• বুধবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১৩ ১৪২৭

  • || ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
৭ ফেব্রুয়ারি একযোগে টিকাদান কর্মসূচি শুরু: স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশে করোনায় ১৪ মৃত্যু, শনাক্ত ৫১৫ কারও ব্যবসায়িক স্বার্থে ভ্যাকসিন সংগ্রহ করেনি সরকার: কাদের দেশের প্রথম নৌপ্রধান ক্যাপ্টেন নুরুল হক আর নেই দেশে ফিটনেসবিহীন গাড়ি চার লাখ ৮১ হাজার: কাদের বৈধ পথে বাড়ছে রেমিট্যান্স: পলক করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৮, শনাক্ত ৬০২ চার ফিফটিতে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৯৭ সব জেলায় ৪-৫ দিনের মধ্যে ভ্যাকসিন পৌঁছে যাবে: পাপন দেশে পৌঁছেছে সেরামের ৫০ লাখ টিকা রমজানে টিসিবির পণ্য ৩ গুণ বাড়ানো হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী রেশম শিল্পের উন্নয়নে সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়া হবে: পাটমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২০, শনাক্ত ৪৭৩ অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ঐক‌্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান: কাদের দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির নিয়মিত ক্লাস হবে: শিক্ষামন্ত্রী ঢাকা শুধু বাসযোগ্য নয়, বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হবে: তাজুল করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২২, শনাক্ত ৪৩৬ সবার আগে আমি ভ্যাকসিন নেব : অর্থমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৬, শনাক্ত ৫৮৪ সার্জেন্টের ওপর হামলাকারী সেই যুবক গ্রেপ্তার

ভারতের ‘মুকেশ আম্বানি’র লোক পরিচয়ে প্রতারণা

বরগুনার আলো

প্রকাশিত: ২৩ নভেম্বর ২০২০  

প্রাইভেটকারে পুলিশ স্টিকার লাগিয়ে নিরীহ মানুষের কাছ থেকে বিভিন্ন কৌশলে টাকা আদায় করার সময় পাঁচ প্রতারককে আটক করেছে সাতক্ষীরা ডিবি পুলিশ। আটকরা নিজেদের ভারতের মুকেশ আম্বানির কোম্পানির লোক বলে পরিচয় দিতেন। এছাড়া ভেজাল কোমল পানীয় তৈরি করে বিক্রির সময় আটক হয়েছে আরও দুই প্রতারক। সোমবার (২৩ নভেম্বর) পৃথক অভিযানে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন-খুলনার পাইকগাছা থানার কাটিপাড়া গ্রামের আশরাফুল গাজী ওরফে এডি পাশা (ভারতীয় নাগরিক পরিচয়দানকারী), সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার আবু সাঈদ, গোপালপুরের নির্মল সরকার, পাইকগাছার গদাইপুর ইউপি সদস্য হাকিম গাজী ও চরমুলই গ্রামের আজিবর রহমান। এ সময় আলাউদ্দিন, জাহাঙ্গীর, আসলাম সরদার ও মো. শাহীন নামের চার প্রতারক পালিয়ে যান। এছাড়া ভেজাল কোমল পানীয় বিক্রির সময় আটক হন আজিজুল হক রাজু ও আল ইমরান।

সাতক্ষীরা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইয়াসিন আলী চৌধুরী জানান, ১০ লাখ টাকা দিলে তার বিনিময়ে সাত কোটি টাকার ব্যবস্থা করে দেয়া হবে-এমন কথা বলে কয়েক দফায় প্রতারক চক্রটি আবুল ফয়েজ নামের এক ব্যক্তির কাছ থেকে এই টাকা আদায় করে। তাদের কাছে মূল্যবান সীমানা পিলার ও তক্ষক সাপ রয়েছে। ভারতীয় কর্মকর্তা এডি পাশাকে বস হিসেবে দেখিয়ে তারা ফয়েজের কাছ থেকে দফায় দফায় টাকা আদায় করে আসছিলেন।

তিনি বলেন, সোমবার সকালে একইভাবে শহরের পলাশপোল এলাকার ‘কোলকাতা শপিং কমপ্লেক্স’ এর তৃতীয় তলায় প্রতারণা করছিলেন তারা। এ সময় হাতেনাতে পাঁচজন প্রতারককে আটক করা হয়। পালিয়ে যান আরও চারজন। তাদের কাছ থেকে পুলিশ স্টিকার লাগানো একটি প্রাইভেটকার, কয়েকটি ভুয়া ভারতীয় ভিজিটিং কার্ড ও অন্যান্য জিনিসপত্র আটক করা হয়েছে।

বরগুনার আলো