• শনিবার   ৩০ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭

  • || ০৭ শাওয়াল ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ২৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৭৬৪ পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কি.মি. দৃশ্যমান, বসল ৩০তম স্প্যান পদ্মা সেতুর ৩০তম স্প্যান বসছে আজ একদিনে সর্বোচ্চ আড়াই হাজার শনাক্ত, মৃত্যু ২৩ জনের বিকেল ৪টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে দোকান-শপিংমল দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩১ মে থেকে গণপরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত দেশে একদিনে নতুন শনাক্ত ১৫৪১, মৃত্যু ২২ জীবন বাঁচাতে জীবিকাও সচল রাখতে হবে: কাদের ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮৭৩ জন শনাক্ত, মৃত্যু আরও ২০ জনের র‌্যাব-৮ এর অভিযানে মাদারীপুর থেকে জেএমবি’র সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার ২৪ ঘণ্টায় ২৪ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ছাড়াল ৩০ হাজার মমতাকে সহমর্মিতা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফোন মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত মহাবিপদ সংকেত জারি সকালে, রাতের মধ্যে আসতে হবে আশ্রয় কেন্দ্রে ২ লাখ ৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন আম্পানের আঘাতে ১০ ফুটের অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা আরও ১২৫১ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২১ জনের আরও ৭ হাজার কওমি মাদ্রাসাকে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা পায়রা-মংলায় ৭, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত
১১১

বিড়াল পেল সরকারি চাকরি, আইডি কার্ড ঝুলিয়ে অফিসও করছে!

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 


ব্রাজিলের অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ের আইন পরামর্শক বিভাগ লিওন নামে একটি বিড়ালের চাকরির ব্যবস্থা করে দিয়েছেন।
চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে প্রচণ্ড ঝড়ে বিধ্বস্ত ব্রাজিলের উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ আমপা। ওইদিন ঝড়-বৃষ্টিতে ভিজে অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ে একটি বিড়াল ছানা আশ্রয় নেয়। প্রথম দর্শনে কার্যালয়ের বেশ কয়েকজন কর্মীর বিড়ালটিকে ভালো লেগে যায়। তারা পরম মমতায় বিড়ালটিকে পুষতে থাকেন। এভাবে বেশ আরাম-আয়েশে সরকারি ভবনে বিড়ালটির দিন ভালোই কাটছিল।

কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই কার্যালয়ের কয়েকজন কর্মী ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বিষয়টি নিয়ে নালিশ জানায়। তাদের যুক্তি ছিল- অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ের মতো একটি গুরুত্বপূর্ণ সরকারি ভবনে বিড়াল পোষা কতটা যুক্তিযুক্ত! তারা বিড়ালটি রাস্তায় ফেলে দেয়ার দাবি জানায়। তবে বিড়ালটিকে যারা আশ্রয় দিয়েছেন তারা সেই দাবি মানতে রাজি হননি। 


 
উভয় পক্ষের টানাটানিতে যখন বিড়ালটির ভবিষ্যত বিপন্ন তখন এগিয়ে আসেন  কার্যালয়ের আইন পরামর্শক বিভাগের প্রেসিডেন্ট ড. জ্যানেট লারিডো।  তিনি বিড়ালটিকে কার্যালয়ের অভ্যর্থনাকারী হিসেবে নিয়োগ দেন।

ড. জ্যানেট সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিড়ালটির ছবিসহ এই ঘটনার বিবরণ পোস্ট করেন। পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে তা ভাইরাল হয়ে যায়। প্রায় এগারো হাজারবার পোস্টটি শেয়ার হয়েছে।  

বর্তমানে অভ্যর্থনাকারী হিসেবে বেশ সুখেই আছে বিড়ালটি। প্রতিদিন গলায় সরকারি আইডি কার্ড ঝুলিয়ে অফিসও করছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে একটি অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে তার নামে। সেখানে প্রতিদিন ছবি দিয়ে তার উপস্থিতি জানান দিচ্ছে সে। 

তবে বিড়ালটির জন্য সবচেয়ে খুশির বিষয়- এক সময় যারা তাকে বের করে দিতে চেয়েছিল, বর্তমানে তারাও তাকে আদর-যত্ন করছে।

বরগুনার আলো
ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর