বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৭ সফর ১৪৪১

বরগুনার আলো
ব্রেকিং:
মানবতাবাদী নাট্যকার আর্থার মিলারের জন্ম মুখের কথায় চলে সাইদের ‘আশ্চর্য মোটরসাইকেল’ নীলনদের তীরে মিললো ‘গুরুত্বপূর্ণ’ প্রাচীন কফিন    পর্দা নামলো ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড এক্সপোর কুষ্টিয়ায় শুরু হলো তিনদিন ব্যাপী লালনমেলা বাংলাদেশই বিশ্বসেরা, প্রবৃদ্ধি হবে ৭.৮ শতাংশ হাজার কোটি টাকার চেকের কপি প্রতারক চক্রের বাসায়! ৯ কর্মীকে তলব, একজনের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ ইন্দোনেশিয়া থেকে সরাসরি পণ্য আমদানির সুযোগ চায় বাংলাদেশ পার্বত্য জেলায় সন্ত্রাস-মাদক নির্মূল করা হবে-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাবেক সহকারী কর কমিশনারকে গ্রেপ্তার করল দুদক র‌্যাগিংয়ের অভিযোগ পেলেই শাস্তি: আইনমন্ত্রী একাদশ সংসদের পঞ্চম অধিবেশন শুরু ৭ নভেম্বর যেখানে দুর্নীতি-টেন্ডারবাজি সেখানে অভিযান- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ফাহাদ হত্যা মামলায় বিশেষ প্রসিকিউশন টিম হবে: আইনমন্ত্রী ন্যাম সম্মেলনে যোগ দিতে বাকু যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী রিফাত হত্যা : প্রধান আসামির জামিন নামঞ্জুর বিএসএমএমইউয়ে বিশ্ব অ্যানেসথেসিয়া ও মেরুদণ্ড দিবস পালিত মুন্সিগঞ্জের ১৩টি সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
৩১

ভালো খেলেও হারলো বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০১৯  

২০২২ বিশ্বকাপ ও ২০২৩ এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে ভালো খেলেও জিততে পারল না বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) ঘরের মাঠ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে কাতারের বিপক্ষে ২-০ গোলে হারল জামাল ভূঁইয়ারা।

বাছাইপর্বে এটা কাতারের দ্বিতীয় জয়, আর বাংলাদেশের দ্বিতীয় হার। প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ আফগানিস্তানের কাছে ১-০ গোলে হেরেছিল। এবার কাতারের কাছে ২-০ ব্যবধানে হারল। এর আগে কাতার প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬-০ গোলে জিতেছিল। আর ভারতের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছিল।

বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে’র ইচ্ছা ছিল ম্যাচটি জয়ের। তবে সেটা আকারে-ইঙ্গিতে বুঝিয়েছিলেন তিনি। কারণ, কাতারের মত দলের বিপক্ষে জয়ের প্রত্যাশা করাটা বোকামিই বলতে গেলে। তবুও জেমি’র ইচ্ছা ছিল ভালো ফুটবল খেলা। এদিন কাতারের বিপক্ষে সত্যিই ভালো খেলেছে বাংলাদেশ। দিনে বৃষ্টি হওয়ার কারণে মাঠ কিছুটা ভারি ছিল। যে কারণে, কাতারের ফুটবলাররা নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে পারেনি। এ সুযোগে নিজেদের প্রকাশের সুযোগ পেয়েছিল জামাল ভূঁইয়ারা। কিন্তু ভাগ্য সহায় হয়নি তাদের।

ম্যাচের শুরুতে আধাঘণ্টা কাতারের আক্রমণ ঠেকিয়ে রাখতে পেরেছিল বাংলাদেশের ফুটবলাররা। কিন্তু ২৮ মিনিটের মাথায় আবদুর ইসাগের দুর্দান্ত শটে প্রথমবারেরমত পিছিয়ে যায় বাংলাদেশ।

গোল হজম করার পর সেটা শোধ করার জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে বাংলাদেশের ফুটবলাররা। বেশ কিছু সুযোগও পেয়েছিল। কিন্তু যে মাঠে খেলে অভ্যস্ত জীবন-বিপলুরা, সে মাঠে এলোমেলো শটের খেসারত দিতে হলো গোল না পেয়ে। কাতারের পোস্টের সামনে গিয়েই কেন যেন খেই হারিয়ে ফেলে বাংলাদেশের ফুটবলাররা। যে কারণে দারুণ কিছু সুযোগ পাওয়ার পরও সঠিক শট নিতে না পারার কারণে সাফল্যও ধরা দেয়নি।

ম্যাচের ইনজুরি সময়ে গোল হজম করা বাংলাদেশের পুরনো দিনের অভ্যাস। সেটা আজ আবারও ফিরে এলো। ইনজুরি সময়ের (৯০+১) আবারও গোল হজম করে বসে বাংলাদেশ। এবার গোলটা পুরোপুরি ডিফেন্ডারদের গাফিলতির কারণে এলো। বক্সে জটলা বেধে যায়।

বাংলাদেশের বেশ কয়েকজন ডিফেন্ডারের উপস্থিতি সেখানে। তবুও বল ক্লিয়ার করতে পারেননি তারা। শেষ মুহূর্তে বউদিয়াফের নিচু শটে বল জড়িয়ে যায় বাংলাদেশের জালে। ব্যবধান দাঁড়িয়ে গেলো ২-০ গোলের। এরপর তো জয় দুরে থাক, ড্র করার চিন্তাও করার উপায় ছিল না এবং শেষ পর্যন্ত হলোও না। ২-০ গোলে হেরেই মাঠ ছাড়তে হলো বাংলাদেশকে।

বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বের ফিরতি ম্যাচে ১৫ অক্টোবর ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ম্যাচটি কলকাতার বিখ্যাত সল্টলেকে অনুষ্ঠিত হবে।

এই বিভাগের আরো খবর