সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
কাউন্সিলর রাজীব ১৪ দিনের রিমান্ডে সোনাদিয়া দ্বীপে শিল্পকারখানা না করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ রুশ ভাষায় প্রকাশিত বই প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর যুবলীগের সম্মেলন কমিটির আহ্বায়ক চয়ন, সদস্য সচিব হারুন ওমর বহিষ্কার, যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তাপস বোরহানউদ্দিনে সংঘর্ষের ঘটনায় তদন্ত কমিটি মাছের খাদ্যে শূকরের উপাদান আছে কিনা পরীক্ষার নির্দেশ স্পিকারের সঙ্গে পাঁচ মার্কিন সিনেটরের সাক্ষাৎ বৃদ্ধাশ্রম নয়, মা-বাবার জায়গা হোক হৃদয়ের মণিকোঠায় মিঠাপানিতে রুপালি ইলিশ ভারতের বিপক্ষে বিশ্ব একাদশে সাকিব-তামিম! হিন্দু ছেলের আইডি হ্যাক, ফেসবুকের কাছে তথ্য চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ডিআইজি বজলুরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ সৈকতঘেরা জাকার্তায় প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য নেপাল ভ্রমণের খুঁটিনাটি জাপান সম্রাটের অভিষেকে যোগ দিতে ঢাকা ছেড়েছেন রাষ্ট্রপতি শিশুর জন্মের পর ইসিতে জানানোর আইন চান সিইসি গণভবনে যুবলীগ নেতাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক আপনার ইমেইলেও থাকবে বসের নজরদারি! জঙ্গি হামলার শঙ্কা: নজরদারিতে দিল্লির ৪ শতাধিক স্থাপনা
১৯

বিভিন্ন স্কোয়াড্রন ও ইউনিটকে বিমান বাহিনীর পতাকা প্রদান

প্রকাশিত: ৯ অক্টোবর ২০১৯  

বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ঘাঁটি বঙ্গবন্ধুর অন্তর্গত ২৫ নম্বর স্কোয়াড্রন, ২০১ রক্ষণাবেক্ষেণ ইউনিট, ২০৩ রক্ষণাবেক্ষণ ইউনিট ও অ্যারো মেডিক্যাল ইনস্টিটিউটকে তাদের পেশাগত দক্ষতার জন্য ‘বাংলাদেশ বিমান বাহিনী পতাকা’ প্রদান করা হয়েছে। বাংলাদেশ বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত বুধবার (৯ অক্টোবর) এসব পতাকা তুলে দেন।

আন্তবাহিনী জনংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) জানায়, বিমান বাহিনী ঘাঁটি বঙ্গবন্ধুর প্যারেড গ্রাউন্ডে পতাকা প্রদানের এই অনুষ্ঠানের কুচকাওয়াজে নেতৃত্ব দেন উইং কমান্ডার মো. মাসুদুর রহমান। বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত বাদক ও পতাকাবাহী দলের সমন্বয়ে একটি অনাড়ম্বর পরিবেশে ২৫ নম্বর উড্ডয়ন স্কোয়াড্রন, ২০১ ও ২০৩ রক্ষণাবেক্ষণ ইউনিট এবং বিষেশায়িত অ্যারো মেডিক্যাল ইনস্টিটিউটকে  ‘বাংলাদেশ বিমান বাহিনী পতাকা’ হস্তান্তর করেন।

বিমান বাহিনী পতাকা হস্তান্তরের পর বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেন। এ সময় তিনি বিমান বাহিনীর সব স্তরের সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে বিমান বাহিনী সদস্যদের সাহসিকতাপূর্ণ অবদান জাতি চিরদিন শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে।’ তিনি বিমান বাহিনীর সব সদস্যদের পেশাগত দক্ষতা ও উৎকর্ষতা অর্জনের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘বাংলাদেশ বিমান বাহিনী দেশের আকাশ সীমার নিরাপত্তা ও সুরক্ষা ছাড়াও ভবিষ্যতে মহাকাশেও অপারেশনাল কার্যক্রম পরিচালনা করবে।’ এছাড়াও, দেশের এভিয়েশন শিল্প বিকাশে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে বিমান বাহিনীর প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার এবং বিমান বাহিনীর অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরো খবর