বুধবার   ২২ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৯ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
সরকারের ধারাবাহিকতায় গণতন্ত্র সূচকে বাংলাদেশের ৮ ধাপ অগ্রগতি ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন আর স্বপ্ন নয় বাস্তব : প্রধানমন্ত্রী এসকে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আদেশ শুক্রবার টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী থাইল্যান্ড-কম্বোডিয়া যাচ্ছেন শিল্পমন্ত্রী যশোরে সাবেক প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেকের জানাজা সম্পন্ন ই-পাসপোর্টে মানুষ আর ধোঁকায় পড়বে না: প্রধানমন্ত্রী বিজিএমইএ ভবন ভাঙার কাজ উদ্বোধন ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার করা মামলার রায় কাল পাসপোর্ট বহির্বিশ্বে একটি দেশের মর্যাদা নির্দেশক: রাষ্ট্রপতি ই-পাসপোর্ট চালু হচ্ছে আজ, উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ডিগ্রি পাস ছাড়া ফাজিল মাদ্রাসার সভাপতি হওয়া যাবে না প্রয়োজনে শিক্ষকদের বিদেশে পাঠান : প্রধানমন্ত্রী শিল্প-কারখানার পাশে জলাধার থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী কারিগরি শিক্ষার উন্নয়নসহ একনেকে ৮ প্রকল্প অনুমোদন যশোর-৬ আসনের এমপি ইসমত আর নেই,প্রধানমন্ত্রীর গভীর শোক আবরার হত্যা : অভিযোগ গঠন ৩০ জানুয়ারি শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টায় পাঁচ জনের মৃত্যুদণ্ড ভারত থেকে পেঁয়াজ কেনার কোনও সুযোগ নেই: বাণিজ্যমন্ত্রী

বিশাল জয়ে শুরু কুমিল্লার বঙ্গবন্ধু বিপিএল মিশন

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ১১ ডিসেম্বর ২০১৯  

 


বঙ্গবন্ধু বিপিএলের দ্বিতীয় ম্যাচে রংপুর রেঞ্জার্সকে ১০৫ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স। প্রথমে ব্যাট করে  রংপুরকে ১৭৪ রানের কঠিন লক্ষ্য দেয় কুমিল্লা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৪ ওভারে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে  ৬৮ রান তোলে মোহাম্মদ নবীরা। এতে ১০৫ রানের জয় নিয়ে বিপিএলের মিশন শুরু করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের স্পন্সারকৃত দলটি। 

এর আগে প্রথমে ব্যাট করে কুমিল্লার অধিনায়ক ধাসুন সানাকার ব্যাটিং ঝড়ে নির্ধারিত ওভারে ১৭৩ রান করে ওয়ারিয়র্সরা। এতে মোহাম্মদ নবীদের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৭৪ রান। জবাবে খেলতে নেমে শুরুটা মোটেও ভালো করতে পারেনি রংপুরের ওপেনাররা। 

নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকলে শেষ পর্যন্ত ১৪ ওভারে থামে রংপুরের ইনিংস। এতে প্রথম ম্যাচেই জয়ের দেখা পায় কুমিল্লা। 

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় দলটি। ইনিংসের প্রথম বলেই সাজঘরে ফেরেন কুমিল্লার ওপেনার ইয়াসির আলি। এরপর সৌম্য ও রাজাপাকসে মিলে কিছুটা প্রতিরোধ গড়েন। ১৮ বলে ২৬ করে মুস্তাফিজের বলে আউট হন সৌম্য। সঙ্গী বিদায়ে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি রাজাপাকসেও। ১৩ বলে ১৫ করে সঞ্জিতের বলে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি।

এরপর ডেভিড মালান ও সাব্বির রহমান এগিয়ে নিতে থাকেন দলকে। তবে ২৫ রানে মালান আউট হওয়ার পরেই হালকা ধস নামে কুমিল্লার ইনিংসে। ৩ উইকেটে ৮৫ থেকে কুমিল্লা পা দেয় ৬ উইকেটে ৮৯-এ। এ সময় দেড়শ পার করা নিয়েই শঙ্কা দেখা দেয়। 

এমন পরিস্থিতিতে দলের হাল ধরেন অধিনায়ক দাসুন শানাকা। একের পর এক বল আছড়ে ফেলতে থাকেন সীমানার ওপারে। একটি বল তো গ্র্যান্ড স্ট্যান্ড ছাড়িয়ে স্টেডিয়ামের বাইরেই পাঠিয়ে দেন তিনি। শানাকা ঝড়ে লন্ডভন্ড হয়ে যায় রংপুরের বোলিং লাইন আপ। 

শেষ পর্যন্ত ৩১ বলে অপরাজিত ৭৫ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন শানাকা। তার ইনিংসে চার ছিল মাত্র তিনটি, তবে ছক্কার মার ছিল নয়টি। মূলত এই ইনিংসের জোরেই ভালো স্কোর গড়তে পারে কুমিল্লা। 

রংপুরের হয়ে বল হাতে দুটি করে উইকেট নিয়েছেন সঞ্জিত সাহা, মুস্তাফিজুর রহমান ও লুইস গ্রেগরি। 

বরগুনার আলো
এই বিভাগের আরো খবর