাশে তোলা সেলফি প্রকাশ বাংলাদেশ সফরে জাপানের সম্রাটকে আমন্ত্রণ রাষ্ট্রপতির এমপিও: ১৭৫ ভোকেশনাল প্রতিষ্ঠানের তালিকা  পরিবেশ সুরক্ষা নিশ্চিতে সরকার কাজ করছে : গণপূর্তমন্ত্রী প্রযুক্তি ব্যবহারে আফ্রিকায় ‘কৃষি বিপ্লব’ দুদক এখন অনেক শক্তিশালী: কমিশনার মোজাম্মেল ‘পায়ের বেড়ি’ খুলছে না সৌদি নারীদের বৃক্ষরোপণে ইসলামের উৎসাহ ও নির্দেশনা পদ্মাসেতুর অবশিষ্ট জমিতে মিলিটারি ফার্ম করবে সেনাবাহিনী শাহজালালে ১ কোটি ২০ লাখ টাকার স্বর্ণসহ যাত্রী আটক
১৫

বিএনপিকে বাদ দিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি ঐক্যফ্রন্টের!

প্রকাশিত: ৮ অক্টোবর ২০১৯  

ঐক্যফ্রন্টকে নিয়ে বিশেষ কোনো তৎপরতা না থাকায় অতিষ্ঠ হয়ে নির্বাচনকালীন জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা বিএনপি নেতাদের অনুপস্থিতিতে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনের কর্মসূচির নিয়েছে। জানা গেছে, আগামী ১৩ অক্টোবর ফ্রন্টের সর্বোচ্চ ফোরামের বৈঠক থেকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হবে।

বিষয়টি ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রব নিশ্চিত করেছেন। ফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের মতিঝিলের চেম্বারে আসম আবদুর রব ছাড়াও তানিয়া রব, আবদুল মালেক রতন, গণফোরামের আবু সাইয়িদ, সুব্রত চৌধুরী, জগলুল হায়দার আফ্রিক, বিকল্পধারার শাহ আহমেদ বাদল, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ফ্রন্টের দপ্তর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু বিএনপির কোনো নেতা বৈঠকে যোগ দেননি। এমনকি তাদের এ বৈঠকে আমন্ত্রণও করেনি ঐক্যফ্রন্ট।

নির্বাচনে চরম ফল বিপর্যয়ের পর সংসদে যোগদান, ফ্রন্ট থেকে একটি দলের বের হয়ে যাওয়া, শীর্ষ নেতার নির্বাচনী জোট হিসেবে ফ্রন্টকে আখ্যা দেয়াসহ কয়েকটি কারণে বেশকিছু দিন ধরে ঐক্যফ্রন্টে অস্থিরতা চলছিল। টানাপোড়েন প্রকাশ্যে আসে বিএনপির মাধ্যমেও। ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে গা ছাড়া মনোভাব পোষণ করে বিএনপি। এমন প্রেক্ষাপটে ফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকে বিএনপি নেতাদের অনুপস্থিতি ফ্রন্টের অনিশ্চিত ভবিষ্যতের ইঙ্গিত বহন করে।

এদিকে ফ্রন্টের বৈঠকে বিএনপির অনুপস্থিতির বিষয়ে কোনো কথাই বলতে রাজি নয় ফ্রন্টের নেতারা। তারা বলছেন, ফ্রন্টে যাদের আগ্রহ আছে তারাই ফ্রন্টকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। নতুন করে কাউকে আগ্রহী করে তুলতে নারাজ জোটের নেতারা।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঐক্যফ্রন্টের একজন নেতা বলেন, বিএনপি এখন কেবল নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত আছে। অথচ নির্বাচনের আগে তাদের আচরণ এমন ছিলো না। তারা না হয় নিজেদের নিয়ে ব্যস্ত আছে, কিন্তু আমাদেরও তো রাজনৈতিক ভাবাদর্শ আছে। ফলে ফ্রন্ট নিয়ে তাদের অনাগ্রহ মোটেই সমীচীন নয়। যেহেতু তারা গা ছাড়া মনোভাব প্রকাশ করছে তাই তাদের নিয়ে আমাদেরও কোনো মাথা ব্যথা নেই।

এই বিভাগের আরো খবর